BREAKING NEWS

১৫  আষাঢ়  ১৪২৯  শুক্রবার ১ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্টের অভিযোগ, কবীর সুমনের বিরুদ্ধে FIR ত্রিপুরায়

Published by: Paramita Paul |    Posted: February 2, 2022 4:07 pm|    Updated: February 2, 2022 4:47 pm

FIR lodged in Tripura against Kabir Suman

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হিন্দুদের অপমান করেছেন সংগীত শিল্পী কবীর সুমন (Kabir Suman)। তাঁর ‘উসকানিমূলক’ মন্তব্য সমাজের সম্প্রীতি নষ্ট করেছে। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করার অভিযোগে ত্রিপুরায় কবীর সুমনের বিরুদ্ধে দায়ের হল এফআইআর। 

সুরজিৎ ভৌমিক নামে এক ত্রিপুরাবাসী আর কে পুর থানায় এফআইআর দায়ের করেছেন। তাঁর অভিযোগ, কবীর সুমনের সাম্প্রতিক মন্তব্য সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করছে। ভিন্ন ধর্মাবলম্বীদের মধ্যে সম্পর্ক নষ্ট করছে। সম্প্রতি শিল্পী তাঁর সহ-নাগরিকের ফোনে কয়েকটি বিতর্কিত মন্তব্য করেন।

তাঁর এই মন্তব্য শত্রুতা তৈরি করছে দুই সম্প্রদায়ের মধ্যে, দাবি অভিযোগকারীর। এমনকী, কবীর সুমন হিন্দু দেবীদের ধর্ষণের হুমকি দিয়েছেন বলে দাবি অভিযোগকারীর। এই সমস্ত অভিযোগ নিয়ে সংগীত শিল্পীর বিরুদ্ধে পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছেন ওই ব্যক্তি। তাঁর দাবি, দেশে শান্তি বজায় রাখতে শিল্পীর বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হোক।

[আরও পড়ুন: বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় তৃণমূলের চেয়ারপার্সন নির্বাচিত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়]

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে শিল্পী কবীর সুমনের একটি অডিও ক্লিপ। অভিযোগ, একটি টিভি চ্যানেলের সাংবাদিকের সঙ্গে ফোনে কথা বলার সময় সুমনকে অশ্রাব্য ভাষা প্রয়োগ করতে দেখা গিয়েছে ওই ক্লিপে। বিজেপি (BJP) এবং আরএসএসের (RSS) উদ্দেশেও কুমন্তব্য করেছেন তিনি। এই বিতর্কের মধ্যে মুখ খোলেন স্বয়ং সুমন। এই ঘটনার প্রেক্ষিতে বিজেপি (BJP) ইতিমধ্যেই সুমনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। দলের কাউন্সিলর মুচিপাড়া থানায় এফআইআর করেছেন। এবার ত্রিপুরার থানাতেও দায়ের হল অভিযোগ। 

উল্লেখ্য, এই বিতর্কে ইতিমধ্যেই ক্ষমা চেয়েছেন কবীর সুমন। ক্ষমা চাইলেও কবীর সুমনের পালটা যুক্তি, ”ওই চ্যানেলের প্রতিনিধি দু’জনের কথাবার্তা রেকর্ড করার কথা আমাকে বলেননি। আমার অনুমতি নেননি।” শিল্পীর প্রশ্ন, “যে চ্যানেল বা দল দীর্ঘকাল ধরে আমাদের দেশের মুসলমানদের আক্রমণ ও অপমান করে চলেছে সেই চ্যানেলের লোককে গালাগাল দেওয়ার অধিকার কি আমার নেই?”

বস্তুত, রবিবার নিজের দ্বিতীয় পোস্টে কেন্দ্রের শাসকদলের বিরুদ্ধে সংখ্যালঘুদের উপর অত্যাচারের একাধিক অভিযোগ তুলেছেন তিনি। বোঝানোর চেষ্টা করেছেন ক্ষমাপ্রার্থী হলেও বিজেপির মতো সংখ্যালঘু বিদ্বেষী দল এবং তাদের ‘সমর্থনকারী’ চ্যানেলকে গালাগাল করে কোনও গর্হিত অপরাধ তিনি করেননি।

[আরও পড়ুন: দুর্গাপুজোর একমাস আগেই হবে বিশাল মিছিল, শঙ্খ-উলুধ্বনি দেবেন মা-বোনেরা: মমতা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে