BREAKING NEWS

২  ভাদ্র  ১৪২৯  বুধবার ১৭ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

পাঁচ রাজ্যের ফল ঘোষণার পর বিধায়ক কিনতে পারে বিজেপি, আগেভাগে ‘স্ট্র্যাটেজি’ তৈরি কংগ্রেসের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: March 1, 2022 7:11 pm|    Updated: March 1, 2022 7:11 pm

Congress strategy to counter BJP after state Election results | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আগামী ১০ মার্চ উত্তরপ্রদেশ-সহ পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের ফলপ্রকাশ। ২০১৭ সালে এই পাঁচ রাজ্যের মধ্যে তিনটিতে একক বৃহত্তম দল হিসাবে উঠে এসেছিল কংগ্রেস (Congress)। কিন্তু সরকার গড়তে পেরেছিল শুধু পাঞ্জাবে। একক বৃহত্তম দল হওয়া সত্ত্বেও নেতৃত্বের ব্যর্থতায় গোয়া (Goa Elections 2022) এবং মণিপুরে সরকার গড়ে উঠতে পারেনি হাত শিবির। এবারে সেই ব্যর্থতার পুনরাবৃত্তি রুখতে মরিয়া কংগ্রেস। ইতিমধ্যেই ফলপ্রকাশের পরবর্তী স্ট্র্যাটেজি ঠিক করে ফেলেছে হাত শিবির।

Congress strategy to counter BJP after state Election results

সম্প্রতি নয়াদিল্লিতে পাঁচ রাজ্যের ফলাফল নিয়ে বৈঠকে বসেছিলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী (Priyanka Gandhi), রাহুল গান্ধী, কে সি বেণুগোপাল-সহ শীর্ষ কংগ্রেস নেতারা। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন কংগ্রেস শাসিত দুই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরাও। সেখানেই ঠিক হয়ে গিয়েছে, ভোটের ফল প্রকাশের পর কংগ্রেসের জয়ী বিধায়কদের পাঠিয়ে দেওয়া হবে রাজস্থান এবং ছত্তিশগড়ে। কংগ্রেস সবচেয়ে বেশি চিন্তিত গোয়া এবং মণিপুর (Manipur Election 2022) নিয়ে। কারণ, এই দুই রাজ্যেই হাত শিবির আগেরবার সরকার গড়ার খুব কাছাকাছি গিয়েও ক্ষমতা হাতছাড়া করেছে। তাছাড়া, এই রাজ্যগুলিতে বিধায়ক কেনাবেচার প্রবণতাও বেশি।

[আরও পড়ুন: Russia-Ukraine Conflict: ইউক্রেন ইস্যুতে রাষ্ট্রসংঘে কেন রাশিয়ার পাশে দাঁড়াল ভারত?]

শোনা যাচ্ছে, কংগ্রেস ঠিক করে ফেলেছে মণিপুরের জয়ী বিধায়কদের ফলাফলের দিনই ছত্তিশগড়ে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। কংগ্রেসের ধারণা মণিপুরে এবারে বিজেপি (BJP) সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে না। সেক্ষেত্রে ভোটের পর কনরাড সাংমার এনপিপির সঙ্গে জোট বেঁধে সরকার গড়া যেতে পারে। গোয়াতেও একক বৃহত্তম দল হওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী হাত শিবির। কিন্তু সেখানেই একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়া নিয়ে নিশ্চিত নন তাঁরা। গোয়ায় আগেরবারের অভিজ্ঞতা মোটেই ভাল নয়। তাই গোয়ার বিধায়কদের আরও ‘নিরাপদ’ রাজস্থানে সরানো হতে পারে।

[আরও পড়ুন: মাত্রাছাড়া রুশ সমর্থনের মাশুল গুনতে হবে, বেলারুশকে হুঁশিয়ারি আমেরিকার]

উত্তরাখণ্ডের ফলাফল যদি টানটান হয়, তাহলে উত্তরাখণ্ডের (Uttarakhand Election 2022) ক্ষেত্রেও বিধায়কদের সরানো হতে পারে রাজস্থানে। পাঞ্জাব এবং উত্তরপ্রদেশ নিয়ে সিদ্ধান্ত ফলাফলের পরে নেওয়া হবে। পাঞ্জাবে কংগ্রেসই ছিল শাসক। সেরাজ্যে বিজেপি লড়াইয়ে নেই, তাই বিধায়ক কেনাবেচার সম্ভাবনা কম। আবার উত্তরপ্রদেশে কংগ্রেস বেশি আসনে জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী নয়। তবু, যদি সেরাজ্যে ত্রিশঙ্কু পরিস্থিতি তৈরি হয় তাহলে উত্তরপ্রদেশের যে ক’জন জিতবেন তাদেরও আনা হতে পারে ছত্তিশগড়ে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে