৩০ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নৌসেরা সেক্টরের পর এবার পুঞ্চের কৃষ্ণঘাঁটি সেক্টর৷ মাত্র তিনদিনের মাথায় ফের সংঘর্ষবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে পাকিস্তান৷ মঙ্গলবার সকালে পাকিস্তান এবং ভারতীয় সেনা জওয়ানদের মধ্যে শুরু হয় গুলির লড়াই৷ তাতেই শহিদ হয়েছেন এক ভারতীয় জওয়ান৷

[আরও পড়ুন: এবার ফেসবুক-হোয়াটসঅ্যাপের সঙ্গেও লিংক করতে হবে আধার কার্ড!]

মঙ্গলবার সকাল এগারোটা নাগাদ জম্মু-কাশ্মীরের পুঞ্চের কৃষ্ণঘাঁটি সেক্টরে সংঘর্ষবিরতি লঙ্ঘন করে পাকিস্তান৷ বিনা প্ররোচনায় গুলি চালাতে শুরু করে পাকিস্তানি সেনা৷ পালটা জবাব দেয় ভারতীয় সেনা৷ গুলি চালাতে শুরু করে তারা৷ বেশ কয়েকঘণ্টা ধরে দু’পক্ষের মধ্যে চলে গুলি বিনিময়৷ তাতেই শহিদ হন এক ভারতীয় জওয়ান৷ শহিদ ওই জওয়ান বছর ছত্রিশের রবিরঞ্জন কুমার সিং, তিনি নায়েক পদে কর্মরত ছিলেন। তিনি বিহারের গোপী বিঘা গ্রামের বাসিন্দা৷ স্বামীর মৃত্যুর খবর পৌঁছে গিয়েছে তাঁর স্ত্রীর কাছেও৷ চোখের জল বাঁধ মানছে না তাঁর৷ আপাতত স্বামীকে শেষ দেখার অপেক্ষায় প্রহর গুনছেন তিনি৷

এর আগে গত ১৭ আগস্ট সকাল সাড়ে ছটা নাগাদ রাজৌরি জেলার নৌসেরা সেক্টর সংলগ্ন আউটপোস্ট ও গ্রামগুলিতে গুলি ছুঁড়তে শুরু করে পাকিস্তান। পালটা জবাব দিতে থাকেন ভারতীয় সেনা জওয়ানরাও। উভয়পক্ষের লড়াইয়ের জেরে গুরুতর জখম হন ল্যান্স নায়েক সন্দীপ। পরে তাঁর মৃত্যু হয়। 

[আরও পড়ুন: নেপালি হওয়ায় স্কুল থেকে বহিষ্কৃত ২ বোন! অভিযোগ প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে]

সংসদের বাদল অধিবেশন চলাকালীন কাশ্মীরে বাতিল করা হয় ৩৭০ ধারা। এরপর থেকেই কাশ্মীরে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করছে জঙ্গিরা। আর এই কাজে তাদের পুরোপুরি মদত দিচ্ছে পাকিস্তান। কয়েকদিন আগে ভারতে অনুপ্রবেশ করতে গিয়ে খতম হয় পাকিস্তানের কয়েকজন সেনা। তারপরও লজ্জা হয়নি তাদের। ক্রমাগত সংঘর্ষবিরতি লঙ্ঘন করে কাশ্মীরের সীমান্তবর্তী গ্রামগুলিতে গুলি ছুঁড়ছে। সমর বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বহুদিন ধরেই সীমান্তে সংঘর্ষবিরতি লঙ্ঘন করার ফাঁকে ভারতে জঙ্গি ঢোকাচ্ছে পাকিস্তান।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং