BREAKING NEWS

১৫  আষাঢ়  ১৪২৯  শুক্রবার ১ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

চিনকে ‘চুপ’ করাতে ভারতের হাতে ১৫৫ এমএম আল্ট্রা-লাইট হাউৎজার কামান

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 18, 2017 3:22 am|    Updated: May 18, 2017 3:26 am

First modern 155 mm artillery guns land in India

চিনকে নিশানায় রাখতে কামানগুলি উড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হবে ১৬ হাজার ফুট উচ্চতায় লাদাখ ও অরুণাচলে৷

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত ৩৭ বছর ধরে তাড়া করে বেড়ানো বফর্স কেলেঙ্কারির ভূত অবশেষে নামতে চলেছে ভারতের ঘাড় থেকে৷ ১৯৮০-র পর ফের ভারতীয় সশস্ত্র বাহিনীর জন্য এল নয়া ‘আর্টিলারি গান’৷ বৃহস্পতিবার সকালে আমেরিকা থেকে চার্টার্ড ফ্লাইটে করে ভারতের মাটিতে নামতে চলেছে দু’টি এম-৭৭৭ আল্ট্রা লাইট হাউৎজার কামান৷ এরকম মোট ১৪৫টি কামান কিনছে ভারত৷ এখন থেকে প্রতি মাসে পাঁচটি করে ১৫৫ এমএম/৩৯ ক্যালিবারের আল্ট্রা লাইট হাউৎজার ভারতীয় বাহিনীর হাতে আসবে৷

সূত্রের খবর, নয়া কামানগুলি চিনের দিকে তাক করে রাখা হবে৷ মাত্র ৪ টন ওজন হওয়ায় বিমানে চাপিয়ে এম-৭৭৭’কে সহজেই ১৬ হাজার ফুট উচ্চতায় লাদাখ ও অরুণাচলে ৪,০৫৭ কিলোমিটার বিস্তৃত ভারত-চিন সীমান্তে নিয়ে যাওয়া যাবে৷ লাইন অফ অ্যাকচুয়াল কন্ট্রোল (এলএসি)-এ অতন্দ্র প্রহরায় নিযুক্ত থাকবে এম-৭৭৭৷ চিনের দিকে তাক করে এই কামানগুলি নিয়ে তৈরি থাকবে নয়া ১৭ মাউন্টেন স্ট্রাইক কর্পস৷ বরফে ঢাকা পাহাড়ি এলাকায় অত্যাধিক উচ্চতা, তীব্র ঠান্ডা ও প্রতিকূল আবহাওয়ায় চিনের মতো রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে যুদ্ধের জন্য এই মাউন্টেন কর্পসকে ঢেলে সাজানো হচ্ছে৷ আপাতত দু’টি ইনফ্যানট্রি পাহাড়ি এলাকায় যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত৷ এয়ার ডিফেন্স, আর্টিলারি গানস ও আর্মার্ড ব্রিগেডস ২০২১-এর মধ্যে পুরোপুরি তৈরি হয়ে যাবে৷ ওই বাহিনীতে মোতায়েন থাকবেন ৯০, ২৭৪ জন সেনা৷

M-777-ultra-light-howitzers-2

১৩ লক্ষ সেনা সমৃদ্ধ দেশের সশস্ত্র বাহিনীতে ১৫৫ এমএম-এর ‘আর্টিলারি গান’ শেষবার যুক্ত হয়েছিল রাজীব গান্ধীর আমলে৷ কিন্তু বফর্স কেলেঙ্কারির পর থেকে দুর্নীতির ভয়ে সেনায় নতুন কোনও কামান যুক্ত করা যায়নি৷ গত ১৫ বছর ধরে ভারতীয় সেনা দূরপাল্লার (২৪-৪০ কিলোমিটার রেঞ্জের) আগ্নেয়াস্ত্রর দাবি জানিয়ে আসছিল৷ অবশেষে সেই দাবি মিটল৷ চিনের বিরুদ্ধে যুদ্ধের সবরকম প্রস্তুতি সেরে রাখতে এবার তৈরি হচ্ছে ভারত৷ টাইটেনিয়ামে মোড়া এই হাউৎজার কামানের রেঞ্জ প্রায় ২৫ কিলোমিটার৷

প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রে খবর, নতুন কামানগুলি পোখরানে ফায়ারিং রেঞ্জে নিয়ে যাওয়া হবে৷ সেখানে একাধিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার মধ্যে দিয়ে যাবে নয়া অস্ত্রগুলি৷ এয়ার-মোবাইল এই হাউৎজারগুলির জন্য ওয়াশিংটনের সঙ্গে প্রায় ৭৩৭ মিলিয়ন ডলারের চুক্তি হয় নয়াদিল্লির৷ ভারতীয় মুদ্রায় যা প্রায় ৫০০০ কোটি টাকার মতো৷ ২০২১-এর মধ্যে ভারতের হাতে ১৪৫টি এই ধরনের কামান আসতে চলেছে৷ যার মধ্যে প্রথম ২৫টি কামান আমদানি করা হবে৷ বাকি কামানগুলি এ দেশে আংশিকভাবে তৈরি করা হবে৷ এর জন্য মার্কিন সংস্থার সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করবে মাহিন্দ্রা৷

এর পাশাপাশি, দক্ষিণ কোরিয়া একটি সংস্থার কাছ থেকে আরও ১০০টি সেলফ-প্রপেলড হাউৎজার আসবে ভারতে৷ ওই চুক্তির জন্য নয়াদিল্লি আরও ৪,৩৬৬ কোটি টাকা খরচ করেছে৷ আগামী ৪২ মাসের মধ্যে ওই চুক্তি মোতাবেক সবক’টি কামান ভারতের হাতে চলে আসবে৷ ১৫৫ এমএম/৫২ ক্যালিবারের কামানগুলির নাম দেওয়া হয়েছে কে-৯ বজ্র-টি৷

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে