BREAKING NEWS

১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ত্রিপুরায় মানিকবধ, মেঘালয়-নাগাল্যান্ডে সরকার গড়ার তোড়জোড় বিজেপির

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: March 3, 2018 7:52 pm|    Updated: September 14, 2019 4:16 pm

BJP wins Tripura, jostles to wrest Nagaland, Meghalaya

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ত্রিপুরায় গেরুয়া ঝড়। নাগাল্যান্ডে সমানে সমানে টক্কর। মেঘালয়ে ধাক্কা। উত্তর পূর্বাঞ্চলের তিন রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনে এই হচ্ছে বিজেপির সামগ্রিক উত্তরণ।

[গেরুয়া ঝড়ে বাম দুর্গ ধূলিসাৎ, ত্রিপুরায় মানিক-মিথ ভাঙল বিজেপি]

ফেব্রুয়ারির ১৮ তারিখ ত্রিপুরায় ভোটগ্রহণ হয়। ২৭ তারিখ ভোটদান করে মেঘালয় ও নাগাল্যান্ড। ৩ মার্চ বা শনিবার শুরু হয় ভোটগণনা। মেঘালয় নিয়ে সংশয় থাকলেও, ত্রিপুরায় যে ‘পরিবর্তন’ আসতে চলেছে তার আভাস আগেই পাওয়া গিয়েছিল। নাগাল্যান্ডেও বিজেপি-এনডিপিপি জোট সমানে টক্কর দেয় এনপিএফ দলকে। তবে গেরুয়া শিবির জোর ধাক্কা খায় মেঘালয়ে। ওই রাজ্যে একক সংখ্যাগরিষ্ঠ দল হিসেবে উঠে আসে কংগ্রেস। দিনের শেষে পরিসংখ্যান দাঁড়ায়-ত্রিপুরা ( মোট আসন-৬০, বিজেপি-৪৪, বাম-১৬, কং-০), মেঘালয় (মোট আসন-৬০, বিজেপি-২, কং-২১, এনপিপি-১৯, অন্যান্য-১৭), নাগাল্যান্ড ( মোট আসন-৬০, বিজেপি জোট-২৮, এনপিএফ-৩০, কং-০, অন্যান্য-২)।

ইতিহাস সৃষ্টি করে ত্রিপুরায় আড়াই দশকের বাম জমানায় ইতি টেনেছে গেরুয়া দল। নাগাল্যান্ড ও মেঘালয় দখলে রাখতে জটিল সমীকরণ চলছে বিজেপি শিবিরে। মেঘালয়ে গড় রক্ষা করতে উঠেপড়ে লেগেছে কংগ্রেসও। সব মিলিয়ে চলছে নেতাদের দৌড়ঝাঁপ। বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা কমল নাথ জানিয়েছেন, মেঘালয়ে সরকার গড়ার আবেদন জানাবে তাঁর দল। পালটা আসরে নেমেছেন বিজেপি নেতা তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কিরেন রিজিজু। তাঁর দাবি, নাগাল্যান্ডে জোট সরকার গড়বে বিজেপি। তিনি আরও জানান, এই বিষয়ে প্রধান বিরোধী দল ও এককালের শরিক এনপিএফ-এর সঙ্গে আলোচনা সেরে ফেলা হয়েছে। বিজেপিকে সমর্থন দিতে রাজি প্রাক্তন শরিক দল।

[রাজ্য সম্মেলনের আগে বামেদের পোস্টারেও প্রিয়া প্রকাশ]

তবে মানিক-মিথ ভাঙলেও মেঘালয়ে জোর ধাক্কা খেয়েছে পদ্ম শিবির। তাই জোট করে হলেও রাহুল গান্ধীর দলকে আটকাতে মরিয়া বিজেপি। একইভাবে ঘোড়া কেনা-বেচা নিয়ে আশঙ্কায় রয়েছে কংগ্রেস। দলের দুই শীর্ষ নেতা পৌঁছে গিয়েছেন শিলং। ত্রিশঙ্কু মেঘালয় বিধানসভায় কে সরকার গড়ে তা ঘিরে এখন থেকে টানটান উত্তেজনা। গণনার ট্রেন্ড বুঝে তড়িঘড়ি আগরতলা থেকে বিজেপি নেতা হিমন্ত বিশ্বশর্মাকে পাঠানো হয় শিলংয়ে। অসমের গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রী হিমন্ত উত্তর পূর্বের রাজনীতিতে চাণক্য হিসাবে পরিচিত। দল ভাঙানোর ক্ষেত্রে তাঁর জুড়ি পাওয়া ভার। হিমন্তের হাতযশে দ্বিতীয় দল হয়েও কংগ্রেস বিধায়কদের টেনে মণিপুরে সরকার গড়েছিল বিজেপি। গেরুয়া শিবিরের এই ছক ধরে ফেলে তৎপরতা দেখায় কংগ্রেসও। হাই কমান্ডের নির্দেশে পাহাড়ি রাজ্যে পাঠানো হয় দলের দুই শীর্ষ নেতা কমল নাথ ও আহমেদ প্যাটেলকে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে