BREAKING NEWS

১৭  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

গুরুত্ব পেল না রাজ্যের আপত্তি! কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় পাশ এনপিআর আপডেটের প্রস্তাব

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: December 24, 2019 4:14 pm|    Updated: December 24, 2019 4:51 pm

Despite uproar the Union cabinet gives nod to NPR

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গুরুত্ব পেল না পশ্চিমবঙ্গ-সহ দুই রাজ্যের আপত্তি। ন্যাশনাল পপুলেশন রেজিস্টার (National Population Register) তথা এনপিআর আপডেটের প্রস্তাবে ছাড়পত্র দিল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। গোটা দেশের সব নাগরিককে এনপিআরের অধীনে নিজেদের নাম ও তথ্যাবলী রেজিস্টার করতে হবে। এনপিআরের জন্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা ৩ হাজার ৯৪১ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে। একই সঙ্গে ২০২১ সালের আদমশুমারির জন্য ৮ হাজার ৭৫৪ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। এনপিআরের প্রস্তাব আগেই মন্ত্রিসভায় দেওয়া হয়েছিল। মঙ্গলবার বৈঠকে তাতে ছাড়পত্র দেওয়া হল। আগামী বছর এপ্রিল মাসে এনপিআরের প্রক্রিয়া শুরু হবে। শেষ করতে হবে সেপ্টেম্বরের মধ্যে।

এনপিআরকে অনেকেই এনআরসির প্রথমিক পদক্ষেপ হিসেবে গণ্য করে। এনপিআরের মাধ্যমে দেশের স্থানীয় নাগরিকদের সমস্তরকম তথ্য নথিভুক্ত করা হয়। গত ছ’মাসে কোনও একটি জায়গায় কারা বসবাস করেছেন, বা আগামী ছ’মাসে ওই এলাকায় কারা বসবাস করতে পারেন। সব নথিভুক্ত করা হয় এনপিআরে। জনগণনা কমিশনের তরফে জানানো হয়েছে, এনপিআরের মাধ্যমে দেশের স্থায়ী নাগরিকদের সমস্ত তথ্য নথিভুক্ত করা হবে। কোনও একটি নির্দিষ্ট এলাকায় ৬ মাস বসবাস করলেই নাগরিকদের নাম এনপিআরে নথিভুক্ত হবে। তবে, সাধারণ নাগরিকদের বায়োমেট্রির তথ্য দেওয়া বাধ্যতামূলক নয় বলে জানিয়ে দিয়েছেন কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর (Prakash Javadekar)। এর আগে ২০১১ সালে জনগণনার সময়, এবং ২০১৫ সালে এনপিআর আপডেট করা হয়েছিল। ২০২১ সালের আদমশুমারির কথা মাথায় রেখে আগামী বছরই এনপিআর আপডেটে ছাড়পত্র দেওয়া হল।

[আরও পড়ুন: বিজনৌরে পুলিশের গুলিতে নিহত IAS পরীক্ষার্থী, আত্মরক্ষার তত্ত্ব সুপারের]

কেন্দ্রের তরফে অবশ্য আগে থেকেই এনপিআরের কাজ শুরু করার প্রস্তাব এসেছিল। এরাজ্যে প্রাথমিক কাজ শুরুও হয়েছিল। কিন্তু, সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন পাশ হওয়ার পরই এনপিআরের কাজ বন্ধ করার নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এরাজ্যের পাশাপাশি এনপিআর বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনায়ার বিজয়নও। তবে, রাজ্যের সেসব আপত্তি উড়িয়ে দিয়েই এনপিআরের সিদ্ধান্ত নিল মোদি সরকার।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে