BREAKING NEWS

০৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

রাস্তা খুঁড়তে গিয়ে প্রাচীন স্বর্ণমুদ্রা কুড়িয়ে পেলেন নির্মাণ শ্রমিক

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 14, 2018 3:44 pm|    Updated: July 14, 2018 3:44 pm

Chhattisgarh: 12th century gold coins found during road construction

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ঠিক যেন রূপকথার গল্প৷ রাস্তা খুঁড়তে গিয়ে বেরিয়ে এল গুপ্তধন! খবর রটতেই তোলপাড় ছত্তিসগড়ের কাদাগাও জেলার কর্কোটি ও বেডমা গ্রাম৷ হিমশিম পরিস্থিতি৷ শনিবার সকালে রাস্তা সংস্কারের কাজ করতে গিয়ে দ্বাদশ শতকের প্রায় কয়েক কোটি টাকার প্রাচীন মুদ্রা কুড়িয়ে পান এক শ্রমিক৷ একটি পাত্রের মধ্যে এদিন ৫৭টি সোনা ও একটি রুপোর কয়েন উদ্ধার হয়৷

[টুইটারে তিন লক্ষ ফলোয়ার্স খোয়ালেন নরেন্দ্র মোদি, জানেন কেন?]

মাটি খুঁড়ে প্রাচীন মুদ্রা উদ্ধারের ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়৷ উৎসাহী জনতারও ভিড় বাড়তে থাকে৷ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ঘটনাস্থলে যায় বিশাল পুলিশবাহিনী৷ খবর দেওয়া হয়, প্রত্মতাত্ত্বিকদের৷ মুদ্রাগুলির পরীক্ষা জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাও নেওয়া হয়েছে৷

[বিজয় মালিয়ার মতো স্মার্ট হও, আদিবাসীদের বার্তা কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর]

আর পাঁচটা দিনের মতো এদিনও কাজে বেরিয়েছিলেন বেডমা গ্রামের এক শ্রমিক৷ সরকারি প্রকল্পের মাধ্যমে রাস্তা সংস্কারের কাজ শুরু হতে না হতেই এক অদ্ভুত ঘটনার মুখোমুখি হন ওই শ্রমিক৷ রাস্তা খুঁড়তে গিয়ে একটি মাটির পাত্র দেখতে পান তিনি৷ মাটি থেকে পাত্র তুলতেই ঘটে বিপত্তি৷ উদ্ধার হয় দ্বাদশ শতকের সোনা ও রূপা সহ ৫৭টি মুদ্রা৷ এদিনে এই ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান জেলাশাসক নীলকণ্ঠ টেকাম৷ গোটা বিষয়টি পর্যবেক্ষণের পর এদিন সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে জেলাশাসক বলেন, ‘‘প্রাথমিকভাবে মুদ্রাগুলি সোনা ও রূপা ধাতুর বলে মনে করা হচ্ছে৷ কর্কোটি ও বেডমা গ্রামের মধ্যে একটি রাস্তা নির্মাণ সংস্কারের সময় ৫৭টি সোনার কয়েন ও একটি রূপার মুদ্রা এবং একটি সোনার কানের দুল পাওয়া গিয়েছে৷ মুদ্রাগুলি পরীক্ষা জন্য আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করেছি৷ পরীক্ষার পরই বোঝা যাবে, মুদ্রাগুলির ঐতিহাসিক গুরুত্ব কী?’’

[‘হিন্দু পাকিস্তান’ মন্তব্যের জের, থারুরের বিরুদ্ধে সমন জারি কলকাতার আদালতের  ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে