১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

কেলেঙ্কারি ধরে ফেলে আমরাই গোয়েন্দাদের জানিয়েছি, সাফাই পিএনবি কর্তার

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: February 15, 2018 3:11 pm|    Updated: February 15, 2018 3:38 pm

Cornered PNB defends self on ‘biggest banking fraud’

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রায় ১১,০০০ কোটি টাকা গায়েব। পলাতক নীরব মোদি। সারা দেশে শোরগোল। চরম প্রশ্নের মুখে দেশের অর্থনীতি। এবং পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংক। এই পরিস্থিতিতেই নিজেদের হয়ে সাফাই দিলেন ব্যাংকের এমডি ও সিইও সুনীল মেহতা।

[  PNB-তে ১১,৫০০ কোটি টাকার দুর্নীতি, সিবিআইয়ের নজরে ধনকুবের নীরব মোদি ]

এদিন সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি জানান, “এই কেলেংকারির সূত্রপাত ২০১১ সালে। চলতি বছরে জানুয়ারির তৃতীয় সপ্তাহে আমাদের নজরে আসে, আমরাই তদন্ত করি। এবং সে কথা সেবিকে ও গোয়েন্দাদের জানানো হয়।” নীরব মোদির কেলেঙ্কারিতে যে ব্যাংকের কোনও সমর্থন নেই, এদিন তা বারবার করে স্পষ্ট করে দেন তিনি। ব্যাংকের ঐতিহ্য তুলে ধরে তিনি জানান, পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংক ১২৩ বছরের পুরনো। স্বদেশী আন্দোলনের সময় ব্যাংকের জন্ম। এই প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে জড়িয়ে আছে লালা লাজপত রায়ের মতো শ্রদ্ধেয় ব্যক্তির নাম। তারপর থেকে বহু চড়াই-উতরাই পেরতে হয়েছে। যার মধ্যে অন্যতম সমস্যা ছিল দেশভাগ। সে সময়ও কঠিন সমস্যার মধ্যে দিয়ে গিয়েছে ব্যাংক। তারপর এখন ব্যাংকের ইতিহাসে এই দ্বিতীয় বড় সমস্যার মুখোমুথি তারা। তবে তাঁদের বিশ্বাস, এই সংকটও তাঁরা কাটিয়ে উঠবেন। এদিন সুনীলবাবু জানান, ব্যাংকিংয়ের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতাতেই বিশ্বাস করেন তাঁরা। সে কারণেই কেলেংকারির আঁচ পেয়ে পুরো ঘটনার তদন্ত করেন। অন্যায়কে সমর্থন করেন না বলেই, এ ব্যাপারটা চেপে জানেননি। বরং তা প্রকাশ্যে এনেছিল ব্যাংকই। সেবি ও গোয়েন্দা-যেখানে যেখানে জানানোর কথা ছিল তা জানানোও হয়েছিল। কোনওরকম অন্যায়কে তাঁরা সমর্থন করেন না বলেই জোর দিয়ে জানান সিইও।

পাশাপাশি তাঁর আবেদন, ব্যাংকের স্টেক হোল্ডাররা যেন ভীত না হয়ে পড়েন। বহু মানুষের স্বার্থ এই ব্যাংকের সঙ্গে জড়িত। প্রত্যেকের কথা ব্যাংক ভাবে। এই সংকট থেকে বেরিয়ে আসার ক্ষমতা যে ব্যাংকের আছে, তা জানিয়েই সকল গ্রাহকদের আশ্বস্ত করেছেন তিনি। তবে এতেও বহু প্রশ্ন মিটছে না। এতবড় কেলেংকারির পিছনে যে ব্যাংক শুধু সাফাই আর স্বদেশী ঐতিহ্য সামনে এনে দায় এড়াতে পারছে না, এই কথা বলেই সরব হয়েছেন বিরোধীরা।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে