১৪  আষাঢ়  ১৪২৯  বুধবার ২৯ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সলমনকে খুনের পরিকল্পনার দলে ছিলেন ভারতীয় জওয়ান

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 14, 2018 11:37 am|    Updated: June 14, 2018 12:59 pm

Armyman were among the group, which is plan to kill Salman

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কিছুদিন সলমন খানকে খুন করার পরিকল্পনার কথা সামনে এসেছিল। জেরায় সেকথা স্বীকার করেছিল ধৃত সম্পত নেহেরা। এবার জেরাতেই জানা গেল, সম্পতের দলে ছিল এক ভারতীয় জওয়ানও। তাকে বুধবার গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

জানা গিয়েছে, ধৃত ওই জওয়ানের নাম দীনেশ কুমার। বয়স ২৯ বছর। তার বাড়ি রাজস্থানে। এক সিনিয়র পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন, কিছুদিন আগে কাজ থেকে ছুটি নিয়েছিল দীনেশ। কিন্তু ছুটি শেষ হয়ে যাওয়ার পরও সে সেনাদলে যোগ দেয়নি। মনে করা হচ্ছে, সলমনকে খুনের যে পরিকল্পনা করা হয়েছিল, তার সঙ্গে যুক্ত ছিল দীনেশ।

সলমনকে খুনের ছক! কবুল ধৃত গ্যাংস্টারের ]

মোহালির এসএসপি কূলদীপ সিং চাহল জানিয়েছেন, সম্পত নেহেরার দলের সক্রিয় সদস্য ছিল দীনেশ কুমার। সাম্প্রতিকতম তিনটি অপরাধের সঙ্গে সে যুক্ত ছিল। তার মধ্যে রয়েছে মোহালি ও পাঁচকুলায় অপহরণ ও ডাকাতের মতো ঘটনাও।

এই সপ্তাহের গোড়ার দিকে সম্পত নেহেরাকে গ্রেপ্তার করে হরিয়ানা পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, নেহেরার বয়স ২৮ বছর। কিছুদিন আগে মুম্বইয়ে রেইকি করতে গিয়েছিল সে। পরিকল্পনা যাতে কোনওভাবে বানচাল না হয়, তার জন্য চেষ্টার কোনও কসুর করেনি। অভিনেতার বাড়ির ছবি তুলে সে নিয়ে আসে। আশপাশের রাস্তার পরিদর্শনও করে আসে। নিজের মোবাইল ফোনে গোটাটাই রেখে দেয় । বিষ্ণোইরা সলমন খানকে খুনের হুমকি দিয়েছিল। কৃষ্ণসার হত্যার জন্য সলমনের উপর রেগে ছিল তারা। তারই ফলশ্রুতি হিসেবে সলমনকে পৃথিবী থেকে সরিয়ে দেওয়ার কথা ভাবা হয় বলে মনে করছে পুলিশ। সম্পত নেহেরা একজন শার্প শুটার পাশাপাশি বিষ্ণোই সংগঠনের সদস্য।

গ্রেপ্তারির ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই আরমানের বিরুদ্ধে করা অভিযোগ প্রত্যাহার প্রেমিকার ]

৯ ও ১০ জুন দীনেশ এবং দলের অন্য সদস্যদের বিরুদ্ধে পাঁচকুলায় একটি গাড়ি চুরির অভিযোগ ওঠে। মোহালির গুজরাট আবাসিক এলাকা থেকে গান-পয়েন্টে ৬০ হাজার টাকা লুট করার অভিযোগও রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে। মোহালি তদন্ত সংস্থার ইনচার্জ ত্রিলোচন সিং বলেন, “গত ন’বছর দীনেশ সেনাবাহিনীতে কাজ করছে। কেন ছুটির মেয়াদ শেষ হওয়ার পরে  সে কাজে যোগ দেয়নি, তা নিয়ে আমরা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছি।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে