BREAKING NEWS

১৫ মাঘ  ১৪২৮  শনিবার ২৯ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

বিরিয়ানি রান্নার অভিযোগে চার পড়ুয়াকে জরিমানা জেএনইউ-র

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: November 10, 2017 9:18 am|    Updated: September 25, 2019 1:58 pm

‘Beef Biryani’ row engulfs JNU again

ফাইল ছবি

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের একবার বিতর্কে দিল্লির জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়। এবার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক দপ্তরের সামনে বিরিয়ানি রান্না করা এবং খাওয়ার অভিযোগে শাস্তি দেওয়া হল চার পড়ুয়াকে। শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে ওই চারজনকে ৬ হাজার থেকে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা করা হয়েছে। অভিযুক্তরা হলেন, চিপল শেরপা, আমির মালিক, মনীশ কুমার এবং জেএনইউ-এর ছাত্র সংসদের সাধারণ সম্পাদক শতরূপা চক্রবর্তী।

[আপত্তিকর পোজে ঐশ্বর্যের ছবি, ফটোগ্রাফারকে কী করলেন অভিষেক?]

জানা গিয়েছে, গত ২৭ জুন ছাত্র সংসদের সভাপতি মোহিত কুমার পাণ্ডে এবং ছাত্র সংসদের সাধারণ সম্পাদক শতরূপা চক্রবর্তী পড়ুয়াদের জন্য বেশ কিছু দাবি নিয়ে উপার্চাযের ঘরে বিক্ষোভ দেখান। পরে তাঁরা প্রশাসনিক ভবনের সামনেই বিরিয়ানি রান্না করেন এবং খেতে থাকেন। উপাচার্যের ঘরে বিক্ষোভ দেখানো এবং প্রশাসনিক ভবনের সামনে এ ধরনের কাজ করার অপরাধেই তাঁদের বিরুদ্ধে শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগ আনা হয়েছে। আর সেকারণেই গত ৮ নভেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান প্রোক্টর কৌশল কুমার একটি নোটিস জারি করে শতরূপা চক্রবর্তীকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা এবং বাকি তিনজনকে ৬ হাজার টাকা জরিমানা করেন। পাশাপাশি ওই নোটিসে আগামী ১০ দিনের মধ্যে তাঁদের জরিমানার টাকাও জমা দিতে বলা হয়েছে। এখানেই শেষ নয়, ভবিষ্যতে এধরনের কাজ থেকে বিরত থাকার জন্য সাবধানও করা হয়েছে। এর মধ্যেই অবশ্য বিজেপির ছাত্র সংসদ এবিভিপি-র পক্ষ থেকে দাবি কার হয়েছে, অভিযুক্তরা বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে গরুর মাংস দিয়ে বিরিয়ানি রান্না করেছে। যদিও বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষর জারি করা নোটিসে গরুর মাংসের কথা উল্লেখ করা হয়নি।

[যে কোনও পরিস্থিতিতে ২০১৮-র মধ্যেই হবে রাম মন্দির, ঘোষণা VHP-র]

ওই নোটিসে বলা হয়, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রোক্টরিয়াল তদন্তে প্রশাসনিক দপ্তরের কাছে সিঁড়িতে বিরিয়ানি রান্না করা এবং অন্যান্য পড়ুয়াদের সঙ্গে সেটি খাওয়ার জন্য তোমাদের দোষী সাব্যস্ত করা হচ্ছে।’ ছাত্র সংসদের সাধারণ সম্পাদক শতরূপা চক্রবর্তী মতে, তাঁরা কোনও দোষ করেননি। বলেন, ‘জেএনইউ-র মতো রেসিডেন্সিয়াল ক্যাম্পাসে কে বিরিয়ানি রান্না করছে আর খাচ্ছে, সেটা দেখাটা নিশ্চয়ই প্রোক্টর অফিসের কাজ নয়। বহুদিন ধরেই এভাবে রান্না করা বা খাওয়া-দাওয়া হচ্ছে। এটাই এখানের সংস্কৃতি। গোটা দেশ থেকেই ছাত্র-ছাত্রীরা এখানে পড়তে আসে। এভাবেই নিজেদের মধ্যে সমন্বয় গড়ে তোলাটাই আমাদের মূল লক্ষ্য।’

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে