২৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১২ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১২ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একাধিক দাবি আদায়ে সপ্তাহখানেক ধরে বিকাশ ভবনের সামনে চলছে পার্শ্বশিক্ষকদের ধরনা, অনশন। তাতে যোগ দিয়ে বাড়ি ফিরে অসুস্থ হয়ে মৃত্যুর মুখে ঢলে পড়েছেন মেদিনীপুরের এক পার্শ্বশিক্ষিকা। ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত আরও এক পার্শ্বশিক্ষক। অসুস্থ আরও অনেকে। সময় যত গড়াচ্ছে, পার্শ্বশিক্ষকদের এই অনশন আন্দোলন নিয়ে রাজনৈতিক উত্তাপ ততই বাড়ছে। এবার
সেই ঢেউ আছড়ে পড়ল লোকসভাতেও। এই ইস্যুতে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ উগরে দিলেন হুগলির বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়।
সল্টলেকের বিকাশ ভবনের সামনে পার্শ্বশিক্ষকদের অনশনে গিয়ে একাধিকবার তাঁদের পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন বিজেপির প্রতিনিধিরা। বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষও একাধিকবার অনশনমঞ্চে গিয়ে দেখা করেছেন আন্দোলনকারীদের সঙ্গে। এবার দিল্লির দরবারে সেই সমস্যার কথা পৌঁছে দিতে লোকসভায় সরব হলেন লকেট চট্টোপাধ্যায়। শুক্রবার সংসদে বক্তব্য রাখতে গিয়ে এই প্রসঙ্গ উত্থাপন করেন
হুগলির বিজেপি সাংসদ। পার্শ্বশিক্ষকদের এমন কঠিন পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হয়েছে শুধুমাত্র রাজ্য সরকারের উদাসীনতার জন্য। এই অভিযোগ তুলে তৃণমূলের তীব্র সমালোচনা করেন। এমন অভিযোগও তোলেন যে প্রশাসনের উদাসীনতাই মেদিনীপুরের পার্শ্বশিক্ষিকা রেবতী রাউতকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিয়েছে। ওয়েলে নেমে বিক্ষোভও দেখান তাঁরা। স্পিকারের কাছে লিখিত আবেদনও জানানো হয়।লকেটের সঙ্গে একই ইস্যুতে সরব হন বারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিং।

[আরও পড়ুন: ‘রাজনীতির চাণক্যকে বোকা বানিয়েছেন শরদ পওয়ার’, নাম না করে অমিত শাহকে কটাক্ষ এনসিপির]

এখন রাজ্যের একটি অভ্যন্তরীণ বিষয়কে রাজনৈতিক ইস্যু করে তা সংসদ পর্যন্ত পৌঁছে দেওয়ার জন্য দুই সাংসদের বিরুদ্ধে স্বাধিকার ভঙ্গের নোটিস আনার কথা ভাবছে তৃণমূল। দলের সাংসদদের অভিযোগ, সংসদের অধিবেশনকে রাজনৈতিক মঞ্চ হিসেবে ব্যবহার করতে চাইছে বিজেপি। পার্শ্বশিক্ষক ইস্যুতে সংসদ বক্তব্য রাখা একজন সাংসদের পক্ষে খুব যথাযথ আচরণ বলে মনে করছেন না তাঁরা। একটি ঘটনাকে রাজনীতির রং দিয়ে তার ফায়দা তোলার চেষ্টা হচ্ছে বলেও অভিযোগ তুলেছেন সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, কাকলি ঘোষ দস্তিদার, সৌগত রায়রা। এনিয়ে স্পিকারকে চিঠি দিয়েছেন সংসদীয় দলনেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে লকেট, অর্জুন সিংয়ের বিরুদ্ধে তৃণমূল কী পদক্ষেপ নেবে, তা সংসদীয় কমিটি বৈঠকের মাধ্যমে ঠিক করবে।

শুনুন লকেটের বক্তব্য:

[আরও পড়ুন: ডিসেম্বরের শুরুতেই সংসদে নাগরিকত্ব বিল, তোড়জোড় শুরু করল সরকার]

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং