BREAKING NEWS

১৩ মাঘ  ১৪২৭  বুধবার ২৭ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

কৃষক-পুলিশ সংঘর্ষে উত্তপ্ত নয়াদিল্লির গাজিপুর, দেশজুড়ে বাড়ছে উত্তেজনা

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: November 29, 2020 9:25 pm|    Updated: November 29, 2020 9:58 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রবিবার দুপুরে সাংবাদিক বৈঠক করে দিল্লিতে ঢোকার পাঁচটি রাস্তাই অবরোধ করার হুমকি দিয়েছিলেন বিক্ষোভকারী কৃষকরা। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর শর্তসাপেক্ষ বৈঠকের প্রস্তাব প্রত্যাখান করে দিল্লির বুরারি পার্কের ময়দানে যাবেন না বলেও পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছিলেন। বিষয়টি নিয়ে টানাপোড়েন যখন তুঙ্গে তখনই সন্ধেবেলায় পুলিশের ব্যারিকেড ভেঙে দিল্লি ঢোকার চেষ্টা করে খণ্ডযুদ্ধে জড়ালেন কৃষকদের একাংশ। বিষয়টি কেন্দ্র করে তুমুল উত্তেজনা ছড়াল দিল্লি ও উত্তরপ্রদেশের সংযোগস্থলে অবস্থিত গাজিপুর-গাজিয়াবাদ সীমান্তে। এই ঘটনার ভিডিও প্রকাশ্যেই আসতেই দেশজুড়ে উত্তেজনা তৈরি হয়েছে। অবিলম্বে বিনা শর্তে কৃষকদের সঙ্গে কেন্দ্রীয় সরকারকে আলোচনায় বসার দাবি জানিয়েছে বিরোধীরা।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে দিল্লিতে ঢোকার পাঁচটি রাস্তার মুখে অবরোধ করছিলেন বিক্ষোভকারী কৃষকরা। রবিবার সন্ধেবেলায় আচমকা গাজিপুর-গাজিয়াবাদ (Ghazipur-Ghaziabad) সীমান্তে বিক্ষোভকারীদের একাংশ পুলিশের ব্যারিকেড ভেঙে দিল্লিতে ঢোকার চেষ্টা করেন। পুলিশ তাতে বাধা দিলে উভয়পক্ষের মধ্যে ধস্তাধস্তিও হয়। এর ফলে নিমিষের মধ্যে প্রবল উত্তেজনা ছড়ায় ওই এলাকায়। ধাক্কাধাক্কির ফলে অনেক কৃষক জখমও হয়েছেন বলে খবর। পরে বহুকষ্টে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ। তবে এখনও সেখানে উত্তেজনা রয়েছে। এদিকে এর মাঝেই জানা গিয়েছে দিল্লিতে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার বাড়িতে কৃষক আন্দোলন নিয়ে জরুরি বৈঠকে বসেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং ও কেন্দ্রীয় কৃষি মন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমার।

[আরও পড়ুন: প্লাস্টিক অতীত, দেশের সমস্ত রেল স্টেশনে এবার মাটির ভাঁড়েই মিলবে চা ]

শনিবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ কৃষকদের নয়াদিল্লির বুরারি পার্কে গিয়ে আন্দোলন করার পরামর্শ দিয়েছিলেন। বলেছিলেন কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী তাঁদের সঙ্গে আগামী ৩ ডিসেম্বর আলোচনায় বসবেন। আলোচনা চাইলে রাস্তা আটকে সাধারণ মানুষের অসুবিধা করা যাবে না বলেও উল্লেখ করেছিলেন। রবিবার ক্রান্তিকারী ভারতীয় কিষাণ ইউনিয়নের নেতা সরজিৎ সিং (Sarjeet Singh) অমিত শাহের সেই পরামর্শ মানবেন না বলে পরিষ্কার জানিয়ে দেন। যন্তরমন্তরে আন্দোলন করতে দিতে হবে বলে জানিয়ে আরও তিনটি দাবি পেশ করেন। সেগুলি হল ন্যূনতম সহায়ক মূল্য ও ফসল কেনার প্রতিশ্রুতি, বিদ্যুৎ সংক্রান্ত নতুন অর্ডিন্যান্স বাতিল ও ফসলের উচ্ছিষ্ট পোড়ানোর জরিমানা মকুব। নয়া কৃষি আইন প্রত্যাহারের পাশাপাশি এই তিনটি দাবি মানতে হবে বলেও জানান তিনি।

[আরও পড়ুন: কোভিশিল্ড টিকা নিতেই স্নায়ুর রোগে আক্রান্ত!‌ ৫ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি ব্যক্তির]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement