BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

রোজ তাড়ি খেলেই সেরে যাবে ক্যানসার! আজব দাওয়াই তেলেঙ্গানার মন্ত্রীর

Published by: Paramita Paul |    Posted: September 2, 2020 3:19 pm|    Updated: September 2, 2020 3:24 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গোটা বিশ্ব ক্যানসারের ওষুধ খুঁজতে ব্যস্ত। কিন্তু সেই বিশল্যকরণীর হদিশ এখনও মেলেনি। তবে অবশ্য তাড়ি (Toddy) খেলে নাকি সেই মারণ রোগও সেরে যেতে পারে! শুধু কি তাই, তাড়ি পান করলে কিডনিতেও নাকি পাথর জমবে না! অন্তত এমনটাই দাবি করেছেন তেলেঙ্গানার (Telegana) এক মন্ত্রী। তাঁর সেই দাবি এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো ভাইরাল হয়েছে।

স্বাধীনতা সংগ্রামীর আবক্ষ মূর্তি উন্মোচনে গিয়ে জনগণের উদ্দেশে তাড়ি পানের উপকারিতা নিয়ে ভাষণ দেন আবগারি মন্ত্রী ভি শ্রীনিবাস গৌর (V Srinivas Goud)। তেলেঙ্গানার জনগাঁও জেলার রঘুনাথপল্লি ব্লকের মণ্ডলাগুদেম গ্রামে স্বাধীনতা আন্দোলনের যোদ্ধা সারওয়াই পাপান্নার মূর্তি উন্মোচনের অনুষ্ঠানে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানেই প্রকাশ্য মঞ্চ থেকে তিনি বলেন, ”তাড়ি এখন আর স্রেফ গরীব মানুষের পানীয় নয়। কারণ তাড়ির গুণাগুন সম্পর্কে সকলে জানতে পেরেছে।” কী গুনাগুন? মন্ত্রীর কথায়, “তাড়ি খেলে ক্যান্সার-সহ ১৫টি রোগে সেরে যেতে পারে। তবে তাড়ি পান করতে হবে নিয়মিত”।

[আরও পড়ুন : ‘মোদির তৈরি ৬ বিপর্যয়ের মাশুল দিতে হচ্ছে ভারতকে’, তালিকা তৈরি করলেন রাহুল]

তবে তেলেঙ্গানার আবগারি মন্ত্রীর তাড়ির প্রতি এই টান নতুন নয়। লকডাউনের সময় তাড়িকে বিকল্প হিসাবে বেছে নিতে পরামর্শ দিয়েছিলেন তিনি। তাঁর সেই বক্তব্য ঘিরে বিতর্কও তৈরি হয়েছিল। তেলেঙ্গানার আবগারি মন্ত্রী ভি শ্রীনিবাস গৌরের মুখে আবার শোনা গেল তাড়ির গুণগান। তেলেঙ্গানার আবগারি দপ্তর তাড়ি থেকে তৈরি মদ ‘নীরা’ বাজারে এনেছিল জুন মাসে। সেই মদের গুনাগুণ নিয়েও এর আগে গৌরা বলেছিলেন, “তাড়ি পান করলে কিডনিতে পাথর জমতে পারে না। এমনকী মধুমেহ, কোষ্ঠকাঠিন্য রয়েছে এমন রোগীদের নিয়মিত তাড়ি খাওয়া উচিত। তাড়িতে থাকা আয়রন ও পটাশিয়াম মানুষের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে পারে।” এবার তিনি আরও জানিয়েছেন, তেলেঙ্গানা সরকার গাছ থেকে তাড়ি সংগ্রহের পেশায় আরও বেশি সংখ্যক মানুষকে নিয়োগ করার ব্যাপারে ভাবনা-চিন্তা শুরু করেছে।

[আরও পড়ুন : মাত্র ৫ দিনে PM CARES-এ তিন হাজার কোটি অনুদান, কারা দিলেন টাকা? প্রশ্ন চিদম্বরমের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement