BREAKING NEWS

১৯  আষাঢ়  ১৪২৯  সোমবার ৪ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘রাজপুত নয়, যোধাবাঈ ছিলেন পর্তুগিজ মহিলা’

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: April 3, 2017 10:29 am|    Updated: April 3, 2017 11:55 am

Book questions Rajput princess Jodhabai's origin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজপুত কন্যা যোধার সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন মুঘল সাম্রাজ্যের অন্যতম সম্রাট জালালউদ্দিন আকবর৷ রাজপুতদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে সাম্রাজ্য বিস্তারের জন্যই রাজপুত কন্যাকে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তিনি৷ স্কুল পড়ুয়ারা পাঠ্য বইয়ে এই ইতিহাসই পড়ে আসছে৷ কিন্তু গোয়ার এক লেখকের দাবিতে গোটা ইতিহাসই এখন প্রশ্নের মুখে৷ তিনি বলছেন, রাজপুত নয়, যোধাবাঈ আসলে ছিলেন এক পর্তুগিজ মহিলা৷

[মহিলা যাত্রীদের সুরক্ষায় এবার স্টিয়ারিংয়ে হাত মহিলাদেরই]

শুনে চমকে উঠতেই পারেন৷ কিন্তু লুই দে আসিস কোরিয়া তাঁর বইয়ে গোটা বিষয়টির ব্যাখ্যাও দিয়েছেন৷ পানাজিতে মুক্তি পেয়েছে তাঁর ১৭৩ পাতার বই ‘পর্তুগিজ ইন্ডিয়া অ্যান্ড মুঘল রিলেশনস ১৫১০-১৭৩৫৷’ সে বইতেই তিনি লিখেছেন, যোধাবাঈ রাজপুত কন্যা ছিলেন না৷ ইতিহাস এর ভুল ব্যাখ্যা দেয়৷ ইতিহাস যাঁকে যোধাবাঈ বলে চিহ্নিত করে তিনি আসলে ডোনা মারিয়া মাসকারেনাস৷ ১৫০০ শতকের মাঝামাঝি সময়ের ঘটনা৷ পর্তুগিজ জাহাজে চেপে আরব সাগর অতিক্রম করছিলেন৷ সঙ্গে ছিলেন বোন জুলিয়ানা৷ সেই সময় তাঁদের বন্দি বানিয়ে আকবরের দরবারে পুরস্কার হিসেবে হাজির করেছিলেন সুলতান বাহাদুর শাহ৷ আকবরের বয়স তখন ১৮৷ বিয়েও হয়ে গিয়েছে৷ কিন্তু ১৭ বছরের ডোনা মারিয়াকে দারুণ পছন্দ হয়ে গিয়েছিল তাঁর৷ তাই দু’জনকেই নিজের জিম্মায় রেখে দিয়েছিলেন মুঘল সম্রাট৷

[সিনেমা দেখেই গর্ভবতী, নাবালিকার দাবিতে বেকায়দায় সেন্সর বোর্ড]

লেখক জানাচ্ছেন, পর্তুগিজ তথা ক্যাথোলিক ধর্মাবলম্বীরা এই ইতিহাস কিছুতেই মেনে নিতে চায় না৷ পাশাপাশি মুসলিম সম্রাটের স্ত্রী একজন বিদেশি, এ সত্যও ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করেছিল মুঘলরা৷ সেই কারণেই যোধাবাঈ নামক ‘গল্প’টিকে মানুষের সামনে তুলে ধরা হয়৷ লুইয়ের আরও দাবি, এই কারণেই জাহাঙ্গিরের মায়ের পরিচয় নিয়ে ধন্দ রয়ে গিয়েছে৷ ইতিহাসে সেভাবে তাঁর মায়ের উল্লেখ পাওয়া যায়নি৷ আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিশেষজ্ঞ শিরিন মুসভির বক্তব্য টেনে তিনি বলেন, ‘আকবরনামা’তে যোধাবাঈয়ের কোনও উল্লেখ নেই৷ লেখা আছে, ভামালের কন্যার সঙ্গে আকবরের বিয়ে হয়েছিল৷ তবে তাঁর নাম যোধাবাঈ ছিল না৷ গোয়ার লেখকের এমন দাবিতে এখন রাজপুত রমণী যোধাবাঈয়ের অস্তিত্বই ঘোর সংকটে!

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে