BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মৃদু উপসর্গতে বাড়িতেই থেকে চিকিৎসা, রাজ্যবাসীকে পরামর্শ তামিলনাড়ু সরকারের

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: May 5, 2020 3:26 pm|    Updated: May 5, 2020 3:26 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কিছুদিন আগে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, করোনা আক্রান্তদের পরিবারের কেউ যাঁর উপসর্গ রয়েছে তিনি বাড়িতেই আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা করাতে পারেন। এই নিয়ে রাজ্যে বিরোধী থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষের মধ্যে শোরগোল পড়ে যায়। পরে রাজ্যের স্বাস্থ্যদপ্তরের তরফে বিজ্ঞপ্তি জারি করে অপব্যাখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তি দূর করে। পরেরদিনই কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে একই জিনিস জানানো হয়, যে মৃদু উপসর্গ রয়েছে এমন ব্যক্তি বাড়িতেই কোয়ারেন্টাইনে থেকে চিকিৎসকের পরামর্শে সেরে উঠতে পারেন। বিষয়টি নিয়ে তখন বিতর্ক ধামাচাপা পড়ে। এবার দক্ষিণের রাজ্য তামিলনাড়ুও সেই পথে হাঁটতে চলেছে। বিজেপির শরিক দল এআইএডিএমকে সরকার ঘোষণা করেছে, মৃদু উপসর্গ থাকলে বাড়িতেই থেকে চিকিৎসা করাতে পারবেন রোগী।

করোনা রোগীদের জন্য নয়া গাইডলাইন প্রকাশ করেছে তামিলনাড়ু সরকার। সেই গাইডলাইনে উল্লেখ রয়েছে-

১- বাড়িতে হাওয়া-বাতাস খেলে এমন ঘরে থাকতে হবে। সেই ঘরের সঙ্গে যেন বাথরুম থাকে।

২- দিনে ২৪ ঘণ্টার জন্য কেয়ারটেকার রাখতে হবে। চিকিৎসকদের সঙ্গে তিনি সবসময় যোগাযোগ রাখবেন।

৩- সেই কেয়ারটেকার এবং বাড়ির প্রত্যেককে হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন প্রফিল্যাক্সিস ওষুধ সেবন করতে হবে।

৪- রোগী এবং কেয়ারটেকার দুজনকেই মাল্টিভিটামিন ট্যাবলেট নিতে হবে।

[আরও পড়ুন: ‘নিজেদের টাকাতেই কিনতে হয়েছে টিকিট’, দাবি গুজরাট ফেরত পরিযায়ী শ্রমিকদের]

বাড়িতে থাকার সময় যদি রোগীর জ্বর বেড়ে যায় এবং তা ১০২ ডিগ্রি ফারেনহাইটের বেশি হয়, শ্বাসকষ্ট বাড়ে, সর্দি-কাশি ও বুকে ব্যথা বাড়ে, ঠোঁটের রং পরিবর্তন হতে থাকলে তৎক্ষণাৎ হাসপাতালে ভরতি হওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে স্বাস্থ্যদপ্তরের তরফে।

প্রসঙ্গত, সোমবার তামিলনাড়ুতে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড ৫২৭ জন নতুন করোনা আক্রান্তের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। যা একদিনে রাজ্যে রেকর্ড। এই অবস্থায় রোগীর সংখ্যা দিন দিন বাড়তে থাকায় চিন্তায় প্রশাসন। স্বাভাবিক ভাবেই বাড়িতে থেকেই এখন চিকিৎসার জন্য পরামর্শ দিচ্ছে সরকার।

[আরও পড়ুন: লকডাউনের পরে কী? দু’মাসের জন্য ‘অ্যাকশন প্ল্যান’ তৈরি করছে কেন্দ্র]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement