১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সস্ত্রীক প্রাক্তন বায়ুসেনা আধিকারিকের গলাকাটা দেহ উদ্ধার

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: March 10, 2018 11:50 am|    Updated: March 10, 2018 11:50 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বন্ধ বাড়ি থেকে উদ্ধার প্রাক্তন বায়ুসেনা আধিকারিক ও তাঁর স্ত্রীর গলাকাটা দেহ।  কোনও ধারাল অস্ত্র দিয়ে দুজনের গলা সমান্তরালভাবে কাটা হয়েছে বলে অভিযোগ। মৃত দম্পতির নাম  জি কে নায়ার (৭০) ও গোমিত নায়ার (৬৮)। এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কাউকেই গ্রেপ্তার করেনি পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে ভোপালের আওয়াধপুরি থানা এলাকার নর্মদা গ্রিন ভ্যালি আবাসনে।

[১২ ও তার কমবয়সী শিশুকে ধর্ষণে মৃত্যুদণ্ড, নয়া বিল রাজস্থানে]

জানা গিয়েছে, শুক্রবার সকালে পরিচারিকা এসে দীর্ঘক্ষণ দরজায় ধাক্কাধাক্কি করেন। তারপরেও বাড়ির ভিতর থেকে কেউই দরজা খুলতে আসেননি। সাড়াশব্দ না পেয়ে এক সময় প্রতিবেশীদের বিষয়টি জানান পরিচারিকা। প্রতিবেশীরা জানলা দিয়ে দেখে রক্তের মধ্যে পড়ে আছেন ওই দম্পতি। সঙ্গে সঙ্গেই আওয়াধপুরি থানায় খবর দেওয়া হয়। পুলিশ এসে দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে। তবে কি কারণে খুন হয়েছেন ওই দম্পতি, তা এখনও স্পষ্ট নয়।

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের দাবি, পুরনো শত্রুতার জেরে খুনের ঘটনা ঘটেছে। কেন না প্রায় অথর্ব ওই দম্পতির বাড়িতে দুষ্কৃতীহানা হলেও তাঁদের বাধা দেওয়ার কিছু ছিল না। ঘটনাস্থল ভাল করে পরীক্ষা করেও কোনও সূত্র পাওয়া যায়নি। এমনকী, বাড়ির কোনও মূল্যবান জিনিস, গয়নাগাটি, টাকাপয়সা সবকিছু যেমন ছিল তেমনই আছে। গোটা বাড়িতে ধস্তাধস্তিরও কোনও চিহ্ন পাওয়া যায়নি। খুনের কিনারা করতে ইতিমধ্যেই পুরস্কার মূল্য ঘোষণা করেছে পুলিশ। ওই বৃদ্ধ দম্পতিকে ঠিক কি কারণে খুন হতে হল, বা খুন সম্পর্কিত কোনও তথ্য দিলেই মিলবে ২০ হাজার টাকা। তবে পুরস্কার ঘোষণা করেই হাত গুটিয়ে বসে নেই পুলিশ। দম্পতির সন্তান ও আত্মীয়দের খোঁজে তদন্ত শুরু হয়েছে। পরিচারিকাকেও জেরা করা হচ্ছে।

[চিন সীমান্তে শহিদ জওয়ানদের পরিবারের জন্য নয়া উদ্যোগ কেন্দ্রের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement