BREAKING NEWS

১৩ মাঘ  ১৪২৭  বুধবার ২৭ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

সিগারেট ধরাতে দেশলাই না দেওয়ায় দলিত কৃষককে পিটিয়ে খুন, উত্তেজনা মধ্যপ্রদেশে

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: November 30, 2020 9:04 am|    Updated: November 30, 2020 9:04 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সিগারেট ধরানোর জন্য দেশলাই চেয়েছিল। তা দিতে রাজি না হওয়ায় ৫০ বছরের একজন দলিত কৃষককে পিটিয়ে খুন করল দুই ব্যক্তি। নৃশংস এই ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের গুনা জেলায়। অভিযোগের ভিত্তিতে দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পাশাপাশি মৃতের পরিবারকে ৮.২৫ লক্ষ টাকা আর্থিক অনুদান দেওয়ার ঘোষণা করেছে মধ্যপ্রদেশ সরকার।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মধ্যপ্রদেশের গুনা (Guna) জেলার কারদ গ্রামের বাসিন্দা ৫০ বছর বয়সী লালজি রাম আহিরওয়ারের থেকে সিগারেট ধরানোর জন্য দেশলাই (matchbox) চেয়েছিল ওই গ্রামেরই দুই বাসিন্দা যশ যাদব ও অঙ্কেশ যাদব। কিন্তু, তা দিতে রাজি হননি লালজি। এই নিয়ে তর্কাতর্কি চলার মাঝেই আচমকা তাঁকে লাঠি দিতে বেধড়ক মারধর করে ওই দুই ব্যক্তি। এর ফলে অচৈতন্য অবস্থায় ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়েন লালজি। বিষয়টি দেখতে পেয়ে স্থানীয় বাসিন্দারা তাঁকে উদ্ধার করে গুনার জেলা হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে ভরতি করেন। পরে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় সেখানেই মৃত্যু হয় ওই দলিত কৃষককে। বিষয়টি নিয়ে উত্তেজনা তৈরি হওয়ার পরেই দুই অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে খুনের মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। পাশাপাশি মৃতের পরিবারকে ৮.২৫ লক্ষ টাকা আর্থিক অনুদান দেওয়ার ঘোষণা করেছে শিবরাজ সিং চৌহানের প্রশাসন। দিল্লিতে কৃষক আন্দোলনের জেরে যখন প্রবল উত্তেজনা তৈরি হয়েছে তখন মধ্যপ্রদেশের এই ঘটনা নতুন বিতর্কের জন্ম দিয়েছে।

[আরও পড়ুন: প্রধানমন্ত্রী মোদির সুরক্ষায় আসছে ‘ড্রোন কিলার’, নিরাপত্তা বলয়ে ঢুকতে পারবে না মাছিও!]

এপ্রসঙ্গে গুনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার টিএস বাগেল বলেন, ‘লালজি রাম আহিরওয়ার নামে ওই কৃষক দেশলাই দিতে রাজি না হওয়ায় যশ ও অঙ্কেশ যাদব তাঁকে আক্রমণ করে। এর ফলে তিনি গুরুতর জখম হন। পরে গুনা জেলা হাসপাতালে ভরতি করা হলে সেখানেই মৃত্যু হয় তাঁর। দুই অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে খুনের মামলা দায়ের করা হয়েছে।’

[আরও পড়ুন: সাগরে ভেঙে পড়া মিগ বিমানের ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার, এখনও নিখোঁজ দ্বিতীয় পাইলট]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement