৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

করোনা আবহে বাংলার ভাঁড়ারে সাময়িক স্বস্তি, ৪১৭ কোটি টাকা প্রাপ্য মেটাল কেন্দ্র

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: May 12, 2020 10:14 am|    Updated: May 12, 2020 10:15 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কেন্দ্র-রাজ্য বৈঠকের পর খানিকটা স্বস্তি। কেন্দ্র থেকে রাজ্যের ভাঁড়ারে আসছে প্রায় ৪১৭ কোটি টাকা। শুধু বাংলা নয়, মোট ১৪ টি রাজ্য কেন্দ্রের রাজস্ব ঘাটতির ক্ষতিপূরণ বাবদ ৬ হাজার ১৯৫ কোটি টাকা পেল কেন্দ্রের কাছ থেকে। সোমবার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীদের বৈঠকের পরপরই টুইটারে একথা ঘোষণা করেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ।

অর্থমন্ত্রী (Nirmala Sitharaman) সোমবার রাতে টুইটারে জানান, পঞ্চদশ অর্থ কমিশনের সুপারিশ মেনে ১১ মে রাজ্যগুলিকে প্রায় ৬ হাজার ১৯৫ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে রাজস্ব ঘাটতি বাবদ। এর মধ্যে বাংলা পেয়েছে ৪১৭ কোটি ৭৫ লক্ষ। অর্থমন্ত্রী বলেন, “করোনার এই সংকটকালে রাজ্যগুলির সংস্থান বাড়াতে সাহায্য করবে এই অর্থ।” বাংলার পাশাপাশি উপকৃত হয়েছে আরও ১৩টি রাজ্য। সবচেয়ে বেশি অর্থ পেয়েছে কেরল। রাজস্ব ঘাটতি বাবদ পিনারাই বিজয়নের সরকার পেয়েছে প্রায় ১,২৭৬ কোটি টাকা। পাঞ্জাবের কংগ্রেস সরকার পেয়েছে ৬৩৮ কোটি টাকা। বাংলা পেয়েছে ৪১৭ কোটি ৭৫ লক্ষ টাকা। এছাড়া উপকৃত হয়েছে অন্ধ্রপ্রদেশ, অসম, হিমাচল প্রদেশ, মণিপুর, মেঘালয়, মিজোরাম, নাগাল্যান্ড, সিকিম, উত্তরাখণ্ড, তামিলনাড়ু, ত্রিপুরার মতো রাজ্যগুলি।

[আরও পড়ুন: ‘ঘরে ফিরতে চাওয়াই মানবপ্রবৃত্তি, কিন্তু সংক্রমণ রুখতে হবে’, বৈঠকে ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর]

গত মাসের ৩ তারিখেও একইভাবে রাজস্ব ঘাটতি বাবদ বাংলাকে ৪১৭ কোটি ৭৫ লক্ষ দেয় কেন্দ্র। সেবারেও বাংলার ভাগ্যে জুটেছিল ৪১৭ কোটি। তবে, গত মাসে রাজস্ব ঘাটতির পাশাপাশি কেন্দ্রের বিপর্যয় মোকাবিলা তহবিলে রাজ্যের প্রাপ্য থেকেই ৫০৪ কোটি ৫ লক্ষ টাকা দেওয়া হয়েছিল বাংলাকে। অর্থাৎ সব মিলিয়ে বাংলা গত মাসে কেন্দ্রের কাছে প্রায় ৯২৩ কোটি টাকা পায়। এমাসে জুটল ৪১৭ কোটি। তবে মুখ্যমন্ত্রী (Mamata Banerjee) যে দীর্ঘদিন ধরে আর্থিক প্যাকেজের দাবি জানিয়ে আসছেন, তা এখনও পূরণ হয়নি।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement