BREAKING NEWS

২৬ শ্রাবণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১৩ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

‘নিজেকে সংযত করুন’, নির্বাচন কমিশনের নিশানায় যোগী আদিত্যনাথ

Published by: Tanujit Das |    Posted: April 6, 2019 11:33 am|    Updated: April 16, 2019 9:49 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতীয় সেনাকে ‘মোদিজি কি সেনা’ বলায় আগেই তাঁকে শোকজ করেছিল নির্বাচন কমিশন৷ এবার কমিশনের চরম হুঁশিয়ারির মুখে পড়লেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ৷ কড়া ভাষায় যোগীকে সাবধান হওয়ার নির্দেশ দিল কমিশন৷ ভাষার ব্যবহারের ক্ষেত্রে এখনই সাবধানতা অবলম্বন না করলে, যোগীর বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থার নেওয়ারও ইঙ্গিত দিয়ে রাখল কমিশন৷

[ আরও পড়ুন: ভোটে প্রার্থী হবেন না, আডবানীর পর সিদ্ধান্ত সুমিত্রা মহাজনের   ]

উত্তরপ্রদেশের গাজিয়াবাদের একটি নির্বাচনী প্রচার সভা থেকে ভারতীয় সেনাকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সেনা বলে অভিহিত করেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী৷ তাঁর এই মন্তব্যের কড়া সমালোচনা করেন বিরোধীরা৷ সূত্রের খবর, যোগীর ওই মন্তব্য সম্পর্কে খোঁজ-খবর নেয় নির্বাচন কমিশন৷ এবং ওই ঘটনার পাঁচদিনের মাথায় যোগীর উদ্দেশ্যে কড়া নির্দেশ পাঠাল কমিশন৷ জানা গিয়েছে, শুক্রবার কমিশনের তরফে প্রেরিত নির্দেশনামায় উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীকে এখনই সমঝে যাওয়ার হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে৷ বলা হয়েছে, ‘ভবিষ্যতে ভাষা ব্যবহারের ক্ষেত্রে নিজেকে সংযত করুন’৷ কমিশন সূত্রে খবর, যোগীর ওই মন্তব্যে সরাসরি নির্বাচনের আদর্শ আচরণবিধি লঙ্ঘন হয়েছে বলে মনে করেছেন আধিকারিকরা৷ কারণ, কমিশনের তরফে আগেই ঘোষণা করা হয়েছিল যে, দেশের কোনও রাজনৈতিক দল নির্বাচনী প্রচারের অংশ হিসাবে সেনাকে ব্যবহার করতে পারবে না৷ কিন্তু তারপরেও দেশের সেনাকে ‘মোদির সেনা’ বলে সেই নিয়ম লঙ্ঘন করেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী৷ এবং সেই কারণেই তাঁকে চূড়ান্ত হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে বলে জানানো হয়েছে কমিশনের তরফে৷

[ আরও পড়ুন: ‘ফ্যান্সি’ ট্রাক্টরে সওয়ার হেমা, সোশ্যাল মিডিয়ায় খোঁচা ওমর আবদুল্লার ]

উল্লেখ্য, গত ৩১ মার্চ গাজিয়াবাদের ওই নির্বাচনী প্রচার সভায় উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী বিরোধী কংগ্রেসকে তীব্র আক্রমণ করেন বলেন, “কংগ্রেস জঙ্গিদের বিরিয়ানি খাওয়াত আর মোদিজির সেনা তাদের বুলেট ও বোমা খাওয়ায়। এটাই পার্থক্য। কংগ্রেস মাসুদ আজহারের মতো লোকদের ‘জি’ বলে সম্বোধন করে এবং সন্ত্রাসবাদকে উৎসাহ দেয়। মোদিজির নেতৃত্বে বিজেপি সরকার শুধু জঙ্গিদের ঘাঁটিই ধ্বংস করছে না, পাকিস্তানের কোমরও ভেঙে দিচ্ছে।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement