BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

অনুপ্রবেশ বন্ধ না করলে পাকিস্তানকে চূড়ান্ত শিক্ষা দেব, হুঁশিয়ারি রাওয়াতের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 15, 2018 7:29 am|    Updated: January 15, 2018 7:29 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘পাকিস্তান যদি জঙ্গিদের অনুপ্রবেশে মদত দেওয়া বন্ধ না করে, তাহলে আমাদেরও চূড়ান্ত পদক্ষেপ করতে হবে। শত্রুরা যেন আমাদের ধৈর্য্যের পরীক্ষা না নেয়।’ সোমবার নয়াদিল্লির ক্যারিয়াপ্পা প্যারেড গ্রাউন্ডে সেনা দিবসের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়ে সরাসরি ইসলামাবাদের নাম নিয়ে চড়া সুরে আক্রমণ শানালেন সেনাপ্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত। সেনা দিবস উপলক্ষ্যে আজ সেনাবাহিনীর সদস্য ও তাঁদের পরিবারের প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেছেন রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, তিন বাহিনীর প্রধানরা।

এদিন রাওয়াতের বক্তব্যেই স্পষ্ট, যুদ্ধবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে প্রায় প্রতিদিন হামলা চালানোয় পাকিস্তানের প্রতি তিতিবিরক্ত সেনা। এখনই চোরাগোপ্তা পথে হামলা বন্ধ না করলে পাকিস্তানের মাটিতে ঢুকে ফের সে দেশের সেনা ও জঙ্গিদের শিক্ষা দেওয়ার কথা ভাবছে ভারতীয় সেনা। রাওয়াতের এই মন্তব্য বা চড়া সুর অবশ্য নতুন নয়। অতীতেও তিনি বারবার পাকিস্তানকে সতর্ক করে এসেছেন। সোমবারও পাকিস্তান থেকে ভারতে অনুপ্রবেশকারী ৫-৬ জইশ জঙ্গিকে নিকেশ করেছে ভারতের সশস্ত্র সেনা। বানচাল হয়ে গিয়েছে উরিতে ফের হামলার বড়সড় ছক। শুধু সম্মুখ সমরে নয়, জম্মু ও কাশ্মীরে সোশ্যাল মিডিয়াকে ব্যবহার করে  স্থানীয় যুবাদের ব্রেনওয়াশ করছে পাকিস্তান, এই বলে আজ সতর্ক করেছেন জেনারেল রাওয়াত।

পাকিস্তান নিয়ে রাওয়াতের মন্তব্যকে হালকাভাবে নিচ্ছে না ইসলামাবাদও। সূত্রের খবর, পাক সরকার কূটনৈতিকভাবে জেনারেল রাওয়াতের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করতে পারে। দ্য নেশন বলে একটি পত্রিকা পাক বিদেশমন্ত্রককে উদ্ধৃত করে জানিয়েছে, রাওয়াতের মন্তব্য ভারত-পাক সম্পর্ককে আরও তলানিতে ঠেলে দেবে। সেবার জেনারেল রাওয়াত বলেছিলেন, পাকিস্তান পরমাণু অস্ত্রের জুজু দেখিয়ে ভারতকে রুখতে পারবে না। প্রয়োজন হলে ফের চালানো হবে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক। তাঁর এই মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করেন পাক বিদেশমন্ত্রী খোয়াজা আসিফ। তিনি পালটা হুঁশিয়ারি দেন, পাকিস্তানের ধৈর্য্যের পরীক্ষা নিতে চাইলে পরমাণু হামলা চালিয়েই তার প্রমাণ দেওয়া হবে। সবমিলিয়ে জেনারেল রাওয়াতের পাক-বিরোধী মন্তব্য নিয়ে ফের সরগরম হয়ে উঠলো দুই দেশের মধ্যে টানাপোড়েন।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement