BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

করোনা মোকাবিলায় তৎপর কেন্দ্র, ১৫ হাজার কোটি টাকার প্যাকেজ ঘোষণা

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: April 10, 2020 10:47 am|    Updated: April 10, 2020 10:47 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতে কিছুতেই থামছে না করোনা ভাইরাসের মৃত্যুমিছিল। মারণ রোগের প্রকোপে টালমাটাল দেশের অর্থনীতি। প্রবল চাপ পড়ছে স্বাস্থ্য ব্যবস্থায়। এহেন কঠিন সময়ে পরিস্থিতি সামাল দিতে ১৫ হাজার কোটি টাকার বিশেষ প্যাকেজ ঘোষণা করেছে কেন্দ্রের মোদি  সরকার।  

[আরও পড়ুন: করোনা রোধে বাংলাতেই এবার তৈরি হবে হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন! দায়িত্বে বেঙ্গল কেমিক্যালস]        

জানা গিয়েছে, রাজ্য এবং জাতীয় স্তরে স্বাস্থ্য পরিষেবার পরিকাঠামো আরও মজবুত করে তুলতে আগামী কয়েক বছর ধরে তিনটি পর্যায়ে এই টাকা খরচ করা হবে। এই বিশেষ প্যাকেজের গোটাটাই দেওয়া হবে দিল্লির রাজকোষ থেকে। বিশ্লেষকদের দাবি, করোনার মারে দেশের চিকিৎসা পরিকাঠামো যে কতটা দুর্বল তা জানা গিয়েছে। ফলে ভবিষ্যতে যে কোনও পরিস্থিতির মোকাবিলায় তৈরি থাকার জন্য ২০২০ থেকে শুরু করে মার্চ, ২০২৪ পর্যন্ত তিন ধাপে রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে অর্থ বরাদ্দ করা হবে। এই প্যাকেজের টাকায় করোনা আক্রান্তের চিকিৎসার জন্য বিশেষ হাসপাতাল গড়ে তোলা হবে। মজুত থাকা চিকিৎসা কেন্দ্রগুলিতে আইসিইউ ও অক্সিজেন সরবরাহের ব্যবস্থা উন্নত করা হবে। 

ন্যাশনাল হেলথ মিশন-এর ডিরেক্টরের স্বাক্ষরিত এক সার্কুলারে বলে হয়েছে, করোনা মহামারিকে মাথায় রেখে প্রস্তুতি ও পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্যাকজের টাকায় আবশ্যক চিকিৎসা সরঞ্জাম ও ওষুধ দ্রুত মজুত করা হবে। এছাড়াও, একাধিক গবেষণাগার ও জৈবিক সুরক্ষার বিশেষ ক্ষেত্র গঠন করা হবে। প্রথম পর্যায়ে সরকারি হাসপাতাল ও অ্যাম্বুল্যান্সগুলিকে স্যানিটাইজ করা হবে। পাশাপাশি, যথেষ্ঠ পরিমাণে পিপিই ও এন-৯৫ মাস্ক কেনা হবে। উল্লেখ্য, ভারতে এখনও পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬ হাজার ৪১২ জন।প্রাণ হারিয়েছেন ১৯৯ জন।

বিশ্লেষকদের মতে, ভারতের ইতিহাসে এপর্যন্ত সবচেয়ে বড় বিপর্যয় হিসেবে দেখা দিয়েছে করোনা মহামারি। আমরা যে কতটা অপ্রস্তুত, তা চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে এই ভাইরাস। পরিস্থিতে নিয়ন্ত্রণে অর্থের অভাবে রীতিমতো বেকায়দায় পড়েছে রাজ্যগুলি। সরকারি কর্মীদের বেতনে কাটছাঁট করেও কেন্দ্রের কাছে আর্থিক মদত চেয়ে আবেদন করেছে রাজ্য সরকারগুলি। সব মিলিয়ে পরিস্থিতি ক্রমেই বিপজ্জনক হয়ে উঠছে। 

[আরও পড়ুন: করোনা LIVE UPDATE: গত ১২ ঘণ্টায় দেশে ৩০ জনের মৃত্যু, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৯৯]                          

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement