BREAKING NEWS

৮ মাঘ  ১৪২৮  শনিবার ২২ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

বেধড়ক মারে চিতাবাঘকে খুনের পর মাংস দিয়ে পিকনিক, প্রতিবাদে সরব পশুপ্রেমীরা

Published by: Sayani Sen |    Posted: January 11, 2020 5:43 pm|    Updated: January 11, 2020 5:45 pm

Assam: Locals kill and eat leopard in Dibrugarh district

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: খাবারের খোঁজে গ্রামে ঢুকে পড়েছিল চিতাবাঘ। তা দেখে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছিলেন স্থানীয়রা। শুরু হয় অকথ্য অত্যাচার। কেউ লাঠি দিয়ে কিংবা ইট ছুঁড়ে চিতাবাঘের আনাগোনা রোখার চেষ্টা করে। বাধ্য হয়ে নদী পেরিয়ে চলে যাওয়ার চেষ্টা করে চিতাবাঘটি। তবে ‘ক্লান্ত’ চিতাবাঘকে নিজেদের হাতের নাগালে পাওয়ার পর সাধারণ মানুষ তাকে ছেড়ে দেয়নি। পরিবর্তে খুন করে ফেলা হয় চিতাবাঘটিকে। এখানেই নৃশংসতার শেষ নেই। এরপর ওই চিতাবাঘকে টুকরো টুকরো করে কেটে তার মাংস খেল অত্যাচারীরা। অসমের ডিব্রুগড়ের নৃশংসতার এই ভিডিও নিমেষে নেটদুনিয়ার সিংহভাগ স্থান দখল করে নেয়। যা দেখে শিউড়ে উঠছেন পশুপ্রেমীরা।

গত বৃহস্পতিবারের ঘটনা। ওইদিন অসমের ডিব্রুগড়ের দিল্লাবাড়ি গ্রামে ঢুকে পড়ে একটি চিতাবাঘ। স্থানীয়দের দাবি, ওই চিতাবাঘটি দিনকয়েক ধরে গ্রামে ঘোরাফেরা করছিল। কমপক্ষে পাঁচজনের উপর হামলাও চালায় চিতাবাঘটি। তাঁরা বর্তমানে স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এলাকাবাসীর অভিযোগ তা সত্ত্বেও চিতাবাঘকে ধরপাকড়ে কোনও ব্যবস্থা নেয়নি বনদপ্তর। তাই বাধ্য হয়ে নিজেদের উদ্যোগে গ্রামে খাঁচা পাতেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এই পরিস্থিতিতে চিতাবাঘটিকে নিজেদের হাতের নাগালে পেয়ে যান গ্রামবাসীরা। লাঠিসোঁটা নিয়ে চিতাবাঘকে বেধড়ক মারধর করেন স্থানীয়রা। তাতেই ক্লান্ত হয়ে যায় চিতাবাঘটি। নদী পেরিয়ে অন্যত্র চলে যাওয়ার চেষ্টা করে সে। তবে তাতেও রেহাই মেলেনি। যত পালানোর চেষ্টা করে ততই চিতাবাঘের উপর অত্যাচারের মাত্রা বাড়তে থাকে। লাঠিসোঁটার আঘাতে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে চিতাবাঘটি। কিছুক্ষণের মধ্যে ঘটনাস্থলে লুটিয়ে পড়ে সে। এখানেই অত্যাচারীদের নৃশংসতার শেষ হয়নি। এরপর টুকরো টুকরো করে কাটা হয় চিতাবাঘের দেহ। এদিকে, ততক্ষণে চা বাগানে পিকনিকের আয়োজন করা হয়। তাতে অংশ নেওয়া চা শ্রমিকরা ওই চিতাবাঘটির মাংস রান্না করে খায়।

‘সংসদ চাইলেই ছিনিয়ে নেব পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীর’, ফের হুমকি সেনাপ্রধানের

চিতাবাঘকে খুন করে মাংস খাওয়ার ঘটনা লোকমুখে চাউর হয়ে যায়। নৃশংস ঘটনার ভিডিওয় ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। বনদপ্তরেরও নজর এড়ায়নি চিতাবাঘের উপর হামলার ওই নৃশংসতা। কারা এই ঘটনায় জড়িত তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। খুব তাড়াতাড়ি অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করা হবে বলেই জানিয়েছেন বনদপ্তরের আধিকারিকরা।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে