BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  বুধবার ৩০ নভেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

লকডাউনে বাড়ি ফেরার তাগিদ, পিঁয়াজ ব্যবসায়ী সাজলেন এক ব্যক্তি

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: April 26, 2020 9:22 am|    Updated: May 17, 2020 6:47 am

Desparate to returning home a person turned into vegetable trader

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দীর্ঘ লকডাউনে মুম্বইতে আটকে এক ব্যক্তি। তাই বাড়ি ফেরার জন্য মরিয়া হয়ে উঠে বেছে নিলেন অন্য পথ। পিঁয়াজ ব্যবসায়ী সেজে মুম্বই থেকে ফিরলেন নিজের গ্রামের বাড়ি আহমেদাবাদে

২৫ মার্চ থেকে শুরু হওয়া লকডাউনে নাস্তানাবুদ দেশবাসী। দেশের বিভিন্ন স্থানে আটকেও পড়েছেন বহু মানুষ। এমতাবস্থায় জরুরী পরিষেবা ছাড়া আর কিছুই সচল নয়। মুম্বইতে আটকে পড়া এক ব্যক্তি লকডাউনের প্রথম পর্ব ভিন রাজ্যে কাটিয়ে দিলেও আশায় ছিলেন যে লকডাউন উঠলেই বাড়ি ফিরে আসবেন। কিন্তু কোথায় কী? লকডাউনের দ্বিতীয় পর্বের মেয়াদ বৃদ্ধি পাওয়ায় বিপত্তির মুখে পড়েন আহমেদাবাদের বাসিন্দা প্রেম মূর্তি পাণ্ডে। একদিকে টাকা নেই অন্যদিকে মহারাষ্ট্রে সংক্রমণের আশঙ্কা তাঁকে চিন্তায় ফেলে। তাই যেমন ভাবা তেমন কাজ। ব্যবসায়ী সেজে প্রথমে অত্যাবশ্যকীয় পণ্যবিক্রি করতে পাড়ি দিলেন তিনি। প্রেম মূর্তি পাণ্ডের কথায়, “আমি মুম্বই বিমানবন্দরের কর্মী। লকডাউনে আটকে পড়ায় আমায় আন্ধেরির আজাদ নগরের একটি ঘিঞ্জি এলাকায় থাকতে দেওয়া হয়। সেখানে সংক্রমণের আশঙ্কা থাকায় আমি ব্যবসায়ী সেজে পালানোর পরিকল্পনা করি।” জানা যায়, পাণ্ডে প্রথমে তরমুজ বিক্রেতা হওয়ার চেষ্টা করেন। তাতে লাভ না হওয়ায় মুম্বইয়ের এক ব্যবসায়ী সঙ্গে চুক্তি করে একটি ছোট ট্রাক ভাড়া করে নাসিকের কাছ পিম্পলগাঁও পর্যন্ত যান। সেখান থেকে দশ হাজার টাকার তরমুজ কিনে মুম্বইতে ব্যবসায়ীর কাছে পাঠিয়ে দেন। কিন্তু তরমুজ ভাল বিক্রি না হওয়ায় সেখানে তিনি আটকে যান। পরে পরিকল্পনা বদলে মুম্বইয়ে বাইরে পিঁয়াজ বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নেন। তাই পরের দিন সাহসে ভর করে তিনি ৭৭ হাজার পাঁচশো কিলোল পিঁয়াজ ট্রাকে তুলে আহমেদাবাদের উদ্দেশ্যে রওনা দেন।

[আরও পড়ুন:পরাস্ত করোনা, জীবনের মুকুটে নয়া পালক নিয়ে বাড়ি ফিরলেন দুই প্রবীণ]

কিন্তু কপাল খারাপ থাকলে যা হয়। ২৩ এপ্রিল আহমেদাবাদের কাছে পৌঁছে মুন্দেরা বাজারে তাঁর পিঁয়াজ পাইকারি ব্যবসা ভাল না হওয়ায় সেখানেই আটকে পড়েন প্রেম মূর্তি পাণ্ডে। তাই সেদিনটা অপেক্ষা তিনি কয়েক কিলোমিটার দূরে কোটওয়ায় গিয়ে রাস্তায় গাড়ি দুর্ঘটনার ভান করেন। দুর্ঘটনার কথা জানতে পেরে ঘটনাস্থলে যায় টি পি নগরের পুলিশ। তাঁরা গিয়ে তাঁকে উদ্ধার করে আহমেদাবাদে তাঁর বাড়িতে পৌঁছে দেন।পাশাপাশি চিকিৎসকদের নিয়ে গিয়ে তাঁর পরীক্ষাও করান। তবে ভিন রাজ্য থেকে ফেরায় পাণ্ডেকে নিজের বাড়িতে কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দেন পুলিশ আধিকারিকরা।

[আরও পড়ুন:সেলুনে চুল কাটতে গিয়ে বিপত্তি, করোনায় আক্রান্ত গ্রামের ছ’জন]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে