১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ৬ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘যেন এই দেশেতেই মরি’… তাঁর মৃত্যু ভারতেই হোক, চান দলাই লামা

Published by: Biswadip Dey |    Posted: September 23, 2022 12:46 pm|    Updated: September 23, 2022 12:51 pm

Dalai Lama says he would prefer dying in India। Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নিজের দেশ চিনে নয়, তিনি মরতে চান ভারতেই। এমনটাই জানিয়ে দিলেন দলাই লামা (Dalai Lama)। তিব্বতি ধর্মগুরুর মতে, চিনে (China) আন্তরিকতা নেই। সবটাই মূলত কৃত্রিমতায় ভরা।

ধরমশালায় দলাই লামার বাড়িতে তরুণদের জন্য দু’দিন ব্যাপী একটি আলোচনাসভা আয়োজিত হয়েছিল। এক মার্কিন সংস্থা আয়োজিত সেই আলোচনাসভাতেই এমন কথা বলতে শোনা গেল তাঁকে। তিনি বলেন, ”আমি দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংকে বলেছিলাম… মানে সেই সময় আমি জানতাম আমি আরও ১৫-২০ বছর বাঁচব। এতে কোনও প্রশ্ন নেই। কিন্তু যখনই আমি মারা যাব, যেন ভারতেই মরি। এখানে যে মানুষরা আমাদের ঘিরে থাকেন তাঁরা আমাদের সত্য়িই ভালবাসেন। কোনও কৃত্রিমতা নেই। আমি যদি চিনে মারা যাই, সেখানে চারপাশে খুব বেশি কৃত্রিমতা দেখতে পাব। আর তাই আমি এই দেশেতেই মরতে চাই। স্বাধীন… গণতান্ত্রিক… মুক্ত হয়ে।” এই আলোচনাসভায় সকলকে শান্তি ও প্রীতি বজায় রাখার বার্তাও দেন দলাই লামা।

[আরও পড়ুন: সল্টলেকে বিজেপির দুর্গাপুজোয় মহিলা পুরোহিত, আসতে পারেন নাড্ডা-শাহ]

১৯৫৯ সালে চিনা হানাদার বাহিনীর হাত থেকে বাঁচতে তিব্বত থেকে দলবল সমেত পালিয়ে ভারতে আশ্রয় নিয়েছিলেন দলাই লামা। তারপর থেকেই তাঁকে ‘বিচ্ছিন্নতাবাদী’ বলে মনে করে বেজিং। দলাই লামা বহুবার ভারতের সাহায্য নিয়ে চিনের হাত থেকে তিব্বতকে স্বাধীন করার চেষ্টা করেছেন। সেই নেহরুর আমল থেকেই তাঁকে নিয়ে ভারতের সঙ্গে চিনের কূটনৈতিক টানাপোড়েন চলেছে।

সেই টানাপোড়েনের মাত্রা যে এতটুকু কমেনি তা বারবার প্রমাণ হয়ে গিয়েছে। গত জুলাইয়েও লামার ৮৭তম জন্মদিনে চিন খোঁচা দিয়ে বলেছিল, ভারতের উচিত চতুর্দশ দলাই লামার চিন-বিরোধী বিচ্ছিন্নতাবাদী প্রকৃতিকে সম্পূর্ণ স্বীকৃতি দেওয়া। এই পরিস্থিতিতে বর্ষীয়ান ধর্মগুরু নিজের দেশ নয়, বারবার ভারতের প্রতিই কৃতজ্ঞতা প্রদর্শন করেছেন।

[আরও পড়ুন: আসানসোলে কারখানার ভিতরে গোলাগুলিতে মৃত নিরাপত্তারক্ষী, কাঠগড়ায় সহকর্মী ‘গানম্যান’]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে