১৫  আষাঢ়  ১৪২৯  শুক্রবার ১ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সোপিয়ানে বাধ্য হয়ে গুলি চালাতে হয়েছে, স্পষ্ট করল সেনা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 31, 2018 5:47 pm|    Updated: January 31, 2018 5:47 pm

'Army forced to fire on stone pelters in Kashmir'

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘বিক্ষোভকারীদের হটাতে গুলি চালানো ছাড়া অন্য কোনও উপায় ছিল না।’ গত ২৭ জানুয়ারি সোপিয়ানে গুলি চালানোর ঘটনার সাফাই দিতে গিয়ে বুধবার এ কথা স্পষ্ট করলেন নর্দার্ন আর্মি কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল দেবরাজ আনবু। এদিন তিনি বলেন, ‘আত্মরক্ষায় গুলি চালিয়েছে সেনা। বিক্ষোভকারী জনতা পুলিশ ও সেনাকে লক্ষ্য করে তীব্র ইটবৃষ্টি করছিল। তাদের সরানোর অন্য কোনও উপায় ছিল না।’

[অমানবিক! শিশপুত্রকে দড়িতে বেঁধে, মেয়েকে মেঝেতে ফেলে নির্দয় মার বাবার]

সেনার বিরুদ্ধে জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশের দায়ের করা এফআইআ প্রসঙ্গে সেনার ঢাল হিসাবে দাঁড়িয়ে এ কথা বলেন জেনারেল দেবরাজ। ২৭ জানুয়ারি সেনার গুলিতে তিন বিক্ষোভকারীর মৃত্যু হয়। ওই ঘটনায় সেনার বিরুদ্ধে বিনা প্ররোচনায় গুলি চালানোর লিখিত অভিযোগ দায়ের করে জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশ। ওই এফআইআরকে ‘দুর্ভাগ্যজনক’ আখ্যা দিয়েছেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল দেবরাজ আনবু। তিনি বলেছেন, ‘একটি অভিযোগ দায়ের হয়েছে বলে শুনেছি। তদন্ত হলেই গোটা ঘটনা প্রকাশ্যে আসবে।’ রাজ্য সরকারের তদন্তের সমান্তরাল তদন্ত চালিয়ে সেনা জানতে পেরেছে, ওই দিন উপত্যকায় পরিস্থিতি এতটাই উত্তেজনাপূর্ণ ছিল যে গুলি চালানো ছাড়া সেনার আত্মরক্ষার অন্য কোনও উপায় ছিল না। সে কথাও স্পষ্ট করেছেন তিনি।

গোটা ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছে বিজেপি। যদিও জম্মু ও কাশ্মীরে বিজেপির সঙ্গী পিডিপি আবার এই ঘটনায় পুলিশের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে। সেনা সূত্রে খবর, এফআইআরে নির্দিষ্টভাবে কারও নাম নেই। যদিও জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশের দাবি, দুই সেনা অফিসারের বিরুদ্ধে ৩০২ ধারায় খুন, ৩০৭ ধারায় হত্যার চেষ্টার অভিযোগে এফআইআর দায়ের হয়েছে। অভিযোগপত্রে এক সেনা মেজরের নাম রয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে খবর। এফআইআর দায়ের প্রসঙ্গে সেনা সূত্রে ক্ষোভ প্রকাশ করে জানানো হয়েছে, এই পদক্ষেপ ‘প্রি-ম্যাচিওর’। জম্মু ও কাশ্মীরের মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি অবশ্য পুলিশের এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ‘সেনা হয়তো নিজের কাজ খুবই সাফল্যের সঙ্গে করেছে। কিন্তু ব্ল্যাক শিপ সব জায়গাতেই থাকে।’ জম্মু ও কাশ্মীরের বিজেপি মুখপাত্র বীরেন্দ্র গুপ্ত বলেছেন, ‘এই এফআইআর দুর্ভাগ্যজনক।’

[এবার সাগরেও অপ্রতিরোধ্য ভারত, সেনার ভাঁড়ারে স্করপেন সাবমেরিন ‘আইএনএস করঞ্জ’]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে