BREAKING NEWS

৪ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

ভিক্ষা দেবেন না, চাঁদিফাটা গরমেও রাস্তায় বসে আর্জি বৃদ্ধের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: April 22, 2017 2:55 pm|    Updated: April 22, 2017 2:55 pm

Don't give money to beggars, this man explains why

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তাপমাত্রার পারদ চল্লিশ ছুঁই ছুঁই৷ ঘরের বাইরে পা দিতেই ভয় লাগে৷ ছাতা মাথায় দিয়েও রাস্তামুখো হতে সাহস যোগাতে পারেন না অনেকে৷ এই চাঁদিফাটা গরমেই দিনের পর দিন খোলা আকাশের নিচে বসে রয়েছেন ৬৩ বছরের এক বৃদ্ধ৷ সম্বল বলতে এক বোতল জল৷ আর হাতে ধরা একটি প্ল্যাকার্ড৷ কী লেখা আছে তাতে? ভিক্ষা দেবেন না৷ সিগন্যালে দাঁড়িয়ে থাকা, রাস্তার পাশে বসে থাকা কচি হাতগুলিতে দয়ার দান তুলে দেবেন না৷

[গুরুতর মানসিক রোগে আক্রান্ত ট্রাম্প, মত মার্কিন মনোবিদদের]

কিন্তু কেন এই অদ্ভূত আবদার করছেন তিনি? কারণ তিনি দারিদ্রকে প্রশ্রয় দিতে চান না, বরং শিক্ষার আলোয় আলোকিত করতে চান দেশের ভবিষ্যত প্রজন্মকে৷ গ্রীস্ম-বর্ষা-শীত সারা বছরই রাজধানীর রাস্তায় বসে এই আর্জি জানিয়ে যাচ্ছেন সাদাকত হুসেন খান৷

1

ছোটবেলাটা তিনিও দারিদ্রের মধ্যেই কাটিয়েছেন৷ দিন মজুরের কাজ করতেন তাঁর মা৷ তাই দিয়েই পেট চলত তাঁর ও বাকি তিন ভাইদের৷ সেই পরিস্থিতিতে পড়াশোনা করাটা যেন বিলাসিতা ছিল৷ কিন্তু হাল ছাড়েননি সাদাকত৷ কারণ ছোট থেকেই তিনি বুঝে গিয়েছিলেন হাত পেতে নয় শিক্ষার মাধ্যমেই দারিদ্রের অন্ধকার দূর করা সম্ভব৷ শিক্ষার মাধ্যমেই সাবলম্বী হওয়ার যোগ্যতা অর্জন করা৷ এখন জীবনের শেষ প্রান্তে এসে শিক্ষার এই পুঁজিকেই সমাজ উদ্ধারে কাজে লাগাতে চান তিনি৷

[যাদবপুর হস্টেলে ব়্যাগিং আতঙ্ক, পড়ুয়াদের নগ্ন করে নাচানোর অভিযোগ]

সাদাকত মনে করেন, একদিনের দয়ার দান কখনও দুঃস্থ শিশুগুলিকে উদ্ধার বা সাহায্য করতে পারবে না৷ বরং এতে তাদের আরও নির্ভরশীল করে তোলা হবে৷ আর সেই অসামাজিক মানুষগুলিকেও প্রশ্রয় দেওয়া হবে যারা এই শিশুগুলিকে দিয়ে জোর করে ভিক্ষাবৃত্তি করায়৷ এমনকী, অনেক সময় কচি প্রাণগুলিকে নিয়ে কেনাবেচার আসর বসায়৷ তাই সাদাকত সবাইকে বলেন শিশুদের হাতে নয় দান করতে হলে কোনও স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাকে করুন৷ যারা শিশুদের শিক্ষা ও আশ্রয় দু’টোই দিয়ে থাকেন৷ এমনই এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা চালান সাদাকত নিজে সোসাইটি ফর প্রোটেকশন অফ ইয়ুথ অ্যান্ড মাসেস (SPYM)৷ যার মাধ্যমে ছোট ছোট শিশুদের এভাবেই আলোর দিশা দেখাচ্ছেন তিনি৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে