BREAKING NEWS

১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘চার-পাঁচ বছরের মধ্যে ভেঙে পড়েছে দেশের অর্থনীতি’, বিস্ফোরক সুব্রহ্মণ্যম স্বামী

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: August 2, 2020 7:50 pm|    Updated: August 2, 2020 9:13 pm

India's growth rate may dip to -6 to -9 per cent current fiscal

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা মহামারীর কারণে চলতি অর্থবর্ষে ভারতের আর্থিক বৃদ্ধির হার (GDP) ৬ থেকে ৯ শতাংশ কমতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করলেন বিজেপি নেতা সুব্রহ্মণ্যম স্বামী (Subramanian Swamy)। তবে সঠিক নীতি মেনে চললে আগামী আর্থিক বর্ষে ভারতের অর্থনীতি পুরনো অবস্থাতে ফিরে যাবে বলেও আশাপ্রকাশ করেছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার এপ্রসঙ্গে মন্তব্য করতে গিয়ে বিজেপির রাজ্যসভার সাংসদ বলেন, ‘কোভিড-১৯ (Covid-19) -এর ফলে সৃষ্টি হওয়া মহামারীর কারণে চলতি অর্থবর্ষে ভারতের আর্থিক বৃদ্ধির হার ৬ থেকে ৯ শতাংশ কমে যেতে পারে। তবে সঠিক নীতি অনুসরণ করে চললে আগামী অর্থবর্ষেই তা ফিরে আসবে। অবশ্য দেশের এই করুণ হাল শুধুমাত্র করোনার কারণেই হয়নি। গত চার থেকে পাঁচ বছর ধরেই দেশের অর্থনীতি ভেঙে পড়েছে। করোনা মহামারীর কারণে তা আরও ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। এর ফলে এই আর্থিক বর্ষের শেষে আপনি দেখবেন ৬ থেকে ৯ শতাংশ বৃদ্ধির হার কমেছে।

[আরও পড়ুন: পাঞ্জাব দিয়ে পাকিস্তানের অস্ত্র ও মাদক পাচারের ছক বানচাল, ধৃত BSF কনস্টেবল-সহ ৩ ]

ইন্দো-আমেরিকান চেম্বার অফ কমার্স, তেলেঙ্গানা এবং অন্ধ্রপ্রদেশ শাখার যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত  ওই ভারচুয়াল বৈঠকে দেশের অর্থনীতি কীভাবে ঘুরে দাঁড়াবে তার ব্যাখ্যাও দেন সুব্রহ্মণ্যম স্বামী। এই বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে তিনি একাধিক চিঠি দিয়েছেন বলেও উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, আমাদের উৎপাদন করার ক্ষমতা রয়েছে। শুধু শ্রমিকরা ও কৃষকরা তাঁদের কাজের জায়গায় ফিরে গেলে, সঠিক নীতি মেনে নতুন করে সব কাজ শুরু হলেই দেশের আর্থিক বৃদ্ধির হার সাত শতাংশে পৌঁছে যাবে। চার-পাঁচদিন আগে এই বছরের শেষের দিকে দেশের আর্থিক পরিস্থিতি কেমন হবে তা ব্যাখ্যা করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে একটি চিঠিও পাঠিয়েছি। ‘

[আরও পড়ুন: ভারতের মোবাইল ফোনের বাজারে বিপুল বিনিয়োগ, তালিকায় রয়েছে Apple-ও, দাবি মন্ত্রীর]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে