১৫  আষাঢ়  ১৪২৯  শুক্রবার ১ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

নোট বাতিলের জেরেই কমতে পারে আর্থিক বৃদ্ধি, আশঙ্কায় SBI

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 12, 2017 3:38 pm|    Updated: June 12, 2017 3:38 pm

Demonetisation slowing down economy to a certain extend: SBI

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  প্রধানমন্ত্রীর নোট বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রথম থেকে সরব হয়েছিল বিরোধীরা৷ তা নিয়ে সংসদের পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটি (পিএসি)-তে প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়েছিল খোদ রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গর্ভনর উর্জিত প্যাটেলকে৷ আর এবার দেশের বৃহত্তম ব্যাঙ্ক স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া-ও আশঙ্কা প্রকাশ করল, নোট বাতিলের ফলে দেশের আর্থিক বৃদ্ধির হার কমতে পারে৷

[যোগীর রাজ্যেই একটি গ্রামের নাম পাল্টে হচ্ছে ‘পাক অধিকৃত কাশ্মীর’!]

২০১৪ সালে লোকসভা নির্বাচনের আগে নরেন্দ্র মোদি প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, ক্ষমতা এলে বিদেশ থেকে কালো টাকা ফিরিয়ে আনবেন৷ প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর, গত বছরের ৯ নভেম্বরে কালো টাকা উদ্ধারের লক্ষ্যে এক নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত নেন তিনি৷ রাতারাতি বাতিল করে দেওয়া হয় ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট৷ বাজারে আসে নতুন ৫০০ ও ২০০০ টাকার নোট৷ কেন্দ্রীয় সরকারের এই সিদ্ধান্তের ফলে দেশ জুড়ে নগদের আকাল দেখা দেয়৷ ব্যাঙ্ক ও এটিএম থেকে টাকা তুলতে গিয়ে চরম হয়রানিতে পড়তে হয় সাধারণ মানুষ৷ কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতায় সরব হয় তৃণমূল-সহ দেশের সবকটি বিরোধী দল-ই৷ এ বিষয়ে সংসদের পাবলিক অ্যাকাউন্স কমিটি বা পিএসি-তে প্রশ্নের মুখে পড়েন খোদ রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গর্ভনর উর্জিত প্যাটেল৷ যদিও নিজের সিদ্ধান্তে অনড় থাকেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ ধীরে ধীরে পরিস্থিতিও স্বাভাবিক হয়ে আসে৷

[জুনেই আমেরিকা সফরে মোদি, বৈঠক ট্রাম্পের সঙ্গে]

কিন্তু, এই নোট বাতিলের সিদ্ধান্ত আগামী দিনে ভারতীয় অর্থনীতি কী ধরনের প্রভাব ফেলবে, তা নিয়ে সন্দিহান স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া বা SBI৷ তাদের আশঙ্কা, নোট বাতিলের সিদ্ধান্তে ফলে ভারতে আর্থিক বৃদ্ধির হার কমতে পারে৷ যার কুপ্রভাব পড়তে পারে ব্যাঙ্কিং পরিষেবাতেও৷

[গুজরাটে ওঝাদের সংবর্ধনা বিজেপির, দুই মন্ত্রীর হাজিরাতে বিতর্ক]

জানা গিয়েছে, নোট বাতিলের পর এখন সেভিংস ও ক্যারেন্ট অ্যাকাউন্ট খুলে সঞ্চয়ের প্রবণতা অনেক বেড়েছে৷ ফলে বিভিন্ন মেয়াদী সঞ্চয়ের উপর সুদের হার কমাতে বাধ্য হয়েছে স্টেট ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ৷ স্টেট ব্যাঙ্কের আশঙ্কা, আগামী দিনে বিভিন্ন বেসরকারি ব্যাঙ্ক ও অন্যান্য ঋণপ্রদানকারী সংস্থার সঙ্গে প্রতিযোগিতা আরও বাড়বে৷ ফলে তাদের লাভের হারও কমে যেতে পারে৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে