৪ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

বিছানায় চেন দিয়ে বাঁধা মানসিক ভারসাম্যহীন বৃদ্ধকে খুবলে খেল চিতাবাঘ! মর্মান্তিক ঘটনা গুজরাটে

Published by: Biswadip Dey |    Posted: January 28, 2021 5:24 pm|    Updated: January 28, 2021 6:29 pm

Chained at Gujarat farm for attacking villagers, 75-year-old blind man killed, eaten by leopard | Sangbad Pratidin

প্রতীকী ছবি।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভোরের অন্ধকারে এক অন্ধ বৃদ্ধকে খুবলে খেল চিতাবাঘ (Leopard)! জানা গিয়েছে, ওই বৃদ্ধের মানসিক সমস্যা ছিল। তাই তাঁকে তাঁর খাটের সঙ্গে চেন দিয়ে বেঁধে রেখেছিল তাঁর আত্মীয়রা। কোনওভাবেই প্রতিরোধের সামান্য চেষ্টাও করতে পারেননি তিনি। মর্মান্তিক এই ঘটনা ঘটেছে গুজরাটের (Gujarat) গির অরণ্য সংলগ্ন ডালখানিয়া রেঞ্জের এক খামারে। 

ঠিক কী হয়েছিল? ৭৫ বছরের ওই বৃদ্ধের নাম মনু সাভালিয়া। তিনি গুজরাটের অমৃতপুর গ্রামের বাসিন্দা। জন্মান্ধ মনু মানসিক সমস্যার জন্য আক্রমণাত্মক হয়ে উঠতেন মাঝে মাঝেই। কামড়ে দিতেন গ্রামবাসীদের। এছাড়াও একবার চোখে দেখতে না পাওয়ার কারণে কুয়োয় পড়ে গিয়েছিলেন। সেই কারণেই তাঁর পরিবারের সদস্যরা তাঁকে খাটের সঙ্গে বেঁধে রেখেছিলেন। বাড়ির সবাই সুরাটে এক বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে গিয়েছিলেন। তাই মনুর দায়িত্ব ছিল এক আত্মীয় ও এক কাজের লোকের উপরে। বুধবার ভোরে তাঁরা দু’জনেই সেচের জন্য জল দিতে গিয়েছিলেন খেতে। ফলে খামারের ভিতরে একাই ছিলেন মনু। আর তখনই সেখানে হানা দেয় চিতাবাঘ।

[আরও পড়ুন: হাত ধরা বা প্যান্টের চেন খোলা পকসো আইনে যৌন নির্যাতন নয়! নয়া রায় বম্বে হাই কোর্টর]

পরে মনুর বাড়ির লোক এসে আবিষ্কার করেন তাঁর ক্ষতবিক্ষত মৃতদেহ। দেখা যায়, চিতাবাঘ তাঁর শরীরের অনেকটাই খুবলে খেয়ে নিয়েছে। এমন মর্মান্তিক মৃত্যু মানতে পারছেন না তাঁর আত্মীয় ও প্রতিবেশীরা। এক প্রতিবেশীর কথায়, ”সাভালিয়ার মানসিক সমস্যা ছিল। সেই কারণে উনি লোককে কামড়েও দিতেন। কিন্তু শারীরিক ভাবে উনি খুবই শক্তিশালী ছিলেন। অনায়াসেই খালি হাতে দু’-তিনজনের মহড়া নিতে পারতেন। ওঁর হাতটা যদি খোলা থাকত, উনি চিতাবাঘটাকে ঠিকই হারিয়ে দিতেন।”

দুর্ঘটনাজনিত মৃত্যুর মামলা রুজু করেছে পুলিশ। বৃদ্ধের মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। যদি রিপোর্টে প্রমাণিত হয়, তাঁকে চেন দিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছিল তাহলে যারা একাজ করেছে তাদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধি অনুযায়ী মামলা দায়ের করা হবে বলে জানিয়েছেন একজন সিনিয়র পুলিশ অফিসার। এদিকে চিতাবাঘটি নরখাদক হয়ে ওঠায় সতর্ক বন দপ্তর। এক বন আধিকারিক জানিয়েছেন, সেটিকে ধরতে ফাঁদ পাতা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ফাঁসি হোক লালকেল্লার ঘটনায় জড়িত কৃষক নেতাদের, অমিত শাহকে চিঠি বিজেপি বিধায়কের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে