BREAKING NEWS

২০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৭ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

এবার ড্রোনেও থাকবে ইউনিক আইডেন্টিফিকেশন নম্বর

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: November 1, 2017 3:45 pm|    Updated: November 1, 2017 3:45 pm

Drones to have unique identification numbers

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  জঙ্গি বিরোধী অভিযানই হোক কিংবা সীমান্তে নজরদারি, সেনাবাহিনীর এখন বড় ভরসা ড্রোন। তবে ভিআইপিদের নিরাপত্তা-সহ বিভিন্ন অসামরিক কাজেও ড্রোনের ব্যবহার বাড়ছে। তাই এবার অসামরিক কাজে ড্রোন কীভাবে ব্যবহার করা হবে, তা নিয়ে একটি খসড়া নির্দেশিকা তৈরি করল অসামরিক বিমান পরিবহণমন্ত্রক। অসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রকের সচিব আর এন চৌবে জানিয়েছেন, সংশ্লিষ্ট সবপক্ষের সঙ্গে আলোচনার পর, ডিসেম্বরের শেষে এই নির্দেশিকা অনুমোদনের জন্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে পেশ করা হবে।

[NTPC-র বয়লারে ভয়াবহ বিস্ফোরণ, মৃত্যুমিছিল উত্তরপ্রদেশে]

কী বলা হয়েছে এই খসড়া নির্দেশিকায়? অসামরিক কাজে ব্যবহারের জন্য প্রতিটি ড্রোন বিমানকে একটি ইউনিক আইডেন্টিফিকেশন নম্বর দিয়ে চিহ্নিত করা হবে। সেই নম্বরের ভিত্তিতে ড্রোন বিমানগুলিকে ব্যবহার করার অনুমতি দেবে কেন্দ্রীয় অসামরিক বিমান পরিবহণমন্ত্রক। তবে ২৫০ গ্রামের কম ওজনের ড্রোনের ব্যবহার করার ক্ষেত্রে এই ইউনিক আইডেন্টিফিকেশন নম্বরের প্রয়োজন হবে না। আলাদা করে অনুমতিও নিতে হবে না। পাশাপাশি, এই খসড়া নির্দেশিকায় বেশ কিছু নিষেধাজ্ঞারও উল্লেখ রয়েছে। যেমন আন্তর্জাতিক সীমান্ত লাগোয়া ৫০ কিমি এলাকায় ড্রোন ব্যবহার করা যাবে না। নয়া নির্দেশিকা কার্যকর হওয়ার পর, ওই এলাকাটিকে ‘নো ড্রোন জোন’  হিসেবে ঘোষণা করা হবে। অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রকের সচিব আর এন চৌবে জানিয়েছেন, দীর্ঘ  আলোচনার পর, এই খসড়া নির্দেশিকা তৈরি করা হয়েছে। নয়া নিয়ম মেনে ভিআইপি নিরাপত্তা-সহ বিভিন্ন কাজে ড্রোন ব্যবহার করতে কোনও অসুবিধা হবে না।

[ভরতুকিবিহীন রান্নার গ্যাসের দাম বাড়ল সিলিন্ডার পিছু ৯৩ টাকা]

প্রসঙ্গত, এখন সারা দেশে ডিরেক্টর জেনারেল অফ সিভিল অ্যাভিয়েশন বা DGCA-র নির্দেশিকা মেনেই যাত্রীবাহী বিমান চলাচল করে। তবে সেই নিয়মের আওতায় পড়ে না ড্রোন বিমান। এমনকী, ড্রোন বিমান কেনা-বেচা সংক্রান্ত কোনও নিয়মও নেই। তবে বছর তিনেক বিমান যাত্রীদের নিরাপত্তা স্বার্থে বিমানবন্দর লাগোয়া এলাকায় ড্রোন বিমান ব্যবহারে কিছু নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল DGCA।

[‘কর্নাটকে থাকতে গেলে শিখতে হবে কন্নড় ভাষা’]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে