১ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৮  রবিবার ১৬ মে ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

করোনা সংকটের সুযোগ নিতে পারে দেশবিরোধী শক্তি, সতর্ক করল RSS

Published by: Paramita Paul |    Posted: April 28, 2021 2:13 pm|    Updated: April 28, 2021 2:13 pm

Anti national elecments can take oppertunity amid COVID-19 situation says RSS | Sangbad Pratidin

ছবি প্রতীকী

সুদীপ রায়চৌধুরী: কোভিড (Covid-19) ‘সুনামি’ ঠেকাতে নাজেহাল সরকার। বিপর্যস্ত জনজীবন। এই পরিস্থিতিতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে অস্থিরতার মধ্যে ‘দেশবিরোধী ও ধ্বংসাত্মক’ শক্তিগুলি সম্পর্কে সতর্ক করল রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ (RSS)। সংঘের আশঙ্কা, পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে এই শক্তিগুলি সক্রিয় হয়ে উঠতে পারে ও দেশজুড়ে ‘নেতিবাচক ও অবিশ্বাসের পরিবেশ’ তৈরি করতে পারে।

শনিবার রাতে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে সংঘের ‌পক্ষ থেকে একটি লিখিত বিবৃতি দিয়েছেন সরকার্যবাহ দত্তাত্রেয় হোসাবলে। সেখানে তিনি বলেছেন, “কোভিড অতিমারী সমগ্র জাতিকে আরও একবার বিশাল চ্যালেঞ্জের মুখে এনে ফেলেছে। এই মহামারীটির সংক্রমণ ক্ষমতা এবং তীব্রতা এই সময় আরও গুরুতর। হঠাৎ করে মহামারীর ভয়াবহতা বৃদ্ধির কারণে মানুষ হাসপাতালে বেড, অক্সিজেন এবং প্রয়োজনীয় ওষুধের ঘাটতির মুখোমুখি হচ্ছে। ভারতের মতো বড় দেশে এই সমস্যা প্রায়শই বিশাল আকার ধারণ করছে। কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকারের পাশাপাশি স্থানীয় প্রশাসনও এই চ্যালেঞ্জকে মোকাবিলার জন্য সর্বতোভাবে চেষ্টা চালাচ্ছে।”

[আরও পড়ুন: আরব সাগরে শক্তিপ্রদর্শন ভারত-ফ্রান্সের, সফল যৌথ নৌমহড়া ‘বরুণ’]

বিবৃতিতে হোসাবলে আরও বলেছেন, “সমাজের ক্ষতিকারক এবং ভারতবিরোধী শক্তিগুলি এই বিরূপ পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে দেশে নেতিবাচকতা এবং অবিশ্বাসের পরিবেশ তৈরি করতে পারে, এমন আশঙ্কাও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। সকল দেশবাসীর কর্তব্য সংকটের মোকাবিলার পাশাপাশি এই দেশবিরোধী শক্তির ষড়যন্ত্র সম্পর্কেও সতর্ক থাকা।”

গত বছর লকডাউনের সময় দেশজুড়ে একাধিক সেবা প্রকল্প চালিয়েছিল সংঘ। বর্তমান সংকটকালেও একইভাবে মানুষের পাশে দাঁড়াতে স্বয়ংসেবকদের অনুরোধ জানিয়েছেন হোসাবলে। সব ধরনের সামাজিক, ধর্মীয় ও সেবা প্রতিষ্ঠান এবং শিল্প সংস্থাগুলিকেও এগিয়ে আসার আবেদন জানিয়েছেন তিনি।

[আরও পড়ুন: ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতি, দেশের ১৫০ জেলায় হতে পারে লকডাউন!]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement