১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

করোনা প্রতিরোধে ভারতের দ্বারস্থ কানাডা, ভ্যাকসিন চেয়ে মোদিকে ফোন প্রধানমন্ত্রী ট্রুডোর

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: February 11, 2021 8:58 am|    Updated: February 11, 2021 9:06 am

Canada PM Justin Trudeau calls PM Modi to ask for getting corona vaccine from India|SangbadPratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাংলাদেশ, ব্রাজিলের পর এবার ইউরোপের দেশ কানাডা। মহামারী করোনা ভাইরাস (Coronavirus) প্রতিরোধে ভ্যাকসিন হাতে পেতে ভারতের মুখাপেক্ষী হচ্ছে আরও অনেকেই। এবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে (PM Narendra Modi) ফোন করে ভারতের তৈরি করোনা টিকা পাওয়ার আবেদন জানালেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো (Justin Trudeau)। ভারত-কানাডার দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক অটুট রাখতে তাঁকে ভ্যাকসিন সরবরাহে সাহায্য করার আশ্বাসও দিয়েছেন মোদি। নিজেই টুইটে এ খবর জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

ট্রুডোকে ‘বন্ধু’ বলে সম্বোধন করে মোদি টুইটারে লেখেন, বুধবার কানাডার (Canada) প্রধানমন্ত্রীর ফোন পেয়ে খুশি হয়েছেন। কানাডার রাষ্ট্রপ্রধান ভারতের থেকে কোভিড ভ্যাকসিন নিতে চান বলে জানিয়েছেন। ভারতের প্রধানমন্ত্রীও তাঁকে আশ্বাস দিয়ে জানিয়েছেন, কানাডার প্রয়োজনমতো করোনা টিকা সরবরাহ করতে ভারতও যথাসাধ্য সাহায্য করবে। ইতিমধ্যেই বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশ ভারতের করোনা টিকা (Corona vaccine)পেতে আবেদন জানিয়েছে, তাও মোদি জানিয়েছেন ট্রুডোকে। করোনা প্রতিরোধে ভ্যাকসিন তৈরিতে ভারতের চিকিৎসাবিজ্ঞানীদের নিরলস পরিশ্রমের প্রশংসায় করে ট্রুডো এরপর জানান যে, করোনা যুদ্ধে ভারতের ভূমিকা এই মুহূর্তে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। দেশীয় প্রযুক্তিতে একাধিক টিকা তৈরির চেষ্টায় ভারতই সবচেয়ে এগিয়ে।

[আরও পড়ুন: দেবতার গ্রাস! মন্দির ভাঙার ফলেই উত্তরাখণ্ডে বিপর্যয়, বিশ্বাস স্থানীয়দের]

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি কানাডার সঙ্গে ভারতের সম্পর্কে খানিকটা ছায়া পড়েছিল। দিল্লির কৃষক আন্দোলন (Farmers’ Protest) সমর্থন করে বার্তা দিয়েছিলেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। তা মোটেই ভালভাবে নেয়নি দিল্লি। একাধিকবার কানাডার তরফে এ ধরনের বার্তা পেয়ে দিল্লিও সাফ জানিয়েছিল, এটা ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়। বাইরের রাষ্ট্রের এ বিষয়ে অতিরিক্ত মাথাব্যথা খুব একটা কাম্য নয়। কানাডায় প্রবাসী ভারতীয়দের সংখ্যা ভালই, বিশেষত শিখ সম্প্রদায়ের। দিল্লির কৃষক আন্দোলনের মূল চালিকাশক্তি পাঞ্জাব-হরিয়ানার শিখ চাষিরা। তাঁদের দিকে তাকিয়েই আন্দোলনকে ট্রুডো সমর্থন করেছেন বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। তাই তাঁর ওই বার্তা।

[আরও পড়ুন: সেনার অনুষ্ঠানে মাইক হাতে হিন্দি গান কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রীর! ভাইরাল ভিডিও]

সে যাই হোক, মোদি সরকারের কৃষি নীতি নিয়ে ‘বন্ধু’ ট্রুডো যতই সমালোচনা করুন, মহামারী প্রতিরোধে সাহায্য চাইলে ভারত ফেরাবে না। বুধবার ফোনালাপে ট্রুডোকে সেই বার্তা দিয়েছেন মোদি। ইতিমধ্যে ভারতের তৈরি ভ্যাকসিন পেয়ে টিকাকরণ পর্ব শুরু করেছে বাংলাদেশ। ব্রাজিলও আবেদন জানিয়েছে। এবার কানাডাও ভারতের ভ্যাকসিন পেতে আগ্রহ প্রকাশ করল।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে