BREAKING NEWS

২৬ বৈশাখ  ১৪২৮  সোমবার ১০ মে ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বৈদ্যনাথের মন্দিরে গিয়ে পুজো কংগ্রেসের সংখ্যালঘু বিধায়কের, গ্রেপ্তারির দাবি বিজেপির

Published by: Biswadip Dey |    Posted: April 15, 2021 1:42 pm|    Updated: April 15, 2021 1:42 pm

Jharkhand

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ঝাড়খণ্ডের (Jharkhand) কংগ্রেস (Congress) বিধায়ক ইরফান আনসারির (Irfan Ansari) শিবমন্দিরে পুজো দেওয়াকে কেন্দ্র করে বিতর্ক ঘনাল। তাঁর গ্রেপ্তারির দাবি তুললেন বিজেপি সাংসদ নিশিকান্ত দুবে। কয়েকদিন আগেই ঝাড়খণ্ডের গোড্ডা রেলস্টেশনের উদ্বোধন কে করবে তা নিয়েও বিতর্কে জড়িয়েছিলেন দুই নেতা। এবার মন্দিরে প্রবেশ করা নিয়ে তৈরি হল নতুন বিতর্ক।

ঠিক কী হয়েছিল? বৈদ্যনাথ ধামের শিব বিগ্রহ সবচেয়ে বিখ্যাত। গত বুধবার দেওঘরের সেই বৈদ্যনাথ ধামেই পুজো দিতে যান ইরফান। যার প্রতিবাদ করেন নিশিকান্ত। তাঁর দাবি, ওই মন্দিরে কোনও মুসলিমের প্রবেশ নিষিদ্ধ। ইরফান সেখানে পুজো দিয়ে গর্হিত কাজ করে ফেলেছেন। তাঁকে অবিলম্বে গ্রেপ্তার করতে হবে।
আনসারি নিশিকান্তের এমন দাবির তীব্র প্রতিবাদ করেছেন। তাঁর কথায়, ”নির্বাচন এলেই আমি ভোলেবাবার আশীর্বাদ নিতে যাই। এবং ভোটে জিতি। নিশিকান্ত কে আমাকে বাবার থেকে দূরে সরিয়ে রাখার?” এর উত্তরে নিশিকান্তের অভিযোগ, ”কোনও অহিন্দু আজ পর্যন্ত ওই মন্দিরে প্রবেশ করেনি। ঠিক যেমন মক্কার কাবায় অমুসলিমদের প্রবেশ নিষেধ। সেই ভাবেই বাবার মন্দিরে অহিন্দুর প্রবেশ নিষিদ্ধ।”

[আরও পড়ুন:  যোগীরাজ্যে হচ্ছেটা কী! প্রথম ডোজে কোভ্যাক্সিন পাওয়া ব্যক্তি দ্বিতীয়বার পেলেন কোভিশিল্ড!]

কয়েকদিন আগেই ওই দুই নেতা বিতর্কে জড়িয়েছিলেন গোড্ডা স্টেশনের উদ্বোধন নিয়ে। টুইটারে বাকযুদ্ধ শুরু হয় তাঁদের। ওই স্টেশনটির ভারচুয়াল উদ্বোধন করার সিদ্ধান্ত নেয় হেমন্ত সোরেন সরকার। কিন্তু এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেন নিশিকান্ত। তিনি ব্যঙ্গ করে টুইটারে লেখেন, রেলস্টেশনের ক্ষেত্রেই কোভিডের ঝুঁকি থাকে। অথচ রাজনৈতিক মিটিং-মিছিল উপলক্ষে যখন বড় জমায়েত হয় তখন এসব ঝুঁকি থাকে না।
এর পালটা ইরফান আনসারি টুইট করে তাঁকে আক্রমণ করে লেখেন, ওই রেলস্টেশন নিয়ে বড় বড় দাবি করে লাভ নেই। এর উদ্বোধন করবেন হেমন্ত সোরেন।

[আরও পড়ুন : দেশে প্রথমবার দৈনিক করোনা আক্রান্ত ২ লক্ষ, অ্যাকটিভ কেস বাড়ল লক্ষাধিক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement