BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

তাজিয়া নিয়ে শোভাযাত্রাকে ঘিরে রণক্ষেত্র এলাকা, আহত পুলিশকর্মী-সহ ৩০

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: October 2, 2017 4:38 am|    Updated: October 2, 2017 4:44 am

Communal clashes in Bihar, UP on Muharram, over 30 injured

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তাজিয়া শোভাযাত্রাকে ঘিরে রণক্ষেত্র কানপুরের পরম পুরওয়া এলাকা। পুলিশের অনুমতি ছাড়াই একটি অন্য পথে তাজিয়া নিয়ে শোভাযাত্রা করতে গেলে বিশৃঙ্খলার সূত্রপাত। পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষে আহত হয়েছেন অন্তত ৩০ জন। যার মধ্যে পাঁচ পুলিশকর্মীও রয়েছেন। সূত্রের খবর, অশান্তি চলাকালীন দুই গোষ্ঠীর সদস্যরা একে অপরের দিকে পাথর ও গুলি ছোড়ে। পরিস্থিতি এখনও স্বাভাবিক হয়নি বলেই খবর সংবাদ সংস্থা পিটিআইয়ের।

[গরবা দেখার ‘অপরাধ’, মোদির রাজ্যে পিটিয়ে মারা হল দলিতকে]

পিটিআইয়ের খবর অনুযায়ী, ঝান্ডেলওয়ালা ক্রসিং থেকে তাজিয়া শোভাযাত্রার ইউ-টার্ন নেওয়ার কথা ছিল। কারণ, রাস্তার আর এক দিকে দুর্গাপুজোর প্রতিমা বিসর্জনের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছিল। কিন্তু একটি নির্দিষ্ট সম্প্রদায়ের সদস্যরা সেই পথেই তাজিয়া নিয়ে মিছিল করতে যায়। পুলিশ বাধা দিলে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে তাঁদের সংঘর্ষ বাধে। মুহূর্তের মধ্যে পরিস্থিতি অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে। দুই গোষ্ঠীর সদস্যরা একে অপরকে লক্ষ্য করে ইটবৃষ্টি শুরু করে। এই সুযোগে দুষ্কৃতীরা পুলিশের একটি গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়। হামলা চালানো হয় পুলিশের একটি আউটপোস্টেও। স্থানীয় এলাকায় অন্তত পাঁচটি দু’চাকার গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয় বিক্ষোভকারীরা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশকে কাঁদানে গ্যাসের শেল ফাটাতে হয়। দুষ্কৃতীরা পালটা পুলিশের বিরুদ্ধে ইট ও পাথর নিয়ে হামলা চালায়।


রাওয়াতপুর থেকেও সংঘর্ষের খবর পাওয়া গিয়েছে। শনিবার রাতে তাজিয়া নিয়ে শোভাযাত্রার অনুমতি না দেওয়ায় এলাকা অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে। পুলিশ মধ্যস্থতার চেষ্টা করলে স্থানীয় মন্দির থেকে পুলিশকে লক্ষ্য করে পাথর ছোড়া হয় বলে অভিযোগ। পরম পুরওয়ায় দুষ্কৃতীদের পাথরের আঘাতে এসপি (সাউথ) অশোক ভার্মা ও চার পুলিশকর্মী আহত হয়েছেন। অন্যদিকে, রাওয়াতপুরে পাথরের আঘাতে মাথা ফেটেছে এসপি(ওয়েস্ট) গৌরব গ্রোভারের। দুষ্কৃতীদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশকে শূন্যে গুলি চালাতে হয়। এডিজি(আইনশৃঙ্খলা) আনন্দ কুমার জানিয়েছেন, এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশকর্মী মোতায়েন করা হয়েছে। দুই কোম্পানি প্রভিন্সিয়াল আর্মড কনস্ট্যাবুলারি (PAC) ও এক কোম্পানি র‍্যাপিড অ্যাকশন ফোর্স (RAF) কানপুরে পৌঁছেছে। ঘটনায় জড়িত সন্দেহে বেশ কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে। এসএসপি সোনিয়া সিং জানিয়েছেন, ভিডিও ফুটেজ দেখে দুষ্কৃতীদের চিহ্নিত করার প্রক্রিয়া চলছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা গ্রহণ করার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি। পুলিশ সূত্রে খবর, উত্তরপ্রদেশ ছাড়াও বিহার ও ঝাড়খন্ড থেকেও অশান্তির খবর পাওয়া গিয়েছে।

দেখুন ভিডিও:

[গডসে ছাড়াও গান্ধী হত্যায় কি অন্য কেউ জড়িত? তদন্তের দাবিতে মামলা]

(এই ভিডিওর সত্যতা যাচাই করেনি সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল)

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে