BREAKING NEWS

১০ মাঘ  ১৪২৮  সোমবার ২৪ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

দুই রাজ্যের নির্বাচনী ফল: ত্রিশঙ্কু হরিয়ানা, মহারাষ্ট্রে ফিরছে বিজেপি

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: October 24, 2019 8:58 am|    Updated: October 24, 2019 5:34 pm

Assembly Election 2019 LIVE: BJP back in Maharashtra, Haryana will be hung

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মহারাষ্ট্র, হরিয়ানা – বিজেপি শাসিত দুই রাজ্যে পরবর্তী ৫ বছরের জন্য শাসনভার কার হাতে যাবে, সেদিকে নজর ছিল দেশবাসীর। গত ২১ তারিখ এই দু’রাজ্যে ভোটগ্রহণের পর আজ ফলাফল প্রকাশিত হল। মহারাষ্ট্রের ২৮৮টি আসনে ম্যাজিক ফিগার পেয়ে ফের সরকার গঠনের পথে বিজেপি-শিব সেনা জোট। সকালে ভোটগণনার  শুরু থেকেই তার ইঙ্গিত মিলেছিল। কংগ্রেসও প্রত্যাশার তুলনায় সেখানে ভাল ফল করেছে। তবে হরিয়ানায় বুথ ফেরত সমীক্ষা মিলল না। ম্যাজিক ফিগার থেকে বেশ খানিকটা দূরেই থমকে রইল বিজেপির রথ। মনোহরলাল খাট্টারের উপর চাপ বাড়িয়ে সরকার গঠনের মূল নিয়ন্ত্রক দুষ্মন্ত চৌটালার ১০ মাসের জননায়ক জনতা পার্টি। ত্রিশঙ্কুর পথে হরিয়ানা বিধানসভা।

বিকেল ৪.৫০: 

মহারাষ্ট্র বিধানসভার ফলাফল –

বিজেপি+শিব সেনা               কংগ্রেস+এনসিপি           অন্যান্য

    ১৫৬                                  ১০৪                        ২৮

বিকেল ৪.৪০: মহারাষ্ট্রের ওরলি কেন্দ্র থেকে জয়ী শিব সেনার আদিত্য ঠাকরে।

বিকেল ৪.৩১: 

হরিয়ানা বিধানসভার ফলাফল –

    বিজেপি           কংগ্রেস       জেজেপি     অন্যান্য            

      ৪০                   ৩০             ১০             ২০

বিকেল ৪.১৪: হরিয়ানার দাদরি কেন্দ্র থেকে হার বিজেপি প্রার্থী কুস্তিগির ববিতা ফোগাটের।

বিকেল ৪: জয় নিয়ে চূড়ান্ত আত্মবিশ্বাসী জেজেপি সুপ্রিমো দুষ্মন্ত চৌটালা। জয়ের শংসাপত্র হাতে পেয়ে পরবর্তী পদক্ষেপ নিয়ে ভাবনাচিন্তা করবেন, জানালেন তিনি।

দুপুর ৩.৩৮: মহারাষ্ট্রে কংগ্রেস-এনসিপি জোটের ফলাফল নিয়ে সন্তোষপ্রকাশ এনসিপি নেত্রী সুপ্রিয়া সুলের। ‘জনগণ ভরসা রেখেছেন, তাঁদের ধন্যবাদ’, মন্তব্য নেত্রীর।  

দুপুর ৩.১৫:  হরিয়ানার কর্নাল কেন্দ্র থেকে প্রায় ৪২,০০০ ভোটে এগিয়ে বিদায়ী মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খাট্টার।

দুপুর ৩.১১: মহারাষ্ট্রে  ম্যাজিক ফিগার পেয়ে জয়ের পথে এগোলেও, বিজেপির উপর চাপ বাড়াচ্ছে শিব সেনা। আদিত্য ঠাকরেকে মুখ্যমন্ত্রী করার দাবি আরও জোরদার হচ্ছে।  

দুপুর ৩: হরিয়ানায় ম্যাজিক ফিগার থেকে কয়েকটা সংখ্যা দূরে বিজেপি। অন্তিমত আসন সংখ্যা না কমলে, নির্দল প্রার্থীদের সঙ্গে নিয়ে সরকার গঠন করার সুযোগ হাতছাড়া করবে না গেরুয়া শিবির।

দুপুর ২.৪৭:  পদত্যাগের খবর উড়িয়ে দিলেন হরিয়ানার বিজেপি সভাপতি। তাঁর দাবি, ইস্তফা দেননি, গুজব রটেছে।

দুপুর ২. ৩৯: দুই রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল আশানুরূপ নয়, সমস্ত অনুষ্ঠান বাতিল করলেন অমিত শাহ। 

[আরও পড়ুন: কাশ্মীর থেকে কবে উঠবে নিষেধাজ্ঞা? কেন্দ্রের কাছে জবাব চাইল সুপ্রিম কোর্ট]

দুপুর ২.২০: মহারাষ্ট্রের বান্দ্রা পশ্চিম কেন্দ্র থেকে মুম্বইয়ের মেয়র, শিব সেনা প্রার্থীকে ৫৫৬৭ ভোটে পিছনে ফেলে দিলেন কংগ্রেস প্রার্থী জিশান সিদ্দিক।

দুপুর ২.১০: হরিয়ানায় ম্যাজিক ফিগার ছুঁতে না পেরে সরকার গঠনের জন্য নির্দলের উপর চাপ বাড়াচ্ছে বিজেপি। সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে অভিযোগ কংগ্রেস নেতা দীপেন্দর সিং হুডার।

দুপুর ২.০২: হরিয়ানার কৈথাল কেন্দ্র থেকে হার কংগ্রেস মুখপাত্র রণদীপ সিং সুরজেওয়ালার।

দুপুর ১.৫৫: মহারাষ্ট্রে সেঞ্চুরি কংগ্রেসের। ১০০ পেরিয়ে গেল হাত শিবিরের আসন সংখ্যা।  জিতলেও বিরোধী ভোটের বাড়বাড়ন্ত চাপে রাখছে বিজেপিকে।

দুপুর ১.৪৯:  বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফলের জেরে পদত্যাগ করলেন হরিয়ানার বিজেপি সভাপতি সুভাষ বারালা। তিনি নিজেও তোহানা কেন্দ্র থেকে ২০০০ ভোটে পিছিয়ে।

দুপুর ১. ৪০:  সাংবাদিক বৈঠকে এনসিপি সুপ্রিমো শরদ পওয়ার। বললেন, ‘জনরায়কে সম্মান জানাচ্ছে দল। বিজেপিকে মানুষ প্রত্যাখ্যান করছে।’

দুপুর ১.৩৫: হরিয়ানার বরোদা থেকে হার বিজেপির হেভিওয়েট প্রার্থী কুস্তিগির যোগেশ্বর দত্তের।

দুপুর ১.৩৩: মহারাষ্ট্রের পারলি কেন্দ্র থেকে পিছিয়ে প্রয়াত প্রাক্তন মন্ত্রী গোপীনাথ মুণ্ডের মেয়ে পঙ্কজা। এগিয়ে এনসিপি’র ধনঞ্জয় মুণ্ডে।

দুপুর ১.২৮:  হরিয়ানায় খাট্টার মন্ত্রিসভার অন্তত ৭ সদস্যে হারের পথে। বিদায়ী অর্থমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অভিমন্যু সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বলেন, ‘জেজেপির দিকে সমর্থন বাড়ছে। জনরায় আমরা মেনে নেব।’

দুপুর ১.১৩: মহারাষ্ট্রে কষ্টার্জিত জয়ের পথে এগোচ্ছে বিজেপি। ইতিমধ্যেই মুম্বইয়ে রাজ্য বিজেপি দপ্তরে কর্মী, সমর্থকদের উচ্ছ্বাস।

maharashtra-BJP-celebrates

দুপুর ১ : ম্যাজিক ফিগার থেকে ক্রমশ দূরে সরছে হরিয়ানা বিজেপি। বাড়ছে কংগ্রেসের আসন। সাংবাদিক সম্মেলন করে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী হুডা বিজেপি বিরোধী দলগুলিকে হাতে হাত মিলিয়ে সরকার গঠনের আবেদন জানালেন।

দুপুর ১২.৪৭: হরিয়ানার বরোদা কেন্দ্র থেকে পিছিয়ে বিজেপির আরেক তারকা প্রার্থী, কুস্তিগির যোগেশ্বর দত্ত। নির্বাচন কমিশন সূত্রে খবর, অন্তত ৩৬০০ ভোটে পিছিয়ে তিনি।

[আরও পড়ুন: হরিয়ানায় চাপে বিজেপি, খাট্টারকে জরুরি তলব অমিত শাহর]

দুপুর ১২.৪৫: হরিয়ানায় সরকার গঠনের মূল নিয়ন্ত্রক জেজেপি। দলের সুপ্রিমো দুষ্মন্ত চৌটালা নিজের অবস্থান স্পষ্ট করে জানিয়েছেন, যে দল তাঁকে মুখ্যমন্ত্রীর পদের প্রস্তাব দেবেন, তাকেই সমর্থন করবেন। 

দুপুর ১২. ৪০: হরিয়ানার ফলাফলে পুনরুজ্জীবিত কংগ্রেস শিবির। দিল্লি যেতে পারেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ভূপিন্দর সিং হুডা।

দুপুর ১২. ৩৫: মহারাষ্ট্রে ক্রমশই কমছে বিজেপির আসন সংখ্যা। ২০০ আসন অধরা থাকার ইঙ্গিত। কংগ্রেসের পাশাপাশি অন্যান্যদের ফলাফল বেশ ভাল। 

দুপুর ১২.২২: পিছিয়ে থেকেও লড়াইয়ে ফিরলেন হরিয়ানায় বিজেপির তারকা প্রার্থী ববিতা ফোগট। দাদরি কেন্দ্র থেকে  প্রায় ২৪০০ ভোটে এগিয়ে গেলেন তিনি।

দুপুর ১২.১৫: হরিয়ানার ফলাফলে কার্যত বিরক্ত বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি তথা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। বিদায়ী মুখ্যমন্ত্রী খাট্টারকে দিল্লিতে তলব।

দুপুর ১২.০৩: মহারাষ্ট্রে বিজেপি নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতার পথে হাঁটলেও, কংগ্রেসের আসন সংখ্যা চিন্তায় রাখছে ফড়ণবিসদের। সেঞ্চুরির পথে কংগ্রেস। 

বেলা ১১.৫৬ : হরিয়ানায় কংগ্রেসের ভাল ফলাফলের ইঙ্গিত পেতেই চাঙ্গা হয়ে উঠেছেন কর্মীরা। দিল্লিতে আহমেদ প্যাটেলের সঙ্গে দেখা করতে গেলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভানেত্রী কুমারী শৈলজা। 

[ আরও পড়ুন: মোড় ঘুরছে বিদেশনীতির! এবারও NAM সম্মেলনে থাকছেন না প্রধানমন্ত্রী]

বেলা ১১.৫১: মহারাষ্ট্রে শিব সেনার ফলাফলে আশা দেখছে ঠাকরে শিবির। উদ্ধব ঠাকরের সঙ্গে দেখা করলেন দলের মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত। যাওয়ার পথে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তাঁর বক্তব্য, ‘৫০-৫০ ফর্মুলায় এগোতে চাই। আমাদের আসন সংখ্যা তো কিছু কম হবে না।’

বেলা ১১.৪০: হরিয়ানায় ১১টি আসনে এগিয়ে জননায়ক জনতা পার্টি। ঝিন্দ থেকে দলনেতা চৌটালার এগিয়ে থাকার খবর পেয়েই উল্লাসে মাতলেন সমর্থকরা। 

JJP-celebration

বেলা ১১.২৮: নাগপুর দক্ষিণ-পশ্চিম কেন্দ্র থেকে প্রায় ৮৫০০ ভোটে এগিয়ে বিদায়ী মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়ণবিস। 

বেলা ১১.১০: মহারাষ্ট্রে বিজেপি সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেলেও, সেঞ্চুরির পথে কংগ্রেস। শিব সেনার তরফে আদিত্য ঠাকরেকে মুখ্যমন্ত্রী করার দাবি তোলা হতে পারে।

সকাল ১০.৫৫: বিজেপিকে চিন্তায় ফেলে হরিয়ানায় হু হু করে এগোচ্ছে কংগ্রেস। লড়াইয়ে গতি দিচ্ছে জেজেপি-সহ অন্যান্যরাও। তাদের দখলে যেতে চলেছে অন্তত ২০টি আসন। ম্যাজিক ফিগার ছোঁয়া কঠিন বিজেপির পক্ষে।

সকাল ১০. ৪০:  জননায়ক জনতা পার্টির নেতা দুষ্মন্ত চৌটালাকে ফোন কংগ্রেসের তরফে। বিজেপিকে হারাতে হাতে হাত মেলানোর প্রস্তাব। বদলে মুখ্যমন্ত্রীর পদ দাবি করেছেন চৌটালা।

সকাল ১০.২৩:  প্রথম কয়েক রাউন্ড গণনা শেষে হাওয়া ঘুরছে হরিয়ানায়। বিজেপি বিরোধী ফ্যাক্টর হতে চলেছে দুষ্মন্ত চৌটালার জননায়ক জনতা পার্টি। ভাল ফলাফলের দিকে কংগ্রেস। ইঙ্গিত বুঝে গণনাকেন্দ্র পরিদর্শনে গেলেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কংগ্রেসের ভূপিন্দর সিং হুডা।

Hooda-Rohtak

সকাল ১০.১৫: মহারাষ্ট্রে ১৮০ আসনে এগিয়ে বিজেপি। দ্বিতীয় রাউন্ড গণনা শেষে নাগপুর দক্ষিণ-পশ্চিম কেন্দ্র থেকে ভাল ভোটে এগিয়ে ফড়ণবিস। শোলাপুর সেন্ট্রাল থেকে পিছিয়ে কংগ্রেস প্রার্থী, প্রাক্তন মন্ত্রী সুশীল কুমার শিন্ডের মেয়ে। 

সকাল ৯. ৫৫: প্রথম রাউন্ড গণনা শেষে মহারাষ্ট্রের ওরলি কেন্দ্র থেকে ৭০২০ ভোটে এগিয়ে শিব সেনার তরুণ নেতা আদিত্য ঠাকরে।

সকাল ৯. ৪৭: হরিয়ানার দাদরি কেন্দ্র থেকে পিছিয়ে বিজেপির তারকা প্রার্থী কুস্তিগির ববিতা ফোগাট।

সকাল ৯.৪০: জয় নিয়ে আত্মবিশ্বাসী হরিয়ানার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ভূপিন্দর সিং হুডা। রোহতকে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তাঁর মন্তব্য, ‘কংগ্রেসের বহুমত প্রতিষ্ঠিত হতে চলেছে।’ 

সকাল ৯. ৩২:  হরিয়ানায় বিজেপি-কংগ্রেসের জোরদার লড়াই। মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী খাট্টার কর্নাল কেন্দ্র থেকে এগিয়ে থাকলেও, প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ভূপিন্দর সিং হুডা এবং কংগ্রেস মুখপাত্র রণদীপ সিং সুরজেওয়ালা এগিয়ে নিজেদের কেন্দ্রে। অন্যান্যরা এগিয়ে ১৪টি আসনে।

সকাল ৯.২৫: নির্বাচন কমিশনের তরফে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, বিজেপির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে লড়ছে এনসিপি, শিব সেনা। কংগ্রেস পিছিয়ে অনেকটাই। 

[ আরও পড়ুন: ঝাড়খণ্ডে বিজেপিতে যোগ ৬ বিরোধী বিধায়কের, ভোটের মুখে চাঙ্গা গেরুয়া শিবির]

সকাল ৯.১৭:  মহারাষ্ট্রে বিপুল ভোটে বিজেপির জয়ের রাস্তা আরও চওড়া। ১৮০ টি আসনে এগিয়ে বিজেপি। পাল্লা দিয়ে লড়ছে কংগ্রেস। প্রায় ৯০ আসনে এগিয়ে। 

সকাল ৯.০৫:  নাগপুর দক্ষিণ-পশ্চিম কেন্দ্র থেকে এগিয়ে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী দেবেন্দ্র ফড়ণবিস। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কংগ্রেসের পৃথ্বীরাজ চহ্বন এগিয়ে করাড কেন্দ্রে। শিব সেনা এগিয়ে ১১টি আসনে।  

সকাল ৮টা ৫৫: মহারাষ্ট্রের ১৬৫টি আসনে বড় ব্যবধানে এগিয়ে বিজেপি। কংগ্রেস এগিয়ে প্রায় ৬৬ আসনে। হরিয়ানায় ৫৫ আসনের দখল নিতে চলেছে বিজেপি, কংগ্রেসের দখলে যেতে পারে ২৫টি আসন। অন্যান্যরা এগিয়ে ৮ আসনে।

সকাল ৮.৫০:  হরিয়ানার কার্নাল কেন্দ্র থেকে এগিয়ে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী মনোহরলাল খাট্টার। মহারাষ্ট্রের ওরলি থেকে এগিয়ে শিবসেনার তরুণ নেতা আদিত্য ঠাকরে।এই প্রথম ভোটে লড়ছেন তিনি।  শরদ পাওয়ারের দল এনসিপি এগিয়ে ২ আসনে।

সকাল ৮.৪০:  হরিয়ানার জননায়ক জনতা পার্টির নেতা দুষ্মন্ত চৌটালা সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে দাবি করলেন, ‘বিজেপি, কংগ্রেস কেউই ৪০ আসন পেরবে না। সত্যের চাবি থাকবে জেজেএন-এর হাতেই।’

[ আরও পড়ুন: ৫০ দিন পর স্বস্তি, জামিন পেলেন কংগ্রেস নেতা ডি কে শিবকুমার]

সকাল ৮.৩০:  মহারাষ্ট্রের ২৮৮টি আসনের মধ্যে ৭০ আসনে এগিয়ে বিজেপি-শিব সেনা জোট। ২০ টি আসনে কংগ্রেস-এনসিপি জোট এগিয়ে। অন্যান্যরা এগিয়ে মাত্র ১টি আসনে। হরিয়ানার ২৫ আসনে বিজেপি এগিয়ে। কংগ্রেস এগিয়ে মাত্র ১০টি আসনে।

সকাল ৮.২০:  গণনা শুরুর প্রাথমিক স্তরে ইঙ্গিত, দু’ রাজ্যেই এগিয়ে বিজেপি। মহারাষ্ট্রে ম্যাজিক ফিগার ১৪৫, হরিয়ানায় ৪৬। মুম্বইয়ের গণনাকেন্দ্রগুলির বাইরে ভিড় জনতার।

সকাল ৮: মহারাষ্ট্র, হরিয়ানায় শুরু বিধানসভা ভোটের গণনা। পোস্টাল ব্যালট দিয়ে গণনা শুরু। মহারাষ্ট্র বিধানসভায় ২৮৮টি আসনে গণনা শুরু, হরিয়ানায় গণনা শুরু ৯০ টি আসনে। গণনাকেন্দ্রের বাইরে কড়া নিরাপত্তা। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা,কর্মীদের ভিড়। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে