BREAKING NEWS

২৩ চৈত্র  ১৪২৬  সোমবার ৬ এপ্রিল ২০২০ 

Advertisement

ট্রাম্প আসার আগেই রণক্ষেত্র দিল্লি, সংঘর্ষে হত পুলিশ কনস্টেবল-সহ দুই

Published by: Paramita Paul |    Posted: February 24, 2020 4:22 pm|    Updated: February 24, 2020 8:11 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: CAA বিরোধী ও সমর্থকদের সংঘর্ষে দিল্লির মউজপুরের গোকালপুরির কাছে মৃত্যু হল দিল্লি পুলিশের হেড কনস্টেবলের। নাম রতন লাল। পুলিশ সূত্রে খবর, ছোঁড়া পাথরের আঘাতে তাঁর মৃত্যু হয়। এদিকে পাথরের আঘাতে গুরুতর জখম ডিসিপি পদমর্যাদার এক পুলিশ কর্মী। মৃত্যু হয়েছে আরও এক সাধারণ নাগরিকের। এদিকে সপরিবারে দিল্লি পৌঁছে গিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ঠিক তার আগেই ফের সিএএ বিরোধী ও সমর্থকদের সংঘর্ষে রণক্ষেত্রের চেহারা নিয়েছে উত্তর-পূর্ব দিল্লি। সোমবার সকাল থেকে অশান্তি ছড়িয়েছে মউজপুর, গোকালপুরি, কবীরনগর-সহ একাধিক এলাকায়।চলে পাথরবৃষ্টি। আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয় গাড়িতে। চলে গুলিও। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে আসরে নামে পুলিশ। আর তখনই পাথরের ঘায়ে জখম হন একাধিক পুলিশ কর্মী।

সোমবার সকাল থেরে মউজপুরের কাছে কবীর নগরে উত্তেজনা ছড়ায়। এমনকী দিল্লি পুলিশের সামনেই বন্দুক হাতে নিয়ে আস্ফালন করতে দেখা যায় এক যুবককে। যদিও সে CAA সমর্থক নাকি বিক্ষোভকারী—সে ব্যাপারে এখনও স্পষ্ট জানা যায়নি। এদিকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে উত্তর-পূর্ব দিল্লিতে ১৪৪ ধারা জারি করেছে দিল্লি পুলিশ। প্রয়োজনে আরও কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে বলে জানিয়েছেন তিনি।

[আরও পড়ুন : কেরলে বাঙালি শ্রমিককে মারধর, পরিচয়পত্র কেড়ে নেওয়ার অভিযোগে ধৃত অটোচালক]

রবিবারের পর সোমবার সকাল থেকে মউজপুর এলাকায় নতুন করে উত্তেজনা ছড়ায়।দুপক্ষের মধ্যে দফায় দফায় অশান্তি বাধে। দুপুরের পর মৌজপুর মেট্রো স্টেশনের সামনে একাধিক গাড়ি ও মোটরসাইকেলে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়। এমনকী ভজনপুরায় পেট্রোল পাম্পে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ লাঠি চালায়। কাঁদানে গ্যাস ছোঁড়ে। বিজেপির অভিযোগ, বিক্ষোভকারীরাই এই ঘটনা ঘটিয়েছে। তারাই হিংসা ছড়াচ্ছে। পাল্টা বিক্ষোভকারীদের বক্তব্য, শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ ভাঙতে বিজেপিই লোক পাঠিয়ে অশান্তি পাকাচ্ছে। এদিকে কপিলনগর এলাকার একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে। যেখানে দেখা যায়, মেরুন শার্ট পড়া এক ব্যক্তি ব্নদুক নিয়ে হুমকি দিচ্ছে। পিছন থেকে কয়েকজন পাথর ছুঁড়ছেন। তবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করছে পুলিশ। বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে আলোচনা করা হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন উত্তর-পূর্ব দিল্লির ডিসিপি বেদ প্রকাশ।

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement