BREAKING NEWS

১০ আষাঢ়  ১৪২৮  শুক্রবার ২৫ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

অমানবিক! করোনা রোগীকে হাসপাতালে পৌঁছতে ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা দাবি অ্যাম্বুল্যান্স মালিকের!

Published by: Arupkanti Bera |    Posted: May 7, 2021 8:40 pm|    Updated: May 7, 2021 9:03 pm

Ambulance owner arrested for charging 1.2 lakh rupees from COVID-19 patient's kin in Delhi । Sangbad Pratidin

প্রতীকী চিত্র।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনার (Corona Virus) দ্বিতীয় (Second Wave) ঢেউয়ে গোটা দেশ বেহাল। সবাই নিজের মতো করে লড়াই চালাচ্ছেন। যে যেমন পারছেন অন্যের পাশে থাকার চেষ্টা করছেন। কিন্তু কিছু অসাধু লোক এই বিপদের সময়েও মানুষের অসহায়তার সুযোগ নিয়ে উপরি কিছু কামিয়ে নিতে চাইছে। দিল্লির (Delhi) এমনই এক অ্যাম্বুল্যান্স মালিক গ্রেপ্তার হয়ে গেল পুলিশের হাতে। সে এক রোগীকে হাসপাতালে পৌঁছে দিতে ১ লাখ ২০ হাজার টাকা দাবি করে।

দিল্লি পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, নির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নামে ইন্দ্রপুরি থানা। অভিযোগ, করোনা আক্রান্ত রোগীর আত্মীয়দের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ টাকা চাইছেন মিমোহ কুমার বিন্দওয়াল নামের এক অ্যাম্বুল্যান্স পরিষেবা সংস্থার মালিক। তদন্তে নেমে পুলিশ দেখে ওই ব্যক্তি রোগী নিয়ে যেতে দ্বিগুন, তিনগুন বা তার থেকেও বেশি টাকা চাইছে কখনও কখনও। এর পরই পুলিশ মিমোহকে গ্রেপ্তার করে।

[আরও পড়ুন: শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে ‘কৌশলী’ মুকুল রায়, দলকে এড়িয়ে বিধানসভায় তৃণমূল নেতৃত্বের সঙ্গে সাক্ষাৎ]

তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে, গত প্রায় ১ মাস ধরে এই কারবার করে যাচ্ছিল মিমোহ। এর মাঝে সুযোগ বুঝে প্রচুর মানুষকে এ ভাবে প্রতারণাও করেছে। পুলিশ পরে আরও জানতে পারে ওই অ্যাম্বুল্যান্স মালিক এক জন এমবিবিএস ডাক্তার। গত ২ বছর ধরে সে অ্যাম্বুল্যান্স ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত।

[আরও পড়ুন: বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনাল ও টেস্ট সিরিজের জন্য ঘোষিত ভারতীয় দল, বাদ হার্দিক-ভুবি]

পুলিশের হাতে ধরা পড়ার পর ওই অ্যাম্বুল্যান্স মালিক করোনা আক্রান্ত রোগীর পরিবারকে টাকা ফেরতও দেয়। তবে পুলিশ তার একটি অ্যাম্বুল্যান্স বাজেয়াপ্ত করেছে। ইন্দ্রপুরি থানায় ওই অ্যাম্বুল্যান্স মালিক ডাক্তারের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধি ৪২০ ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তদন্ত চলছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement