২১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ৮ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ওড়িশার কয়লা খনিতে ধস, মৃত ৪ শ্রমিক

Published by: Bishakha Pal |    Posted: July 24, 2019 5:10 pm|    Updated: July 24, 2019 5:10 pm

Four workers dead in landslide at coal mine in Odisha

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের কয়লা খনিতে ধস। মঙ্গলবার রাতে ওড়িশার কোল ইন্ডিয়া লিমিটেডের একটি কয়লা খনিতে আচমকাই ধস নামে। ঘটনায় ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন ৯ জন। এখনও চলছে উদ্ধারকাজ। ওড়িশার এই কয়লা খনিতে দিনে প্রায় ২০ হাজার টন কয়লা ওঠে। মঙ্গলবার দুর্ঘটনার পর থেকে ওই কয়লা খনির কাজ বন্ধ রয়েছে। নতুন করে কাজ শুরু হতে আর অন্তত ৭ দিন সময় লাগবে বলে খবর।

[ আরও পড়ুন: ‘মধ্যস্থতার কোনও প্রশ্নই ওঠে না’, ট্রাম্পের দাবি খারিজ করলেন রাজনাথ ]

রোজকার মতো মঙ্গলবারও কোল ইন্ডিয়া পরিচালিত সিংগ্রেনি কোলিয়ারিতে কাজ চলছিল। আচমকাই সেখানে ঘটে দুর্ঘটনা। কয়লা খনি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, রাতের শিফটে কাজ করছিলেন শ্রমিকরা। হঠাৎই খনির একটা অংশের ছাদ খসে পড়ে। দুর্ঘটনাটি যেখানে ঘটে, সেখানে কাজ করছিলেন প্রায় জনা তেরো শ্রমিক। রাত ১১টা থেকে সাড়ে ১১টার মধ্যে ছাদ ভেঙে পড়ে। মারাত্মক জখম হন তাঁরা।

দুর্ঘটনার প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই উদ্ধারকাজ শুরু করেন খনির বাইরে উপস্থিত শ্রমিকরা। কয়েকজনকে বের করে আনা হয়। আহতদের উদ্ধার করে কোম্পানির হাসপাতালে পাঠানো হয়। যাদের আঘাত গুরুতর নয়, তাদের প্রাথমিক চিকিৎসার পরই ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এখনও পর্যন্ত যা খবর পাওয়া গিয়েছে, সেই অনুযায়ী ৪ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। গুরুতর আহত আরও ৯ জন। এখনও কেউ কয়লা খনির মধ্যে আটকে আছেন কিনা তার খোঁজ করা হচ্ছে। ঘটনার তদন্ত করছে পুলিশ।

[ আরও পড়ুন: কাশ্মীরে ‘অতি সক্রিয়’ এনআইএ, সংঘাত বাড়ছে রাজ্য পুলিশের সঙ্গে ]

ওড়িশার কয়লা খনিতে এই দুর্ঘটনার পর কয়লা খনিগুলির নিরাপত্তা নিয়ে ফের প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। কারণ এখন দেশের বেশিরভাগ কয়লাখনিই ‘ওপেন কাস্ট মাইন’। সেখানে সুরক্ষা ব্যবস্থা যথাযথ নয়। ফলে আকছার সেখানে দুর্ঘটনা ঘটে। সাময়িকভাবে ঘটনাগুলি সামাল দিলেও কর্তৃপক্ষ ভবিষ্যতের জন্য কোনও বন্দোবস্ত করে না। ফলে দুর্ঘটনার সম্ভাবনা থেকেই যায়। তার উপর আবার অনেক কয়লা খনি আবার বেআইনি। ফলে দুর্ঘটনায় শ্রমিক মারা গেলে সেই খবর নথিভুক্তও হয় না।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে