BREAKING NEWS

১৯  আষাঢ়  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৫ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

জেটলির বাজেটে হতাশ হলেও এখনই এনডিএ ছাড়ছে না টিডিপি

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: February 3, 2018 9:23 am|    Updated: February 3, 2018 9:23 am

Cracks in TDP-BJP alliance deepen after Budget 2018

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির পেশ করা সাধারণ বাজেট দেখে চূড়ান্ত হতাশ হলেও এখনই বিজেপির সঙ্গ ছাড়ছে না তেলুগু দেশম পার্টি (টিডিপি)। এনডিএ জোট ছেড়ে বেরিয়ে আসছে না তারা। দলীয় বৈঠকে অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী তথা টিডিপি প্রধান চন্দ্রবাবু নায়ডু শুক্রবার এমনই ইঙ্গিত দিয়েছেন।

[বাজেটের পরের দিন শেয়ার বাজারে ব্যাপক ধস, আতঙ্কে আমানতকারীরা]

২০১৯ লোকসভা ভোট যত এগিয়ে আসছে ততই এনডিএ শিবিরে অস্থিরতা বাড়ছে। আগেই জোট থেকে বেরিয়ে ‘একলা চলো’ নীতিতে যাওয়ার কথা ঘোষণা করেছে শিবসেনা। এবার ক্ষোভ জমেছে বিজেপির অন্যতম বড় জোটসঙ্গী টিডিপির মনে। গত সপ্তাহেই বিজেপির সঙ্গ ছেড়ে বেরিয়ে আসার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু। সেই ক্ষোভের আগুনে ‘ঘি’ ফেলেছে অরুণ জেটলির বাজেট। দক্ষিণ ভারতের অন্যতম বড় রাজনৈতিক দলের অভিযোগ, তাদের দাবি মেনে কোনও অর্থ সংস্থানের বন্দোবস্ত করেনি নরেন্দ্র মোদি সরকার। এই পরিস্থিতিতে দলের অবস্থান চূড়ান্ত করতে রবিবার ফের বৈঠক ডেকেছেন টিডিপি সুপ্রিমো

এই বিষয়ে প্রকাশ্যে মুখ খোলেন টিডিপি সাংসদ টিজি ভেঙ্কটেশ। শুক্রবার দিল্লিতে তিনি বলেন, “যুদ্ধ ঘোষণা করার সময় এবার এসেছে। আমাদের সামনে তিনটি রাস্তা রয়েছে। প্রথম রাস্তা হল, জোট বহাল রাখার চেষ্টা চালিয়ে যাওয়া। দ্বিতীয় রাস্তা হল, আমাদের সব সাংসদের পদত্যাগ। আর তৃতীয় রাস্তা হল, জোট ভেঙে দেওয়া। রবিবার মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে আমরা সিদ্ধান্ত নেব।” কিন্তু, কেন এমন পরিস্থিতি? অন্ধ্রপ্রদেশ ভেঙে দু’টি রাজ্য গঠনের পর নতুন করে পুনর্বিন্যাস করা হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে টিডিপি সরকার কেন্দ্রের মুখাপেক্ষী। কিন্তু, মোদি সরকার পর্যাপ্ত অর্থ না দেওয়ায় কয়েকদিন ধরেই গোসা রয়েছে চন্দ্রবাবু নায়ডুদের মনে। টিডিপি সংসদীয় দলের চেয়ারম্যান তথা মোদি মন্ত্রিসভার সদস্য ওয়াই এস চৌধুরী বলেন, ‘‘কেন্দ্রীয় বাজেটে দল হতাশ। পোলাভরম প্রকল্পের জন্য তহবিল চেয়েও কানাকড়ি মেলেনি। অন্ধ্রের নতুন রাজধানী অমরাবতীর জন্যও কোনও টাকা বরাদ্দ করাই হয়নি। কোনও দাবিই পূরণ করেননি জেটলি।”

রাজ্যের দাবিদাওয়াকে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অবজ্ঞা করেছেন বলে টিডিপি-র অভিযোগ। তাতে মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নায়ডু ‘অত্যন্ত হতাশ’ বলেও টিডিপি-র তরফে জানানো হয়েছে। ২০১৪ সাল থেকে টিডিপির কাজ নিয়ে দূরত্ব বাড়ে রাজ্য বিজেপির। এই পরিস্থিতিতে বিরোধীরা আগামী লোকসভা ভোটের আগে নিজেরা সুসংবদ্ধ হতে মরিয়া। তার মধ্যে এনডিএ শিবিরে ভাঙন হলে বিরোধীদের পালে বাড়তি অক্সিজেন জোগাবে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

[লজ্জা! ‘পদ্মাবত’ দেখতে গিয়ে হলের মধ্যেই ধর্ষিতা যুবতী]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে