২১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ৮ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

আদিবাসী যুবক খুনে অভিযুক্ত অধ্যাপিকা, সাফাই রাজনৈতিক প্রতিহিংসার

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: November 8, 2016 3:39 pm|    Updated: November 8, 2016 3:40 pm

DU Professor Nandini Sundar  is booked for murdering a tribal man

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ছত্তিশগড়ের গ্রামে মাওবাদীদের হাতে আদিবাসী যুবকের খুনের অভিযোগে অভিযুক্ত হলেন দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপিকা নন্দিনী সুন্দর। নিহতের স্ত্রী-ই তাঁর বিরুদ্ধে এই অভিযোগ এনেছেন।

সমাজকর্মী-অধ্যাপিকার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র, হত্যায় প্ররোচনা ও দাঙ্গা বাধানোর অভিযোগ উঠেছে। গত সপ্তাহে ধারালো অস্ত্র দিয়ে শামনাথ বাঘেল নামে এক যুবককে খুন করে মাওবাদীরা। মাওবাদীদের বিরুদ্ধে ‘টাঙ্গিয়া গ্রুপ’ তৈরি করে আন্দোলন সংগঠিত করেছিলেন ওই যুবক। তার পরিণতিতেই এই ‘শাস্তি’ দেয় মাওবাদীরা। নিহতের স্ত্রীর অভিযোগ, ঘটনার ঠিক আগে আগেই গ্রামে এসেছিলেন ওই অধ্যাপিকা-সহ জেএনইউ-এর এক অধ্যাপিকা ও আরও অনেকে। তাঁদের প্ররোচনাতেই মাওবাদীরা এই প্রতিশোধ নিয়েছে বলে অভিযোগ তাঁর। পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। অধ্যাপিকার বিরুদ্ধে এফআইআরও গ্রহণ করেছে পুলিশ।

যদিও অভিযোগ অস্বীকার করে অধ্যাপিকা জানিয়েছেন, তিনি দীর্ঘদিন বস্তারের এই গ্রামে যাননি। রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার জন্যই তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হচ্ছে বলে পাল্টা অভিযোগ তুলেছেন তিনি। যদিও পুলিশ সূত্রে খবর, নাম ভাঁড়িয়ে কিছুদিন আগে ওই গ্রামে গিয়েছিলেন অধ্যাপিকা। কোনওরকম আবেগ নয়, ঘটনা অনুযায়ীই যে পুরো বিষয়টির বিচার করা হবে তা পুলিশের তরফে খোলসা করে দেওয়া হয়েছে।

পুরো ঘটনাই অধ্যাপক, সমাজকর্মীদের প্রতি আঘাত বলে ব্যাখ্যা করেছেন অধ্যাপিকা। পুলিশ বেছে বেছে সমাজকর্মীদের টার্গেট করছে বলেও অভিযোগ তুলেছেন তিনি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে