BREAKING NEWS

২ মাঘ  ১৪২৮  রবিবার ১৬ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

বিরাটের দেশপ্রেম নিয়ে খোঁচা দিয়ে দলেই ভর্ৎসনার মুখে বিজেপি নেতা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 20, 2017 6:39 am|    Updated: December 20, 2017 6:39 am

BJP condemns MLA’s 'unpatriotic' remark on Virat Kohli

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলির দেশপ্রেম নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন। উলটে নিজেই নিজের দলে প্রশ্নের মুখে পড়ে গেলেন। মধ্যপ্রদেশের বিজেপি বিধায়ক পান্নালাল শাক্যর মন্তব্য সামনে আসার পর গোটা দেশে হইচই। এবার তা নিয়েই ক্ষোভ উগরে দিলেন আর এক বিজেপি নেতা এস প্রকাশ।

বিরাটের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতার বিস্ফোরক অভিযোগ বিজেপি নেতার ]

কেন বিরাট ইটালিতে বিয়ে করেছেন? এই প্রশ্নই ছিল বিজেপি বিধায়কের। তাঁর দাবি, ভগবান রাম হোক বা কৃষ্ণ, সকলেই দেশের মাটিতে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হযেছেন। তাহলে বিরাটের কী এমন দরকার পড়ল যে তাঁকে ইটালিতে গিয়ে বিয়ে করতে হল? দেশে খেলেই তিনি অর্থ উপার্জন করেছেন। নাম-ধাম ও সম্মান পেয়েছেন। তাহলে দেশের মানুষ কি অচ্ছ্যুৎ যে তিনি দেশে বিবাহ করতে পারলেন না? তাঁর মত, এই কাজ যে করতে পারে সে আর যাই হোক দেশভক্ত নয়। একই অভিযোগে অনুষ্কা শর্মাকেও কাঠগড়ায় তোলেন এই নেতা। কিন্তু বিজেপি নেতার এহেন মন্তব্যে শোরগোল পড়ে গোটা দেশে। যাঁর উপর ভারতের ক্রিকেট দলের ভার, তাঁর দেশপ্রেম নিয়ে প্রশ্ন তোলা চাট্টিখানি কথা নয়। অভিযোগ গুরুতর। কিন্তু তার সারবত্তা নেই। স্বাভাবিকভাবেই বিরাট-অনুষ্কা এর কোনও জবাবও দেননি। কিন্তু প্রতিক্রিয়া এসেছে দলের অভ্যন্তরেই। বিজেপি নেতা এস প্রকাশ পান্নালালের মন্তব্য খারিজ করে জানিয়েছেন, “বিরাটের দেশপ্রেম নিয়ে প্রশ্ন তোলর কোনও মানে হয় না। তাঁদের যেখানে খুশি সেখানে বিয়ে করেছেন তাঁরা। এবং তাঁরা তা করতেই পারেন। এরকম অর্থহীন প্রশ্ন তুলে দলের ভাবমূর্তি নষ্ট করার কোনও অধিকার ওই বিধায়কের নেই।” দলের একাধিক নেতার তোপের মুখে পড়েন পান্নালাল। সাধারণত কোনও ইস্যুতে বিজেপি নেতারা কারও বিরুদ্ধে তোপ দাগলে, বাকি নেতারাও কমবেশি তাঁর পাশে এসে দাঁড়ান। কিন্তু এখানে জড়িয়ে বিরাট কোহলির নাম। সঙ্গে ক্রিকেট। তাই আবেগের মাত্রাও অন্যরকম। ফলে টুঁ শব্দ নেই বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্বের মুখে।

অন্যদিকে কংগ্রেসের অভিযোগ, গুজরাট নির্বাচনের ফলাফলে বিজেপির আত্মবিশ্বাসের ভিত টলে গিয়েছে। উন্নয়নের মডেল দিয়ে আর বাজিমাত করা যাচ্ছে না। তাই দেশপ্রেমের জিগির তোলার চেষ্টা। গুজরাট নির্বাচনের সময় এ কাজ করেছে পদ্মাবতী ইস্যু। এখন কোনও কিছু না পেয়ে খামোখা বিরাটকে টার্গেট করা হচ্ছে।

ঋতুমতী হলেই ভক্তের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক, ফের কাঠগড়ায় স্বঘোষিত ধর্মগুরু ]

এদিকে ২১ ডিসেম্বর বিরুষ্কার রিসেপশন। রোমে হানিমুন সেরে ইতিমধ্যেই দিল্লি এসে পৌঁছেছেন তাঁরা। ক্রীড়া ও বিনোদুনিয়ার নক্ষত্রের হাজির থাকার কথা এই হাই প্রোফাইল রিসেপশনে। বিয়ের সাজে, আভিজাত্যে নেটিজেনদের চমকে দিয়েছিলেন বিরাট-অনুষ্কা। এবার রিসেপশনে কী চমক থাকে তারই অপেক্ষায় ফ্যানরা।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে