BREAKING NEWS

৩১ আশ্বিন  ১৪২৮  সোমবার ১৮ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ছত্তিশগড়ে প্রথম দফার ভোটে মাওবাদী হামলা, আহত ২ কোবরা জওয়ান

Published by: Shammi Ara Huda |    Posted: November 12, 2018 3:10 pm|    Updated: November 12, 2018 3:14 pm

Bijapur encounter: Two Cobra men injured

ছত্তিশগড়ে চলছে প্রথমদফার বিধানসভার ভোট।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভোটের দিনই ফের মাও হামলা ছত্তিশগড়ে। বিজাপুরে মাওবাদীদের সঙ্গে নিরাপত্তারক্ষীদের গুলির লড়াইয়ে দুই কোবরা জওয়ান আহত হয়েছেন। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে বেলা বারোটা বেজে ২০ মিনিট নাগাদ বিজাপুরে। ভোটে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তাবলয় নিশ্চিত করতে গোটা ছত্তিশগড় জুড়েই কোবরা বাহিনীর অভিযান চলছিল। স্পর্শকাতর এলাকায় তল্লাশি চালানোর সময়ই জওয়ানদের মুখোমুখি পড়ে যায় মাওবাদীরা। দু’পক্ষের মধ্যে গুলির লড়াইও শুরু হয়। এই সংঘর্ষেই মাওবাদীদের গুলিতে দুই জওয়ান গুরুতর আহত হন। তাঁদের তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এই সুযোগে মাওবাদীদের দলটি জঙ্গলে আত্মগোপন করে। ওই দলটির খোঁজে এখনও তল্লাশি চালাচ্ছে সেনা।

এদিনই ছত্তিশগড়ে বিধানসভা নির্বাচনের প্রথম দফার ভোটপর্ব শুরু হয়েছে। মাওবাদী হানা রুখতে যাবতীয় নিরাপত্তার বন্দোবস্ত থাকলেও বিস্ফোরণ এড়ানো গেল না। সকাল আটটার কিছু পরে দান্তেওয়াড়ার কটেকল্যাণে ভোটগ্রহণকেন্দ্রের দেড় কিমি দূরত্বে আইইডি বিস্ফোরণ ঘটায় মাওবাদীরা। তবে বিস্ফোরণের জেরে কোনও ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলে খবর। এদিন প্রথম দফার নির্বাচনে মোট ৮টি জেলায় ভোটগ্রহণ পর্ব চলছে। তার মধ্যে রয়েছে ১৮টি বিধানসভা কেন্দ্র। ভোটগ্রহণ কেন্দ্রগুলির বেশিরভাগই মাওবাদী অধ্যুষিত এলাকায় অবস্থিত। বলা বাহুল্য, ছত্তিশগড়ে বিধানসভার ভোট বয়কটের ডাক দিয়েছিল মাওবাদীরা। সেই ডাক যে ফাঁকা বুলি ছিল না, তার প্রমাণ এই আইইডি বিস্ফোরণ। তবে বিস্ফোরণ-সহ বিভিন্ন হুমকিকে উপেক্ষা করেই ছত্তিশগড়ে ভোটগ্রহণ চলছে। বস্তার, সুকমা, দান্তেওয়াড়া, কাঙ্কের, বিজাপুর, নারায়ণপুর, কোণ্ডাগাঁও, রাজনন্দগাঁও এই আটটি জেলায় চলছে ভোটগ্রহণ। ১০টি আসনে সকাল সাতটা থেকে শুরু হয়েছে ভোটগ্রহণ। বাকি আটটি আসনে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে আটটা থেকে। কোন্টার বান্দাতে একটি বুথের সামনে থেকে তিনটি আইইডি উদ্ধার হয়েছে। বেলা একটা পর্যন্ত ভোটদানের হার ২৫.১৫ শতাংশ ।

[অপসারিত অলোক ভার্মার বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে জমা পড়ল তদন্ত রিপোর্ট]

পাঞ্জাব পুলিশের কড়া নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হয়েছে দান্তেওয়াড়ার বুথগুলি। তবে নিরাপত্তা বলয় শক্তপোক্ত হলেও ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে তেমন লোকজন নেই। সকাল থেকেই বুথগুলিতে তেমন লাইন পড়েনি। ৩১২ জন ভোটার থাকলেও সকাল থেকে ৫০ শতাংশও ভোট পড়েনি দান্তেওয়াড়ার একটি বুথে। তবে ভোট যাই পড়ুক না কেন মুখ্যমন্ত্রী রমন সিংয়ের আশা এবারও জিতবেন তিনি। ছত্তিশগড়ে বিজেপি শাসিত সরকার যে উন্নয়নের ডালি সাজিয়ে দিয়েছে, তা জনগণ জানে। তাই ভোট দিয়ে ফের বিজেপিকেই ক্ষমতায় ফেরাবে। তবে রমন সিংয়ের এই দাবি এককথায় উড়িয়েছেন কংগ্রেসের প্রার্থী করুণা শুক্ল। তিনি বলেন, ‘৩৪ বছর বিজেপিতে থাকার পর সেই দল ছেড়ে কংগ্রেসে চলে এসেছি। বিজেপি এখন দুর্নীতির বাসা হয়েছে। অটলজির আদর্শ মানেননি রমন সিং। তার বড় প্রমাণ আমি নিজেই।’

[এবার এ রাজ্যের নাম বদলের প্রস্তাবও খতিয়ে দেখার সিদ্ধান্ত কেন্দ্রের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement