১৫ শ্রাবণ  ১৪২৮  রবিবার ১ আগস্ট ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘বাংলায় গণতন্ত্র বিপন্ন, চিন্তা হচ্ছে’, দ্বিতীয় সাক্ষাতেও রাজ্যের পরিস্থিতি নিয়ে শাহকে নালিশ ধনকড়ের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: June 19, 2021 3:14 pm|    Updated: June 19, 2021 4:45 pm

Democracy under threat in West Bengal: Jagdeep Dhankhar | Sangbad Pratidin

নন্দিতা রায়, নয়াদিল্লি: ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে দ্বিতীয়বার সাক্ষাৎ। তাতেও রাজ্যের পরিস্থিতি নিয়ে অমিত শাহর (Amit Shah) কাছে কথায় কথায় উদ্বেগ প্রকাশ করলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় (Jagdeep Dhankhar)। শনিবার ১১টায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তাঁর বাসভবনে জরুরি তলব করেছিলেন ধনকড়কে। প্রায় ঘণ্টাখানেকের সেই আলোচনায় উঠে এসেছে বাংলার পরিস্থিতির কথা। নির্বাচিত সরকারের প্রতিনিধি এবং পুলিশ প্রশাসনকে ফের নিজের দায়িত্বের কথা মনে করিয়েছেন ধনকড়। তিনি নিজে যে এ বিষেয়ে কতটা চিন্তিত, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে তা প্রকাশ করেছেন। সূত্রের খবর, চারদিনের সফর সেরে বিকেলের বিমানে দিল্লি থেকে কলকাতায় ফিরছেন রাজ্যপাল।

মে মাসে বঙ্গে ভোটের ফলপ্রকাশের পর গত বুধবারই অমিত শাহর তলব পেয়ে দিল্লি (Delhi) গিয়েছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। তিনদিনের সফরসূচিতে অমিত শাহ ছাড়াও রাষ্ট্রপতি ও বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন তিনি। শুক্রবার ফেরার কথা থাকলেও তা বাতিল করেন। শনিবার সকালে জানা গিয়েছে, বেলায় অমিত শাহ নিজের বাড়িতে ফের ধনকড়কে দেখা করতে বলেছেন। তাই শুক্রবার ফেরার পরিকল্পনা বাতিল করেছেন রাজ্যপাল। ৪৮ ঘ্ণ্টার মধ্যেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দু’বার পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপালকে তলব নিয়ে রাজনৈতিক মহলে নানা গুঞ্জন শুরু হয়।

[আরও পড়ুন: অক্টোবরে নয়, দেড় মাসের মধ্যেই আসছে করোনার তৃতীয় ঢেউ, সাবধানবাণী এইমস প্রধানের]

এদিন নির্ধারিত সময়ে অমিত শাহর বাসভবনে গিয়ে প্রায় ঘণ্টাখানেক ধরে আলোচনা করেন ধনকড়। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে তিনি ভোট পরবর্তী বাংলার পরিস্থিতি নিয়ে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন বলে খবর। সেখান থেকে বেরিয়ে সাংবাদিক বৈঠকে ধনকড় বলেন, ”পশ্চিমবঙ্গে নতুন নির্বাচিত সরকার এসেছে। বিশ্বাস এবং ন্যায়ের সঙ্গে এই গণতান্ত্রিক উৎসবের উদযাপন করা উচিৎ। বিশেষত পুলিশের কাছে আমার আবেদন, নিয়মকানুন মেনে চলুন। ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে বলতে চাই, এসব বন্ধ করা সরকারেরই দায়িত্ব। কিন্তু হিংসা হচ্ছে না বলে বারবার তা এড়িয়ে যাচ্ছে প্রশাসন।” তাঁর আরও অভিযোগ, যদি এসব সমস্যার সমাধান না হয়, তাহলে জনগণ যে ভোট দিয়ে সরকারকে নির্বাচিত করেছে, তা অর্থহীন হয়ে পড়ে। সংবাদমাধ্যমের কাছে সত্যনির্ভর খবর পরিবেশন করার আবেদন জানিয়েছেন ধনকড়।

[আরও পড়ুন: ইচ্ছাকৃতভাবে অক্সিজেন বন্ধ করায় করোনা রোগীর মৃত্যু নয়, আগ্রার হাসপাতালকে ‘ক্লিনচিট’ যোগীর]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement