BREAKING NEWS

১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  শনিবার ২৮ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘খিদে পেটে মানুষ ঋণ চায় না, সাহায্য চায়’, আর্থিক প্যাকেজ পুনর্বিন্যাসের দাবি রাহুলের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: May 16, 2020 1:39 pm|    Updated: May 16, 2020 1:39 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মোদি সরকারের ২০ লক্ষ কোটি টাকার আর্থিক প্যাকেজ পুনর্বিন্যাসের দাবি জানালেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi)। তাঁর অভিযোগ, যে প্যাকেজ ঘোষিত হয়েছে তাতে সাধারণ মানুষ সরাসরি কোনও সুবিধা পাচ্ছেন না। রাহুল এদিন আরও একবার সরাসরি কৃষক, পরিযায়ী শ্রমিক এবং গরিব মানুষের অ্যাকাউন্টে টাকা দেওয়ার পক্ষে সওয়াল করেন।

[আরও পড়ুন: আজও ফাঁকা মধ্যবিত্তের ঝুলি, চাহিদা বাড়ানোর দাওয়াই দিতে ব্যর্থ নির্মলা]

কেন্দ্রের আর্থিক প্যাকেজ নিয়ে এক সাংবাদিক বৈঠকে প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি বলেন,”খিদে পেটে মানুষ সরকারের কাছে ঋণ চায় না। সাহায্য চায়। এই পরিস্থিতিতে সরকারের উচিৎ মা-বাবার মতো পরিযায়ী শ্রমিক এবং গরিবদের সাহায্য করা । আমি চাই, সরকারের উপর চাপ সৃষ্টি করতে। আমার সরকারের কাছে অনুরোধ, আর্থিক প্যাকেজ পুনর্বিন্যাস করে সাধারণ মানুষকে সরাসরি সাহায্য করুন।” বস্তুত, নির্মলার প্যাকেজে এখনও পর্যন্ত বাজারে জোগান বাড়ানোর জন্য বহু মানুষকে ঋণ দেওয়ার কথা বলা হলেও, চাহিদা অর্থাৎ সাধারণ মানুষের ক্রয়ক্ষমতা বাড়াতে সে অর্থে কিছুই বলা হয়নি। এদিন সেই বিষয়টিই উত্থাপন করেন প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি। তিনি বলেন,”মানুষ কাজ করা শুরু করলে অর্থনীতি এমনিই চলতে শুরু করবে। সেজন্য বাজারে চাহিদা বাড়াতে হবে। চাহিদা বাড়াতে সাধারণ মানুষের হাতে টাকা তুলে দেওয়াটাই একমাত্র উপায়।” এ প্রসঙ্গে গ্রামাঞ্চলে ১০০ দিনের কাজ এবং শহরাঞ্চলে কংগ্রেস প্রস্তাবিত ‘ন্যায়’-এর ধাঁচে কোনও প্রকল্প আনা যেতে পারে বলে মনে করছেন প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি। রাহুলের মতে, এবার সময় এসেছে লকডাউন তুলে অর্থনীতি চালু করার। নাহলে করোনার থেকেও বেশি ক্ষতি হবে অর্থনীতির সুনামিতে। তবে, লকডাউন তুললেও বয়স্ক এবং যাদের ক্রনিক রোগ আছে, তাঁদের রক্ষা করার পরামর্শ দিয়েছেন কংগ্রেস নেতা।

[আরও পড়ুন: ‘শুধুই ১৩টা শূন্য’, নির্মলার প্যাকেজ বরাদ্দ দেখে ‘হতাশ’ বিরোধীরা]

রাহুলের দাবি, সরকারের কাছে টাকার অভাব নেই। কিন্তু সেই টাকা সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে হবে। রাজ্যগুলিকে আরও অনেক বেশি টাকা দিতে হবে। কংগ্রেস নেতার দাবি, তাঁর দল যে রাজ্যগুলিতে ক্ষমতায় আছে, সেই রাজ্যে সরাসরি সাধারণ মানুষকে টাকা দিচ্ছে। তবে, করোনা মোকাবিলায় মহারাষ্ট্র সরকারের ব্যর্থতার দায় নিতে নারাজ তিনি। এদিন রাহুল স্বীকার করে নেন, কংগ্রেস জোট সরকার, আর কংগ্রেস সরকার এক নয়। জোট সরকারের উপর চাপ সৃষ্টি করতে পারছেন না তাঁরা।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement