Advertisement
Advertisement

উড়ান বাতিল বা বিলম্বিত হলে এবার টিকিটের মূল্য ফেরত দেবে বিমান সংস্থা

বিমানযাত্রায় বাড়ছে আরও সুযোগ-সুবিধা।

Airlines may soon compensate travellers
Published by: Sangbad Pratidin Digital
  • Posted:May 22, 2018 6:14 pm
  • Updated:May 22, 2018 6:14 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিমান করে কোনও গন্তব্যে যাবেন, সব ঠিক রয়েছে, হঠাৎ খবর এল বাতিল করা হয়েছে বিমান বা ছাড়তে দেরি হবে। কখনও তা খারাপ আবহাওয়ার কারণে হতে পারে বা যান্ত্রfক গোলযোগের কারণে। এসমস্ত ক্ষেত্রে সবচেয়ে অসুবিধার হয়ে দাঁড়ার বিমানের জন্য আপনি যে টিকিট কেটেছেন, সেই টিকিটের দাম ফেরত পাওয়া। তবে মিটতে চলেছে সেই সমস্যা। বিমান বাতিল করলে বা ছাড়তে দেরি করলে এবার সমস্থ বেসরকারি বিমান সংস্থাগুলিকে ফেরত দিতে হবে যাত্রীদের টিকিটের মূল্য বা দিতে হবে ক্ষতিপূরণ। মঙ্গলবার এই ঘোষণা করলেন অসামরিক বিমান পরিষেবা মন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী জয়ন্ত সিনহা।

[কাঠুয়া কাণ্ডে ন্যায়বিচারের প্রতিশ্রুতি দেওয়ায় মুফতিকে কটূক্তি বিজেপি নেতার]

Advertisement

কেমন ভাবে ফেরত দেওয়া হবে বা কোন কোন শর্তে ফেরত দেওয়া হবে সেই বিষয়ে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে কেন্দ্রের এই পরিকল্পনায় স্বস্তি মিলতে চলেছে বিমান যাত্রীদের তা অনেকেই স্বীকার করে নিচ্ছেন। অসামরিক বিমান পরিষেবা মন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী জয়ন্ত সিনহা সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, ক্ষতিপূরণ বিভিন্ন ধরনের হতে পারে। তবে টিকিটের মূল্য ফেরত দেওয়ার ক্ষেত্রে কেবলমাত্র কেটে নেওয়া হবে বিমানের বেসিক ভাড়া ও জ্বালানি খরচ। তিনি ইঙ্গিত দিয়েছেন, আবহাওয়ার কারণে বিমান বাতিল হলে বা ছাড়াতে দেরি হলে সেই বিষয়কে বাদ রাখা হবে এই তালিকা থেকে। এবার থেকে সমস্ত দেশীয় ও আন্তর্জাতিক বিমানে মোবাইল ও ইন্টারনেট পরিষেবা পাওয়া যাবে বলেও মঙ্গলবার ঘোষণা করেছেন মন্ত্রী জয়ন্ত সিনহা।

Advertisement

[আস্থাভোট পর্যন্ত হোটেলেই বন্দি বিধায়করা]

প্রসঙ্গত, আজ যে সিদ্ধান্ত অসামরিক বিমান পরিষেবা মন্ত্রক ঘোষণা করেছে তাতে কয়েক সপ্তাহ আগেই শিলমোহর দিয়েছিল ভারতের টেলিকম কমিশন। কমিশনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, একটি নির্দিষ্ট ব়্যাডারের মধ্যে থাকলে এবার থেকে মোবাইল ও ইন্টারনেট পরিষেবা দিতে পারবে সমস্ত ভারতীয় বিমান সংস্থা এবং ভারতে আগত আন্তর্জাতিক বিমানগুলি। এই ধরনের পরিষেবা প্রদান করার জন্য বিমান সংস্থাগুলিকে একটি বিশেষ ধরনের লাইসেন্স নিতে হবে। যার নাম দেওয়া হয়েছে ইন-ফ্লাইট কানেকটিভিটি প্রোভাইডার। এই লাইসেন্স নিলে তবেই ভূমি থেকে ৩০০০ মিটার উচ্চতার মধ্যে ফোন, ইন্টারনেট পরিষেবা প্রদান করতে পারবে বিমান সংস্থাগুলি।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ