BREAKING NEWS

৫ মাঘ  ১৪২৮  বুধবার ১৯ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

গাড়ি আটকে গুলিবৃষ্টি, নাগা বিদ্রোহীদের হামলায় সপরিবারে মৃত্যু অরুণাচলের বিধায়কের

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: May 21, 2019 6:00 pm|    Updated: May 21, 2019 6:59 pm

Arunachal Pradesh: Sitting NNP MLA Tirong Aboh,10 others killed in attack

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অরুণাচল প্রদেশে নাগা বিদ্রোহীদের হামলার জেরে সপরিবারে প্রাণ হারালেন এনপিপি-এর বিধায়ক টিরং আবো। বিদ্রোহীদের গুলিবৃষ্টিতে মৃত্যু হয়েছে ১১ জনের। এই ঘটনার নেপথ্যে ন্যাশনাল সোশালিস্ট কাউন্সিল অফ নাগাল্যান্ড (খাপলাং গোষ্ঠী)-র হাত রয়েছে বলে মনে করছে পুলিশ। ঘটনাস্থলে নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে দুষ্কৃতীদের গুলির লড়াই হয় বলেও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গিয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার সকালে অসম থেকে নিজের বিধানসভা কেন্দ্র পশ্চিম খোনসাতে ফিরছিলেন টিরং আবো।  অরুণাচলের টিরাপ জেলার বোগাপানি গ্রামে তাঁর গাড়ির উপর হামলা চালায় নাগা বিদ্রোহীরা। বিধায়কের গাড়ি লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি গুলি ছুঁড়তে থাকে। এর জেরে পশ্চিম খোনসা বিধানসভার বিদায়ী বিধায়ক ও তাঁর ছেলে সহ আরও ১১ জনের মৃত্যু হয়। মৃতদের মধ্যে টিরং আবো-র পরিবারের সদস্যরা ছাড়া তাঁর দেহরক্ষীরাও রয়েছেন। এই ঘটনার পরেই ওই এলাকায় সিআরপিএফ মোতায়েন করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন- ভোটের শেষে আচমকা উধাও নমো টিভি, রাজনীতির অলিন্দে সমালোচনা]

এই খবর পাওয়ার পরেই ঘটনাটির তীব্র নিন্দা করেন মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী ও এনপিপি-র সভাপতি কনরাড কে সাংমা। টুইট করে জানান, “টিরং আবো-র পাশাপাশি তাঁর পরিবার ও দেহরক্ষীদের উপর নৃংশস হামলা চালানো হয়। এর জেরে তাঁদের মৃত্যু হয়। এই খবর শুনে এনপিপি-এর নেতা-কর্মীরা প্রচণ্ড আঘাত ও দুঃখ পেয়েছেন। আমরা এর তীব্র নিন্দা করার পাশাপাশি রাজনাথ সিং ও প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের দ্বারস্থ হচ্ছি। এই ঘটনার পিছনে যারা জড়িত আছে তাদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার দাবিও জানাচ্ছি।”

[আরও পড়ুন-বিরোধীদের দাবি উড়িয়ে কমিশনের প্রশংসায় পঞ্চমুখ প্রণব মুখোপাধ্যায়]

আগামী ২৩ মে লোকসভা নির্বাচনের ফলাফলের সঙ্গেই প্রকাশিত হবে অরুণাচল প্রদেশের বিধানসভা ভোটের রেজাল্ট। বিধানসভা নির্বাচনের পরেই খোনসা আসনে পুর্নর্নিবাচনের দাবি করেছিলেন সদ্য প্রয়াত টিরং আবো। তারপরই তাঁর উপর এভাবে নাগা বিদ্রোহীদের হামলার ঘটনায় প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

এপ্রসঙ্গে অরুণাচলের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কুমার ওয়াই বলেন, “হামলার ঘটনার তীব্র নিন্দা করছি আমি। এই ধরনের ঘটনা এরাজ্যে আগে কোনওদিন ঘটেনি। তাই তদন্ত করে অপরাধীদের খুঁজে বের করাটা খুবই জরুরি। রাজনৈতিক বিরোধিতার জন্যই হামলা চালানো হয়েছে।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে