BREAKING NEWS

০৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  রবিবার ২২ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মহারাষ্ট্রের পর ঝাড়খণ্ডেও ধাক্কা! জনমত সমীক্ষা চিন্তা বাড়াচ্ছে বিজেপির

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: November 28, 2019 3:16 pm|    Updated: November 29, 2019 10:16 pm

BJP heading for sub-par electoral performance in Jharkhand

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মহারাষ্ট্রে ধাক্কা খাওয়ার পর এবার ঝাড়খণ্ডেও চাপে পড়তে পারে বিজেপি। ঝাড়খণ্ডের আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতার অনেক আগেই থামতে হতে পারে গেরুয়া শিবিরকে। ফলে ঝাড়খণ্ডও হাতছাড়া হতে পারে গেরুয়া শিবিরের। সর্বভারতীয় সমীক্ষক সংস্থা সি-ভোটারের সমীক্ষা বলছে, ৮১ আসনের ঝাড়খণ্ড বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতার বেশ খানিকটা আগেই আটকে যাবে বিজেপি। অন্যদিকে, ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার নেতৃত্বাধীন বিরোধী জোট বিজেপিকে সমানে সমানে টক্কর দেবে।


উল্লেখ্য, ৮১ আসন বিশিষ্ঠ ঝাড়খণ্ড বিধানসভায় ম্যাজিক ফিগার ৪১। আপাতত ৪৭ আসন নিয়ে ক্ষমতায় আছে বিজেপি। কিন্তু, এবছর বিজেপির লড়াইটা বেশ কঠিন। মুখ্যমন্ত্রী রঘুবর দাসের বিরুদ্ধে প্রতিষ্ঠান বিরোধী শক্তি কাজ করছে। তাছাড়া, এবছর বিধানসভা নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে বিরোধী শিবির মহাজোট গঠন করেছে। যে মহাজোটে রয়েছে শিবু সোরেন তথা তাঁর পুত্র হেমন্ত সোরেনের ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা, কংগ্রেস এবং লালুপ্রসাদ যাদবের আরজেডি। কংগ্রেস লড়ছে ৩১টি আসনে। আরজেডি লড়ছে ৭ আসনে। বাকি আসনগুলি লড়ছে ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা। ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার নেতা হেমন্ত সোরেনকে সামনে রেখে লড়ছে জোট। বিজেপি আরও ধাক্কা খেয়েছে নিজেদের জোটসঙ্গী অল ঝাড়খণ্ড স্টু়ডেন্ট ইউনিয়নের কাছে। গেরুয়া শিবিরের দীর্ঘদিনের জোটসঙ্গী এবছর আসন সমঝোতায় সন্তুষ্ট না হওয়ায় আলাদা লড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। অন্যদিকে, ঝাড়খণ্ডে তৃতীয় শক্তি বাবুলাল মারান্ডির ঝাড়খণ্ড বিকাশ মোর্চা।

[আরও পড়ুন: রাজস্থানের পুর নির্বাচনে বড় জয় কংগ্রেসের, কার্যত সাফ বিজেপি]


সি-ভোটারের সমীক্ষা বলছে, বিজেপি এবারের নির্বাচনে ৩৩টি আসন জিততে পারে। অন্যদিকে, বিরোধী জোট পেতে পারে ৩০ আসন। ঝাড়খণ্ড বিকাশ মোর্চা এবং অল ঝাড়খণ্ড স্টুডেন্ট ইউনিয়ন পেতে পারে ৬টি করে আসন। ভোট শতাংশের হারেও লড়াই চলছে সেয়ানে সেয়ানে। ঝাড়খণ্ডে বিজেপি পেতে পারে ৩৩.৩ শতাংশ ভোট। জেএমএমের নেতৃত্বাধীন ইউপিএ পেতে পারে ৩১.২ শতাংশ ভোট। ঝাড়খণ্ড বিকাশ মোর্চা ৭.৭ শতাংশ। এজেএসইউ ৪.৬ শতাংশ ভোট পেতে পারে। সমীক্ষা বলছে ঝাড়খণ্ডের ৬০ শতাংশের বেশি মানুষ রঘুবর দাসকে আর মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে চাইছে না। এই সমীক্ষা সত্যি হলে তা বিজেপির জন্য চিন্তার বিষয় হতে পারে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে