BREAKING NEWS

২২  মাঘ  ১৪২৯  সোমবার ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

মহারাষ্ট্রের অভয়ারণ্যে উদ্ধার চার ব্যাঘ্র শাবকের মৃতদেহ, বাঘের কবলেই মৃত্যু! ঘনাচ্ছে রহস্য

Published by: Biswadip Dey |    Posted: December 4, 2022 10:17 am|    Updated: December 4, 2022 10:19 am

Four tiger cubs found dead in Maharashtra। Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত ৩০ নভেম্বর সন্ধান মিলেছিল এক বাঘিনীর মৃতদেহ। এবার মহারাষ্ট্রের (Maharashtra) তাডোবা টাইগার রিজার্ভের শিবানী বনাঞ্চল থেকে উদ্ধার হল চারটি বাঘ শাবকের মৃতদেহ। কীভাবে তাদের মৃত্যু হল তা নিয়ে দানা বাঁধছে রহস্য। শনিবার সন্ধান মেলা মৃত শাবকগুলির দু’টি পুরুষ ও দু’টি স্ত্রী বাঘ।

চারটি শাবকের শরীরেই আঘাতের চিহ্ন মিলেছে। স্বাভাবিক ভাবেই প্রশ্ন উঠছে, কীভাবে মৃত্যু হয়েছে তাদের? প্রাথমিক ভাবে বনকর্মীদের অনুমান, কোনও পুরুষ বাঘই হত্যা করেছে তাদের। কেননা একটি বাঘকে এরই মধ্যে ওই এলাকায় দেখা গিয়েছিল বলে জানা যাচ্ছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে বন বিভাগের তরফে জানানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন: বিশ্বকাপের শেষ আটে আর্জেন্টিনা, মেসি ম্যাজিকে রচিত হল নয়া ইতিহাস]

তাডোবা টাইগার রিজার্ভের আধিকারিক ড. জিতেন্দ্র রামগাঁওকর জানাচ্ছেন, ”দু’টি পুরুষ ও দু’টি স্ত্রী বাঘের শাবকের মৃতদেহের সন্ধান মিলেছে শনিবার সকালে। তাদের বয়স তিন থেকে চার মাসের মধ্যে। তাদের দেহে যে আঘাতের চিহ্ন মিলেছে তা পরীক্ষা করে মনে হচ্ছে কোনও বাঘ (Tiger) হত্যা করেছে তাদের। ইতিমধ্যেই ওই এলাকায় একটি বাঘিনী দু’টি বাঘের উপস্থিতি টের পাওয়া গিয়েছিল। শাবকগুলির মায়ের পরিচয় পাওয়া যায়নি।”

শাবকগুলির দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। টি-৭৫ নামের মৃত বাঘিনীই তাদের মা ছিল কিনা তা নিশ্চিত করতে সকলের কোষের নমুনাও পরীক্ষা করা হবে বলে জানা যাচ্ছে। ডিএনএ মিলিয়ে সমস্ত পরীক্ষার পরই নিশ্চিত করে বলা যাবে ওই বাঘিনীই শাবকগুলির মা কিনা। এমনটাই জানাচ্ছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।
ওই এলাকার বাসিন্দা বাঘেদের চলাফেরা নজরে রাখতে ক্যামেরার সাহায্য নেয় বন বিভাগ। খুঁটিয়ে দেখা হচ্ছে সেগুলিও। উল্লেখ্য, এই অভয়ারণ্যে বাঘের সংখ্যা ১২০টিরও বেশি। পাশাপাশি বুনো কুকুর, চিতাবাঘ, বাইসন, হায়নার মতো পশুও রয়েছে এখানে।

[আরও পড়ুন: প্রেমিকার ৩৫ টুকরো করা আফতাব এখন মগ্ন সাহিত্যচর্চায়, জেলে বসেই পড়ছে বই]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে