১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

আপনি কি গোপনে খ্রিস্টান? প্রশ্নের মুখে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীর স্ত্রী

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 13, 2017 6:28 am|    Updated: September 19, 2019 4:50 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বড়দিনের ক্যাম্পেনে শামিল হয়েছিলেন। দুঃস্থ শিশুদের জন্য পোশাক সংগ্রহ করছিলেন। সেই তাগিদেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি পোস্ট করে আবেদন জানিয়েছিলেন। তা নাকি ‘অ-হিন্দু’ আচার-আচরণ, আর তার জন্যই এবার নেটদুনিয়ার একাংশের রোষের পাত্রী হতে হল মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিশের স্ত্রী অম্রুতা ফড়নবিশকে। খ্রিস্ট ধর্মের পৃষ্ঠপোষকতার অভিযোগ উঠল তাঁর বিরুদ্ধে।

[দেশের প্রতিটি টোল প্লাজায় স্যালুট জানাতে হবে জওয়ানদের, নির্দেশ কেন্দ্রর]

পেশায় ব্যাঙ্কার। তবে শাস্ত্রীয় সংগীতশিল্পী হিসেবেও বেশ নাম রয়েছে অম্রুতার। এর পাশাপাশি সমাজসেবামূলক অনুষ্ঠানে অংশ নিতেও দেখা যায় তাঁকে। সম্প্রতি এক বেসরকারি এফএম চ্যানেলের হয়ে ‘বি-সান্টা’ ক্যাম্পেনে অংশ নিয়েছিলেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীর স্ত্রী। যেখানে বড়দিন উপলক্ষে দুঃস্থ শিশুদের জন্য পোশাক সংগ্রহ করছিলেন তিনি। আরও অনেকে যাতে এ উদ্যোগে এগিয়ে আসেন, সেজন্য ইভেন্টের ছবি নিজের টুইটার প্রোফাইলে শেয়ার করে আরও অনুদানের আবেদন জানান।

[ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে লাগাতার যৌন হেনস্তা, গ্রেপ্তার প্রধানশিক্ষক]

এরপরই মুখ্যমন্ত্রীর স্ত্রীকে কাঠগড়ায় তোলেন নেটিজেনদের একাংশ। রাজীব ভরদ্বাজ নামের একজন লেখেন, এবার নিশ্চয়ই অম্রুতা ও তাঁর স্বামী ‘ডেভ’ নিজের অনুচরদের বলবেন, সান্টার পোশাক না পরতে। কারণ তাতে দূষিত উপকরণ রয়েছে। ঠিক যেমন করে দিওয়ালিতে বাজি না পোড়ানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। @Uch28281 নামে আরও এক প্রোফাইলের মালিক ফড়নবিশের নামকে ফার্নান্ডেজ বলে কটাক্ষ করেন। তাঁকে হিন্দুত্বের জন্যও একটু জায়গা দিতে বলেন। যাতে পরে তাঁর স্বামীর ভোটব্যাঙ্ক বাঁচানো সম্ভব হয়।

[আপনার আধার কি অন্য কেউ ব্যবহার করছে? ধরে ফেলুন নিজেই]

সোশ্যাল মিডিয়াতেই কটাক্ষের জবাব দিয়েছেন অম্রুতা। জানিয়েছেন আর পাঁচটা সাধারণ মানুষের মতোই তিনি হিন্দু। দেশের সমস্ত উৎসব নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করেন। আর তা ব্যক্তির নিজস্ব পছন্দ। তাঁর মত, মানুষই দেশের আসল ভাবনাকে তুলে ধরেন। একজন গর্বিত হিন্দু হিসেবে দেশের ঐক্য বজায় রাখা তাঁর দায়িত্বের মধ্যে পড়ে। নিজের বক্তব্যে সাংবাদিকদেরও ছাড় দেননি মুখ্যমন্ত্রী-জায়া। কিছু অযাচিত মন্তব্যের জন্য যে তিনি ভাল কাজ বন্ধ করে দেবেন না, তাও নিজের টুইটে জানিয়ে দেন অম্রুতা।

[রাজস্থানের পর এবার কেরলে রহস্যমৃত্যু বাঙালি শ্রমিকের, ইন্দাসে শোকের ছায়া]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement