×

৫ চৈত্র  ১৪২৫  বৃহস্পতিবার ২১ মার্চ ২০১৯   |   শুভ দোলযাত্রা।

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও #IPL12 ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সেনার ছবি নিয়ে রাজনীতি নয়। মুখে একথা বললেও, শাসক বিরোধী দুই শিবিরের তরফেই টুকটাক পুলওয়ামা এবং এয়ারস্ট্রাইকের রাজনৈতিক ফায়দা তোলার চেষ্টা চলছে। উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানের ছবি ব্যবহার করেও একাধিক জায়গায় রাজনৈতিক ফায়দা তোলার চেষ্টা করছে শাসক শিবির। কিন্তু এই কাজটি করতে গিয়েই বিপাকে পড়লেন এক বিজেপি বিধায়ক। নির্বাচন কমিশন নোটিস পাঠাল ওই বিধায়ককে।

[জাত দেখে প্রার্থী করুন, আজব দাবি বিজেপি সাংসদ সাক্ষী মহারাজের]

ভোটের প্রচারের জন্য উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানের ছবি ব্যবহার করেছিলেন বিজেপি বিধায়ক ওমপ্রকাশ শর্মা। ফেসবুকে তিনি একটি পোস্টার প্রকাশ করেন। ওই পোস্টারে তিনি লেখেন, “পাকিস্তান নতিস্বীকার করেছে, উইং কমান্ডার অভিনন্দন ফিরে এসেছেন। এটি নরেন্দ্র মোদির জয়, মোদির জন্যই আমরা এত দ্রুত অভিনন্দনকে ফিরিয়ে আনতে পেরেছি।” একাধিক পোস্টার তৈরি করেছেন ওই বিধায়ক। কোনও পোস্টারে নিজের ছবি, কোনও পোস্টারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ছবি। আবার কোনও কোনও পোস্টারে বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ’র ছবি  রয়েছে। বেশ কিছু হোর্ডিংও লাগান ওই বিধায়ক। এর ফলেই এবার বিপাকে পড়তে চলেছেন ওমপ্রকাশ শর্মা। নির্বাচন কমিশন ওমপ্রকাশ শর্মাকে নোটিস পাঠিয়েছে। ইতিমধ্যেই ফেসবুক থেকে ওই পোস্টারগুলি সরিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার মধ্যে তাঁকে নোটিসের জবাব দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তার পরই তাঁর বিরুদ্ধে পরবর্তী কি পদক্ষেপ করা হবে, তা ঠিক করা হবে।গত ১মার্চ ওই পোস্টারগুলি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেন তিনি। তারপর থেকেই এ নিয়ে বিতর্ক চলছিল।

[বাংলাকে অতি স্পর্শকাতর ঘোষণার দাবিতে নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ বিজেপি]

নির্বাচন কমিশন অবশ্য আগেই জানিয়েছেন, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের প্রচারে কোনও রাজনৈতিক দল সেনা বা সেনার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তির ছবি পোস্টারে, হোর্ডিংয়ে বা লিফলেটে ব্যবহার করতে পারবে না। নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, সেনাবাহিনী সীমান্তের রক্ষক৷ সেনাবাহিনী দেশের নিরাপত্তা ব্যবস্থার অভিভাবক। গণতান্ত্রিক দেশে সেনা অরাজনৈতিক এবং নিরপেক্ষ একটি প্রতিষ্ঠান৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং